‘বেঙ্গলি বিউটি’র দায়িত্ব নিলো জাজ মাল্টিমিডিয়া

https://i.ytimg.com/vi/kpFhU0Nc2hA/maxresdefault.jpg 

চলতি বছরের জানুয়ারিতে ট্রেলার রিলিজ দিয়েই হইচই ফেলে দিয়েছিলো রাহশান নূরের ছবি ‘বেঙ্গলি বিউটি’। গেল শুক্রবার (২০ জুলাই) বড় পর্দায় মুক্তি পায় ছবিটি। ছবিটি মাত্র একটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ায় হতাশ হন অনেকে।

‘বেঙ্গল বিউটি’র দিনে দেশের প্রেক্ষাগৃহে আমদানি চুক্তিতে মুক্তি পায় কলকাতার ছবি ‘সুলতান’। ‘বেঙ্গল বিউটি’ ছবিটি শুধুমাত্র (একটি) ঢাকার যমুনা ফিউচার পার্ক সিনেমাসে মুক্তি পায়। অন্যদিকে, কলকাতার ছবি ‘সুলতান’ শুক্রবার থেকে একযোগে চলছে দেশের ১১৮ টি সিনেমা হলে।

দেশিয় ছবি ‘মাত্র এক সিনেমা হলে’ মুক্তি পাওয়া এবং কলকাতার জিতের ছবি সুলতান ‘শতাধিক সিনেমা হলে’ মুক্তি পাওয়াকে ‘অশুভ লক্ষণ’ বলে মনে করছেন সিনেমা সংশিষ্টরা। তাই নতুন করে ‘বেঙ্গলি বিউটি’ যাতে বেশি সিনেমা হলে প্রদর্শন করা যায়, সেই কারণেই ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্ব নিচ্ছে দেশের শীর্ষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া।

টয়া জানান, চলতি সপ্তাহে ‘বেঙ্গলি বিউটি’ একটি হলে মুক্তি পেয়েছে কোনো ডিস্ট্রিবিউশন ছাড়াই। অনেকটা মন খারাপের সুরে টয়া বলেন, ‘একটি হলে মুক্তি পেয়েছে এটা নিয়ে আমার কিছু বলা নেই। আশা করবো আগামীতে যেন বেশি হলে আমার ছবিটা প্রদর্শনের সুযোগ পায়।’

 জাজ মাল্টিমিডিয়া কর্ণধার আবদুল আজিজ  বলেন, আমি শুনেছি ‘বেঙ্গলি বিউটি’ ছবিটা ভালো। আর ভালো ছবি বলেই জাজ থেকে এটি ডিস্ট্রিবিউশন করা হবে।

আবদুল আজিজ আরও বলেন, ‘বেঙ্গলি বিউটি’ ছবিটি আমি এখনও দেখনি। দেখার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে পারবো যে কোন সপ্তাহ থেকে এটি জাজের মাধ্যমে ডিস্ট্রিবিউশন হবে। তবে আগামী সপ্তাহ থেকে নয়, নতুন করে অন্য কোনো সপ্তাহ থেকে ডিস্ট্রিবিউশন হবে।

উল্লেখ্যঃ সত্তরের দশকের রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পরিস্থিতির মধ্যে একটি জুটির কাল্পনিক প্রেমের গল্প নিয়ে ‘বেঙ্গলি বিউটি’। ছবিতে টয়া-রাহশান নূর ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন সারা আলম, আশফাক রেজওয়ান, পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, মাসুম বাশার, জিএম শহিদুল আলম, নাজিবা বাশার, নেইলি আজাদ প্রমুখ।

শোয়েবের গানে মডেল তমা মির্জা

শোয়েবের গানে মডেল তমা মির্জা

https://scontent.fdac24-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/fr/cp0/e15/q65/35839097_626762261012304_677965964972654592_n.jpg?_nc_cat=0&efg=eyJpIjoiYiJ9&oh=116377d2f3ca79940328870c32e2bb0f&oe=5BC59940 

বৃষ্টি নিয়ে গান অনেক শ্রোতারই পছন্দ। আর সেই গান যদি ভিডিও আকারে তৈরি করেন কোনো নির্মাতা তাহলে তো আর কোনো কথাই নেই। বৃষ্টি নিয়ে সংগীতশিল্পী মোহাম্মদ শোয়েবের এমনই একটি গানে মডেল হয়েছেন চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ তমা মির্জা।   

 নতুন এই  মিউজিক ভিডিও নিয়ে জানান, গত বছর গানটির শুটিং করেছি। তবে দীর্ঘ সময় পর ভিডিওটি প্রকাশ হলো। গানের শিরোনাম ‘তোমার আকাশ’ আমার সঙ্গে সৌমিক আহমেদ মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। কাজটি করে বেশ ভালো লেগেছে আমার। গানটি প্রকাশের পর বেশ ভালো সাড়াও পাচ্ছি।

গানটির ভিডিও গানচিল মিউজিকের ইউটিউব চ্যানেলে সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে। রোমান্টিক গানটির প্রথম লাইনগুলো হলো ‘আমার আকাশ মেঘে ঢাকা, সব চাওয়ায় তোমায় রাখা, মন কি যে চায়, বেঁধে রাখা দায়, আজ বরষায়, মন ভিজে যায়, হায়’।  ‘আমার আকাশ’ শিরোনামের গানটির কথাগুলো লিখেছেন গীতিকার আসিফ ইকবাল। গানটির সুর ও সংগীতায়োজনে ছিলেন অটামনাল মুন। ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন রাজ চিন্ময়ী। 

 

 

চার শিল্পীর কণ্ঠে ‘শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ’

দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশকে নিয়ে সুর ছড়ালেন দুই প্রজন্মের চার জনপ্রিয় শিল্পী। স্বাধীনতা সাংস্কৃতিক পরিষদের উদ্যোগে ‘শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ’ শিরোনামের গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন কুমার বিশ্বজিৎ, ফাহমিদা নবী, পুলক অধিকারী ও সোমনুর মনির কোনাল।

কবি আসলাম সানির কথায় এই গানটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন সুমন কল্যাণ। শুধু তাই নয় এ গানটি নিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেছেন নির্মাতা ও অভিনেতা শহীদুল আলম সাচ্চু।

এমন গানের আয়োজন এবারই প্রথম করলেন সুমন কল্যাণ। তাই গান নিয়ে উচ্ছ্বসিত সুমন কল্যাণ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে সম্মান ও ভালোবাসা জানাতেই এ গানটি তৈরি করা হয়েছে। স্বাধীনতা সাংস্কৃতিক পরিষদের উদ্যোগে এই গানটি তৈরি করা হয়েছে। আশা করি গানটি সবার ভালো লাগবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি ভারতের আসানসোলের কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট অব লিটারেচার (ডি-লিট) পেয়েছেন। এছাড়া সম্প্রতি তিনি ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ উপাধি অর্জন করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর সাফল্য ও প্রাপ্তিকে উদযাপন করতে শনিবার(২১ জুলাই) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সংবর্ধনার আয়োজন করেছিল আওয়ামীলীগ।


চার বছর পর অভিনয়ে ফিরলেন  ঈশিতা

চার বছর পর অভিনয়ে ফিরলেন ঈশিতা

http://greatnewschannel.website/wp-content/uploads/2018/04/Rumana-Rashid-Ishita-11-646x445.jpg 

এক সময়ের টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঈশিতা। নিজের ব্যবসা ও পরিবারকে সময় দিতে দীর্ঘ চার বছর ছোট পর্দা থেকে দূরে ছিলেন তিনি। টিভি নাটকে সর্বশেষ এই অভিনেত্রীকে দেখা গেছে চার বছর আগে নির্মাতা-অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিমের একটি ঈদের নাটকে। চার বছর পর আবারো আসছে ঈদের নাটকে দেখা যাবে তাকে। আগামীকাল ‘পাতা ঝরার দিন’ শিরোনামের একটি নাটকের জন্য ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন বলে জানান তিনি। এটি নির্মাণ করবেন রেদওয়ান রনি। 

 

ঈশিতা বলেন, একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে একজন বাবা ও একজন মেয়ের গল্পের নাটক হবে এটি। স্ক্রিপ্ট পড়ে আমার চরিত্রটি অনেক চ্যালেঞ্জিং মনে হয়েছে। বাবার চরিত্রে থাকছেন হাসান ইমাম। আমিও আশা করছি ভালো কিছু হবে। তবে এটি নিয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না। দর্শকের জন্য চমক থাকুক। চার বছর বিরতির পর এপ্রিলে অভিনয়ে ফেরেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। গেল ২৩শে এপ্রিল তিনি কলকাতায় সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘কাঠপেন্সিল’ নামের একটি টেলিছবির জন্য ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। সেখানে চার দিন শুটিং করে দেশে ফেরেন। 

 

তবে এখনো টেলিছবিটির শুটিং শেষ হয়নি বলে জানান। এটির কিছু অংশ দৃশ্যায়ন হবে বাংলাদেশে। টেলিছবিটি নির্মাণ করছেন রাফায়েল আহসান। চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন জ্যোতি হাজরা। খুব শিগগির টেলিছবির বাকি শুটিং আবার শুরু হবে। সৌমিত্রের সঙ্গে অভিনয় করে দারুণ উচ্ছ্বসিত এই অভিনেত্রী। তার ভাষ্য, ভীষণ একটি ঘোরের মধ্যে ছিলাম। এমন একজন মানুষের সঙ্গে অভিনয় করতে পারা আমার জন্য বড় পাওয়া বলেই মনে করি। খুব সহজে তিনি আমাকে আপন করে নিয়েছেন। এদিকে নতুনভাবে অভিনয়ে ফিরলেও এই অভিনেত্রীকে নিয়মিত দেখা যাবে না বলে জানান তিনি। মাঝে মধ্যে ভালো গল্প পেলে দু-একটি নাটক-টেলিছবিতে কাজ করবেন। তবে ঈশিতা তার ভক্তদের নতুন একটি সংবাদ দিলেন। এই বছরে গানেও পাওয়া যাবে তাকে। তিনি বলেন, একটা সময় গান করেছি। অনেক দিন গানেও নেই আমি। চলতি বছরে আমার গানের শ্রোতাদের একটি গান উপহার দিতে চাই। গানের কাজও করছি। তবে প্রকাশের আগ মুহূর্তে এ সম্পর্কে কথা বলবো। 

১১৮ হলে মুক্তি পাচ্ছে জিৎ-মিমের সিনেমা

https://i.ytimg.com/vi/Ikw5b4XtMgM/maxresdefault.jpg 

অবশেষে বাংলাদেশের সিনেমা হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে জিৎ-মিম জুটির কলকাতার সিনেমা ‘সুলতান : দ্য সেভিয়র’। গত ৬ জুলাই ছবিটি মুক্তির কথা থাকলেও বিশেষ কারণে পিছায় মুক্তির তারিখ। সম্প্রতি বাংলাদেশের সেন্সর বোর্ড ছবিটিকে আনকাট ছাড়পত্রও দিয়েছে। ছবিটির পরিবেশক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ নিশ্চিত করেন শুক্রবার (২০ জুলাই) সারা দেশে ১১৮টি সিনেমা হলে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

ঢাকার ব্লকবাস্টার সিনেমাস,মধুমিতা, বলাকা সিনেওয়ার্ল্ড, অভিসার, রাজমনি, চিত্রামহল সিনেমা, বিজিবি, মুক্তি, এশিয়া, আনন্দ, সেনা, গীত সিনেমাহলসহ সারা দেশে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

তথ্য মন্ত্রণালয় লিখিত অনুমতির পর সাফটা চুক্তির আওতায় বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। ‘সুলতান’র কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন কলকাতার জিৎ, প্রিয়াঙ্কা সরকার ও বাংলাদেশের বিদ্যা সিনহা মিম। প্রথমে যৌথ প্রযোজনার কথা থাকলেও এটি এককভাবে নির্মিত হয়।

‘সুলতান: দ্য সেভিয়র’ পরিচালনা করেছেন কলকাতার রাজা চন্দ। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের নায়ক আমান রেজা, তাসকিন রহমান প্রমুখ। এর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জিতস ফিল্মস ওয়ার্কস ও সুরিন্দরস ফিল্মস! তাদের সঙ্গে রয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

 আজ  ঢাকায় ‘দ্য রক’

আজ ঢাকায় ‘দ্য রক’

https://cdn.jagonews24.com/media/imgAll/2018June/rock-1-20180719165830.jpg 

সিনেমাতে এসেই জনপ্রিয়তার আকাশ ছুঁয়েছেন ‘দ্য রক’ খ্যাত অভিনেতা ডুয়াইন জনসন। সর্বশেষ ‘জুমানজি ২’র সাফল্যের রেশ কাটেনি এখনো। এরইমধ্যে মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার নতুন ছবি।

এবারের ছবির নাম ‘স্কাইস্ক্র্যাপার’। আজ শুক্রবার, ২০ জুলাই থেকে ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে চলবে ছবিটি।

‘দ্য রক’ মানেই দুঃসাহসিক আর দুধর্ষ অ্যাকশন। এ ছবিতেও তার ব্যতিক্রম নয়। আর দর্শকরা যে তার কাছ থেকে এমন কিছু দেখার প্রত্যাশায় থাকেন তার প্রমাণ মিলেছে ছবিটির ট্রেইলার প্রকাশের পর। রক ভক্তদের মধ্যে রীতিমত হৈ চৈ পড়ে যায়। এতে রককে পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু ভবন ২৪০ তলার উপর থেকে লাফিয়ে পড়তে দেখা যায়। এছাড়া সমূহ বিপদ থেকে নিজেকে এবং পরিবারকে বাঁচাতে ভয়ংকর কিছু জায়গা থেকে লাফিয়ে পড়তে দেখা যায় তাকে।

ছবিতে রক সাবেক এফবিআই এজেন্ট উইল ফোর্ডের চরিত্রে অভিনয় করেন। যিনি চীনের বহুতল ভবনের নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে নিযুক্ত থাকেন। সমালোচকদের দাবি, ছবিটি কিছুটা ডাই হার্ড এবং মিশন ইম্পসিবল এর মতো করে নির্মিত হয়েছে।

 

ছবিটি পরিচালনা করেছেন রওসন মার্শাল থারবার। ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ডোয়াইন জনসন। এ ছাড়াও অভিনয় করেছেন নেভ ক্যাম্পবেল, চিন হান, রোল্যান্ড মেরার, পাবলো শেরিবের, বায়রন মান, হান্না কুইলভান এবং নোয়া টেলর।

ছবিটি নিয়ে খুব আশাবাদী রক ইতোমধ্যে হলিউডের বিভিন্ন পত্রিকায় সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘দর্শকদের জন্য দারুণ কিছু অপেক্ষা করছে। অবিশ্বাস্য কিছু কাজ হয়েছে ‘স্কাইস্ক্র্যাপার’-এ। প্রত্যাশার চেয়ে বেশি পাবেন দর্শকরা।’

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলেন শাফিন আহমেদ

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের বারিধারার বাসায় তার হাতে ফুল দিয়ে তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। শাফিন আহমেদ নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে  ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিনি ববি হাজ্জাজের জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) যোগ দিয়েছিলেন জনপ্রিয় এই ব্যান্ড তারকা। শাফিন আহমেদ এনডিএমের উচ্চ পরিষদের সদস্য ছিলেন। তবে পার্টিতে কোনও পদ পেয়েছেন কি না তা জানাননি শাফিন আহমেদ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে বারিধারার বাসভবনে চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের হাতে ফুল দিয়ে আনুষ্ঠাকিভাবে লঙ্গল প্রতীকে কাজ করার ঘোষণা দেন তিনি। এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য চিত্রনায়ক সোহেল রানা উপস্থিত ছিলেন।

শাফিন  বলেন, দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে হলে রাজনৈতিক একটা প্ল্যাটফর্ম দরকার। সেকারণেই আমি রাজনীতিতে এসেছি। তার বাস্তবায়ন হতে চলেছে। জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছি এবং আমি এই দলের হয়ে কাজ করতে চাই।

শাফিন আহমেদের যোগ দেওয়ার পর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেন, খুব শিগগিরই আরো অনেকে জাতীয় পার্টির পতাকাতলে আসবেন। বিএনপি অংশ না নিলে আগামী জাতীয় নির্বাচনে ৩০০ আসনেই প্রার্থী দেবে জাতীয় পার্টি। আর বিএনপি ভোটে অংশ নিলে জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করবে।

সুস্থ হয়ে উঠছেন ইরফান খান

সুস্থ হয়ে উঠছেন ইরফান খান

https://resize.indiatvnews.com/en/resize/newbucket/715_-/2018/07/pjimage-1531650849.jpg 

ইরফান খান ভক্তদের জন্য সুখবর। ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন বলিউডের জনপ্রিয় এই অভিনেতা। এ দাবি করেছেন তার প্রিয় বন্ধু ও পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ। বিশাল জানিয়েছেন, ইরফান যে সুস্থ হচ্ছেন, তা স্পষ্ট।

 টুইটারের প্রোফাইল পিকচারও পরিবর্তন করেছেন ইরফান খান। নতুন প্রোফাইল পিকচারে তাঁকে দুর্বল দেখালেও মুখে রয়েছে প্রাণবন্ত হাসি। পরনে হলদে টি-শার্ট। আর কানে হেডফোন।

 সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেয়া সাক্ষাত্কারে বিশাল বলেন, ‘ওর সঙ্গে আমার প্রায়ই কথা হচ্ছে। সুস্থ হচ্ছেন ইরফান। আমাদের প্রার্থনা সবসময়ই রয়েছে ওর সঙ্গে। আশা করছি, দ্রুত সুস্থ হয়ে আবার কাজে হাত দেবেন।’

 তাঁর অসুস্থতার খবর নিয়ে মার্চের মাঝামাঝি সময়টায় অজস্র গুজব রটে। আর তার পর আচমকাই একটা টুইট। সেই টুইটেই নিজের অসুস্থতার খবর জনসমক্ষে এনেছিলেন অভিনেতা ইরফান খান। আর লুকোছাপা না রেখে সে দিনই জানিয়ে দিয়েছিলেন যে তিনি নিউরোএন্ডোক্রিন টিউমারে আক্রান্ত। চিকিত্সার জন্য তড়িঘড়ি লন্ডনেও পাড়ি দিতে হয়েছিল অভিনেতাকে।

এফডিসিতে শুটিং চলাকালে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, একজন আহত

এফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎপাদন ব্যবস্থাপক সমিতি ও চলচ্চিত্র সহকারী পরিচালক সমিতির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জিয়াউল হক মুনির নামের একজন আহত হয়েছেন। তাকে প্রথমে ইনসাফ মেডিক্যালে নেওয়া হয় পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার সময় এফডিসির কড়ইতলায় শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘বয়ফ্রেন্ড’ সিনেমার শুটিং স্পটে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জিয়াউল হক মুনির ছবির প্রধান সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছিলেন। এসময় সহকারী পরিচালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সর্দার মামুন ও এ সংগঠনের সহ-সভাপতি কাজী মুনির দলবল নিয়ে তার ওপর হামলা চালালে জিয়াউল হক মুনির আহত হন।

পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন। এছাড়াও বিষয়টির সুরাহার জন্য বুধবার দুই সংগঠনকে পরিচালক সমিতির কার্যালয়ে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানান।

জানা গেছে, সহকারী পরিচালক সমিতির সদস্য না হয়েও সিনেমায় সহকারী পরিচালকের কাজ করার কারণে তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় সিনেমাটির দুই পরিচালক উত্তম আকাশ ও নেহাল দত্ত ও কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন। ছবির পরিচালক উত্তম আকশ ও নেহাল দত্তও ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন বলে জানা যায়। আহত জিয়াউল হক মুনির বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।


বেবী নাজনীন অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন অসুস্থ। তাকে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার ছোট ভাই এনাম সরকার জানান, গত দুইদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন বেবী নাজনিন। 

অবস্থা আরো অবনতির দিকে যাওয়ায় আজ মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ইউনাইটেড হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি এখন কেবিনে আছেন। তার সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা আছেন। তার ভাই জানান, সুস্থতার জন্য বেবী নাজনিন দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

তিশার-ফারুকীর ‘আয়েশা’

তিশার-ফারুকীর ‘আয়েশা’

https://assetsds.cdnedge.bluemix.net/sites/default/files/customphp/photo/2011/09/07/2011-09-07__cul01.jpg 

কাল ছিল নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশার অষ্টম বিবাহবার্ষিকী। এই দিনেই আট বছর পর ছোট পর্দার জন্য নাটক নির্মাণে ফিরলেন ফারুকী। সঙ্গী হিসেবে নিলেন স্ত্রী তিশা ও চঞ্চল চৌধুরীকে, প্রধান পাত্র-পাত্রী হিসেবে নাটকে অভিনয় করছেন তাঁরা। আনিসুল হকের ‘আয়েশামঙ্গল’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে নাটকটি।

ফারুকী বলেন, ‘শুরুতে মনে হয়েছিল ১১ বছর পর নাটকে ফিরছি। কিন্তু না। নতুন করে হিসাব করে দেখলাম, আট বছর হবে। নাটকটি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব ১৮ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনে।’

চঞ্চল বলেন, “ফারকীর সঙ্গে কাজ করেছিলাম ২০০৫ সালের দিকে। ‘নিখোঁজ সংবাদ’ আর ‘তালপাতার সেপাই’ নাটকে। তারপর তো তিনি আর নাটক বানাননি। পরে তাঁর গ্রামীণফোনের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছিলাম। আরো পরে তাঁর পরিচালনায় ‘টেলিভিশন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলাম। মাঝখানে তাঁর ক্যামেরার সামনে না দাঁড়ালেও বিজ্ঞাপনচিত্রে ভয়েস দিয়েছি। দীর্ঘদিন পর আবার একসঙ্গে নাটক করছি। এটা অনেক ভালো লাগার।

কনার নতুন মিউজিক ভিডিও ‘স্বপ্ন’

https://i.ytimg.com/vi/W8gxD6rq1Ks/hqdefault.jpg

শিগগিরই আরটিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার হবে কনার নতুন মিউজিক ভিডিও ‘স্বপ্ন’। বিশ্বকাপ ফুটবলের আগেই গানটির সব কাজ শেষ হয়ে যায়। কিন্তু বিশ্বকাপের কারণে তা ইউটিউবে প্রকাশ থেকে বিরত থাকে। এখন খেলা শেষ। তাই শিগগিরই এটি ইউটিউবে প্রকাশ পাবে। কনার গাওয়া নতুন গান ‘স্বপ্ন’র কথা লিখেছেন সুদীপ কুমার দীপ এবং সুর সংগীত করেছেন শওকত আলী ইমন।

মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন শাহ আমির খসরু। এছাড়া প্রিন্স মাহমুদের লেখা এবং সুর সংগীতে ‘ঘোর’ গানের মিউজিক ভিডিওর কাজ শিগগিরই শুরু হবে। এতে কনার সহশিল্পী তপু।

 উল্লেখ্যঃ  সাম্প্রতিক সময়ে কনা ও ইমরানের গাওয়া ‘পোড়ামন টু’ সিনেমার ‘ওহে শ্যাম তোমারে আমি নয়নে নয়নে রাখিবো’ গানটি শ্রোতা-দর্শকের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলেছে। গানটি এখন দেশব্যাপী শ্রোতা-দর্শকের মুখে মুখে। কেবল তাই নয়, শুধুমাত্র এই গানটি শোনার জন্য এবং এর দৃশ্যায়ন দেখার জন্যও অনেক দর্শক এখনো সিনেমা হলে রায়হান রাফি পরিচালিত ‘পোড়ামন টু’ চলচ্চিত্র দেখতে যাচ্ছেন। আবারো নিজের গানের এমন জনপ্রিয়তায় মুগ্ধ কনা।

দক্ষিণ কোরিয়ার উৎসবে বাংলাদেশের চার ছবি

 
তৃতীয়বারের মতো ‘সিউল-বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব’ আয়োজন করা হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানীতে। ২০ জুলাই শুরু হতে যাওয়া তিনদিনের এ আয়োজনে দেখানো হবে বাংলাদেশের চারটি ছবি।

উৎসবে অংশ নিচ্ছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ও ইরফান খান-তিশা অভিনীত ‘ডুব’ আকরাম খান পরিচালিত, জয়া আহসান-আজাদ আবুল কালাম অভিনীত ‘খাঁচা’, তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ও জাহিদ হাসান, মোশাররফ করিম, তিশা অভিনীত ‘হালদা’ এবং গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ও পরী মনি-ইয়াশ রোহান অভিনীত ‘স্বপ্নজাল’।

এর মধ্যে অন্য সিনেমাগুলো একাধিক উৎসবে অংশগ্রহণ করলেও ‘স্বপ্নজাল’ প্রথমবারের মতো এ ধরনের কোনো আয়োজনে যাচ্ছে।

পরিবর্তনে ১০ শিল্পীর কণ্ঠে রেঁনেসার সেই গান

পরিবর্তনে ১০ শিল্পীর কণ্ঠে রেঁনেসার সেই গান

https://cdn.jagonews24.com/media/imgAll/2018June/renesa-20180716185412.jpg 

বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘পরিবর্তন’র ২৫ পর্ব প্রচার হতে যাচ্ছে। বিশেষ এই পর্বের জন্য ২৫ বছর পর জনপ্রিয় ব্যান্ডদল রেনেসাঁর ‘হৃদয় কাদা মাটি’র কোন মূর্তি নয়’ গানটি রিমেক করা হয়েছে। গানটি গেয়েছেন এ প্রজন্মের ১০জন কণ্ঠশিল্পী সাব্বির, পারভেজ সাজ্জাদ, অপু আমান, খায়রুল ওয়াসি, মেহরাব, ইউসুফ আহমেদ খান, শামীম, পুলক অধকিারী, সানবীম ও সম্রাট।

গানটতিে নতুনভাবে সংগীতায়োজন করেছেন গায়ক ও সংগীত পরিচালক সুজন আরিফ।অডিও ধারণের পর গত ১৩ জুলাই বিটিভির অডিটরিয়ামে গানটির চিত্রায়ন সম্পন্ন হয়েছে। গানটির রিমেক প্রসঙ্গে অনুষ্ঠানটির উপস্থাপক ও নির্দেশক আনজাম মাসুদ বলেন, ‘রেনেসাঁর এই গানটি শুধু আমার নয়, কোটি শ্রোতাদের পছন্দের গান। অনেকটা ভালোলাগা থেকে গানটি রিমেক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ প্রজন্মের তরুণ শিল্পীরা গানটি গেয়েছে। আশা করছি, দর্শকরা গানটি দারুণ উপভোগ করবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘গানটি রিমেকের জন্য রেনেসাঁ ব্যান্ডের প্রধান, গানটির সুরকার ও গায়ক নকীব খানের কাছ থেকে অনুমতি নিয়েছি।’

১৯৯৩ সালে রেনেসাঁর ‘তৃতীয় বিশ্ব’ অ্যালবামে ‘হৃদয় কাদা মাটি’ গানটি ঠাঁই পায়। গানটির কথা লিখেছেন শহীদ মাহমুদ জঙ্গী। সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন নকীব খান।

সাহরিয়ার মোহাম্মদ হাসানের প্রযোজনায় পরিবর্তনের পরিকল্পনা, গ্রন্থনা, উপস্থাপনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন আনজাম মাসুদ। খুব শিগগিরই পরিবর্তন প্রচার হবে বাংলাদেশ টেলিভিশনে।

প্রিয়াঙ্কার শর্ত মেনেই কলকাতায় হচ্ছে 'হৃদয় জুড়ে'র শ্যুটিং

https://2.bp.blogspot.com/-LoOep5ylKuw/W0wrW8kCgUI/AAAAAAAACvY/ie-LMwoxIMMXWa4fyNdAYA-VP3cCtpK5gCLcBGAs/s640/223524128106-priyanka-shoot.jpg 

 বাংলাদেশি নির্মাতা রফিক সিকদারের সঙ্গে ঝামেলার জের ধরে এতোদিন পর্যন্ত ঝুলে ছিল 'হৃদয়জুড়ে'র ভাগ্য। আদৌ কি ছবির শ্যুটিং শেষ হবে? তা নিয়ে অনিশ্চয়তা ছিলই। অবশেষে সিনেমার স্বার্থে ছবিটির কাজ শেষ করার কাজে এগিয়ে এসেছেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার। বিশেষ কিছু শর্তে ছবির শ্যুটিং শেষ করতে রাজি হয়েছেন তিনি।

পরিচালক রফিক সিকদার ভারতের গণমাধ্যম জিনিউজকে জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন ধরে কলকাতাতে চলছে তাঁর ছবি 'হৃদয়জুড়ে'র শেষকিছু অংশ ও একটি গানের শ্যুটিং। তবে এক্ষেত্রে প্রিয়াঙ্কার শর্ত মেনে নিয়েই শ্যুটিং স্পটে হাজির হননি পরিচালক রফিক সিকদার। তিনি রয়েছেন কলকাতার এক হোটেলে। পরিচালককে ছাড়াই সহযোগী পরিচালকের উপস্থিতিতেই ছবির কাজ শেষ করছেন প্রিয়াঙ্কা।

প্রসঙ্গত গত মার্চ মাসে বাংলাদেশের প্রথম ছবি হৃদয়জুড়ের শ্যুটিং করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার। পরিচালক তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দেন বলেও অভিযোগ আনেন তিনি। পাশাপাশি সময়ে অসময়ে পরিচালক তাঁকে মেসেজের মাধ্যমে উত্যক্ত করতেন বলেও দাবি করেন প্রিয়াঙ্কা। পুরো বিষয়টি তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রতিবাদ জানান।

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে যেটা ঘটেছিল সেটা কি নেহাতই ভুল বোঝাবুঝি, নাকি সত্যি? এই প্রশ্নের উত্তরে রফিক বলেন,  দেখুন আমি সরলভাবেই বলেছিলাম কথাটা। বিয়ে সংক্রান্ত বিষয়েই একটা কথা বলেছিলাম ওকে। পুরোটাই আবেগের বহিঃপ্রকাশ। এটা নিয়ে আর বেশি কথা বলতে চাই না। আমার যেটা মনে হয়েছিল সেসময় আমি বলেছিলাম। আবার প্রিয়াঙ্কার যেটা মনে হয়েছিল সেটা ও করেছে। তবে ওর প্রতি আমার আর কোনও ক্ষোভ নেই। তবে যেটা ঘটেছিল, সেটা যে এতো বড় হয়ে দাঁড়াবে আমি বুঝি নি।

পাশাপাশি রফিক বলেন, বাংলাদেশ ও কলকাতা আমি দুটোকেই এক চোখে দেখি। আমি সংস্কৃতির বন্ধন দিয়ে দুই বাংলাকে এক হতে দেখতে চাই। আমি অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল চেতনার মানুষ। আমরা দুই বাংলার মানুষ এক ভাষায় কথা বলি, আমাদের সংস্কৃতিও এক। তাই আমাদের মধ্যে বিভেদ না থাকাটাই ভালো। বাংলাদেশেও  কলকাতার ছবি প্রদর্শন নিয়ে কেউ বিরোধীতা করলে আমি তার প্রতিবাদ জানাই।

প্রসঙ্গত, প্রিয়াঙ্কার বিপরীতে হৃদয়জুড়ে ছবিটিতে দেখা যাবে বাংলাদেশের অভিনেতা নিরব-কে। রফিক সিকদারের প্রথম ছবি 'ভোলা যায় না তারে' ছবিতেও নায়ক ছিলেন নিরব। ওই ছবিতে নায়িকা হিসাবে দেখা যায় তানহা তাসনিয়া। 

জিনিউজ

এবার সিনেমায় আসিফ আকবর


বাংলা সংগীতের যুবরাজ আসিফ আকবর তার কণ্ঠের জন্য যেমন প্রশংসা পেয়ে আসছেন, তেমনি প্রশংসা পেয়ে আসছেন তার রূপের। অতিথি শিল্পী হিসেবে নাটকে অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। মিউজিক ভিডিওতেও অভিনয় করে আসছেন তিনি।  

 সবই তো হলো, ছবিতে আসিফ আকবরের বিপরীতে নায়িকা হবেন কে? প্রশ্নের উত্তরে নির্মাতা সৈকত নাসির বললেন, ‘আমাদের পছন্দের তালিকায় আছেন বেশ ক’জন। বিষয়টি চুড়ান্ত হলে জানাতে চাই।’

তবে জানা গেছে, জয়া আহসান ও মাহিয়া মাহি- এই দুজনই রয়েছেন পছন্দের শীর্ষে। তাদের সঙ্গে কথাও চলছে। শিডিউল ও সবকিছু ব্যাটে বলে মিলে গেলে দেখা যেতে পারে জয়া-মাহির যে কোনো একজনকে।

অ্যাকশন থ্রিলারভিত্তিক এ ওয়েব ফিল্মের নাম 'ভি আই পি'। আসাদ জামান এবং সৈকত নাসিরের গল্প ও চিত্রনাট্যে এ ছবিটি পরিচালনা করবেন সৈকত নাসির। বিগ বাজেটের এ ওয়েব ফিল্মটির ব্যাপ্তি হবে ১৪০ মিনিট অর্থাৎ ২ ঘণ্টা ১০ মিনিট।

 

 আসিফ আকবর  বলেন, ‘আসলে সিনেমাতে তো আগে কখনো অভিনয় করিনি। আমাকে কীভাবে উপস্থাপন করা হবে এটা নির্মাতা সৈকত নাসিরই ভালো বলতে পারবে। এবার একটি ওয়েব সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছি। দেখা যাক কি হয়। নিজেকে প্রস্তুত করছি অভিনয়ের জন্য।’

এ বিষয়ে নির্মাতা সৈকত নাসির বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই পরিকল্পনাটা চলছিল। এখন সিদ্ধান্তে উপনীত হলাম। এটাকে আসলে ফিল্মই বলা যায়। ৪ কোটি টাকা বাজেটে নির্মিত হবে এ ছবিটি। অ্যাকশন ও থ্রীলারধর্মী একটি ছবি। গল্পের মোড়ে মোড়ে অনেকগুলো টুইস্ট থাকবে। আসিফ ভাই এই ছবির নায়ক, এটা কনফার্ম। আর নায়িকার বিষয়টি এখনই বলতে চাচ্ছি না। শিগগিরই এ নিয়ে ঘোষণা দিবো। তবে বাংলাদেশ কিংবা কলকাতার প্রথম সারির কোনো নায়িকা থাকবে এটা নিশ্চিত। কথাবার্তা চলছে,ফাইনাল হলেই জানানো হবে।’

 

সৈকত নাসির জানান, এরই মধ্যে সবকিছু গুছিয়ে নিয়েছেন তিনি। নায়িকা কনফার্ম হলে আগামী ঈদের পরপরই ছবির শুটিং শুরু হবে। আর মুক্তির বিষয়টা ছবির কাজ শেষ হলে বলা যাবে, বড় পর্দায় ও রিলিজ হতে পারে ছবিটি।

 

 উল্লেখ্যঃ  এর আগেও গায়ক এস.ডি রুবেল চিত্রনায়িকা শাবনূরের  সাথে "এভাবেই  বুঝি ভালোবাসা হয়ে যায়"  ছবির মাধ্যমে সিনেমা জগতে  পা রাখে ।  

ইমনের বিপরীতে কলকাতার সায়নী


গেলো কিছুদিন আগে কলকাতায় পাড়ি জমান ইমন। সেখানে এই চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নেন। কলকাতার মনোরম লোকেশনে ছবিটির চিত্রায়নে গত ১০ জুলাই ছবিটির শুটিং শেষ হয়। ৬০ মিনিট ব্যাপ্তি এই ফিচার ছবিটির শিরোনাম ‘সিনেমার পর্দার সব চরিত্র কাল্পনিক’। এটি নির্মাণ করেন কলকাতার নির্মাতা কৃষ। এই ফিচারধর্মী চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথমবারের মত জুটি বেঁধেছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় দুই তারকা। এর আগে শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার জন্য কলকাতায় গিয়ে গ্রুমিং করে আসেন ইমন।

চিত্রনায়ক ইমন বলেন, ‘আমার অভিনীত লালটিপ ও গহীন অরণ্যে এই ছবি দুটি দেখে আমাকে পছন্দ করেন ছবিটির নির্মাতা। কলকাতার প্রযোজক তপন দাদার সাথে পরিচয়ের সুবাদে উনার মাধ্যমে কৃষ আমার সাথে যোগাযোগ করে। তারপর সবকিছু জেনে কাজটি করতে রাজি হই। বেশ গোছানো একটি কাজ। গত পরশুদিন ছবিটির শুটিং শেষ করলাম। শিগগিরই দেশে ফিরবো।

ইমন-সায়নী ঘোষ ছাড়াও এতে অভিনয় করেন কলকাতার অভিনেতা বিশ্বজিৎ।

এদিকে, ইমন বর্তমানে ‘সাহসী যোদ্ধা’ ছবির শুটিং করছেন। এছাড়াও নির্মাণাধীন রয়েছে বেশ কয়েকটি ছবি। অপরদিকে সায়নী ঘোষ কলকাতার সিনেমায় বেশ পরিচিত মুখ। শত্রু, কানামাছি, মায়ের বিয়ে ইত্যাদি ছাড়াও বেশকিছু সিনেমার অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি।

পর্দায় ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয়ে আপত্তি নেই মাহির!

পারিবারিক ব্যস্ততা এবং স্বামীকে নিয়ে আলাদা ফ্ল্যাটে সংসার শুরু করার পর নায়িকা মাহিয়া মাহি আবার চলচ্চিত্রে ব্যস্ত হয়ে উঠতে চাচ্ছেন। এ নিয়ে সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যমে কিছু সহাসী কথাও বলেছেন। তিনি বলেছেন, চরিত্রের সঙ্গে যায় এমন স্বল্প পোশাক পরতে তার কোন আপত্তি নেই। এমনকি ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয়েও আপত্তি নেই। তার মতে, আমি বাসায় যে ধরণের পোশাক পরি, পর্দায়ও তেমন পোষাকই পরি। তাই খুব একটা পার্থক্য দেখি না। আর ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে লজ্জাবোধ করার তেমন কারণও নেই। অভিনয়ে লজ্জার কিছু নেই। তিনি বলেন, আমার সঙ্গে যেসব হিরো কাজ করেছেন তারা প্রত্যেকেই বেশ প্রফেশনাল। অভিনয়ের সময় আমি চরিত্রেই ডুবে থাকি। চরিত্রের প্রয়োজনে সব করতে পারি আমি। তাই বলে ডিরেক্টরের এমন কোনো অনুরোধ রাখতে পারবো না, যা আমার সঙ্গে বেমানান। উল্লেখ্য, চলচ্চিত্রে আসার আগে মাহি একসময় বিয়ের মঞ্চে নাচতেন। ফলে সিনেমায় তিনি যে কোন পরিস্থিতিতে তিনি স্বাবলীল থাকতে পারবেন, এমনটাই স্বাভাবিক। মাহি মনে করেন, অভিনয় তার পেশা। পেশাগত জায়গা থেকে তিনি অভিনয়ের জন্য সব করতে পারেন। তবে নিজের সঙ্গে বেমানান এমন কিছু নয়।

হাসির মানুষ দিলদারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

 
আজ ১৩ জুলাই দিলদারের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী।  ২০০৩ সালের এই দিনে ৫৮ বছর বয়সে তিনি জীবনের মায়া কাটিয়ে চিরদিনের মতো পৃথিবী ত্যাগ করেন। দেখতে দেখতে কেটে গেল ১৫টি বছর। মুছে গেছেন তিনি সবখান থেকে। নতুন প্রজন্মের দর্শকও তাকে চেনেন না খুব একটা। তবে দিলদার থেকে গেছেন অসংখ চলচ্চিত্রে তার দুর্দান্ত অভিনয়ে; কৌতুক অভিনেতার কিংবিদন্তি হয়ে। মৃত্যুর একই বছরে অভিনয় জীবনে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

 

১৯৪৫ সালের ১৩ জানুয়ারি চাঁদপুরে জন্মগ্রহণ করেন দিলদার। তিনি এসএসসি পাশ করার পর পড়াশোনার ইতি টানেন। ২০০৩ সালের ১৩ জুলাই যদি ৫৮ বছর বয়সে এ পৃথিবী ছেড়ে তিনি চলে না যেতেন, তাহলে হয়তো আজও উপহার দিতেন নতুন কোনো হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র।

 

১৯৭২ সালে ‘কেন এমন হয়’ নামের চলচ্চিত্র দিয়ে অভিনয় জীবন শুরু করেন দিলদার। আর পেছনে ফিরে তাকাননি তিনি। অভিনয় করেছেন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ‘বিক্ষোভ’, ‘অন্তরে অন্তরে’, ‘কন্যাদান’, ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’, ‘সুন্দর আলীর জীবন সংসার’, ‘স্বপ্নের নায়ক’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘শান্ত কেন মাস্তান’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্রে। দিলদারের জনপ্রিয়তা এতটাই তুঙ্গে ছিল যে, তাকে নায়ক করে নির্মাণ করা হয়েছিল ‘আব্দুল্লাহ’ নামে একটি চলচ্চিত্র। নূতনের বিপরীতে এই ছবিতে বাজিমাত করেছিলেন তিনি। দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো ছবিতে ঠাঁই পাওয়া গানগুলো।


বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘ভাইজান এলো রে’

শাকিব খানের ভারতীয় সিনেমা ‘ভাইজান এলো রে’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশে।  তার আগে প্রয়োজন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের অনুমতির। আর সে লক্ষ্যেই গতকাল (বুধবার) ছবিটি সেন্সরে জমা দেয়া হয়েছে।

আমদানি করে বাংলাদেশে ‘ভাইজান এলো রে’ মুক্তি দিচ্ছে এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স। প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে চ্যানেল আই অনলাইনকে ‘ভাইজান’ সেন্সরে জমা পড়ার খবর নিশ্চিত করেছেন।

অন্যদিকে সেন্সর বোর্ডের সদস্য সচিব আলী সরকারও ছবিটি সেন্সরে জমা পড়ার খবর নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল ‘ভাইজান এলো রে’ সেন্সরে জমা দিয়েছে। আজ কাগজপত্র চেক করে দেখেছি সবকিছু ঠিক আছে। আগামী সপ্তাহের যেকোনো ছবিটি সেন্সরে প্রদর্শিত হবে।

‘ভাইজান এলো রে’ কলকাতার ছবি হলেও এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। যেখানে তিনি দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন। গেল ঈদে পশ্চিমবঙ্গে ছবিটি মুক্তি পায়। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গ থেকে ভাইজান এলো রে ছবিটি ভালো ব্যবসা করেছে।

শুধু তাই নয়, ছবিটি মুক্তির পর ওপার বাংলার কিংবদন্তি অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে নিজেই টুইট করেছিলেন। সেখানে কলকাতার শক্তিমান এই অভিনেতা শাকিব খানকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশের নায়ক শাকিব খানের অভিনয় দেখে আমি মুগ্ধ। শুধু অভিনয় নয়, নাচ এবং ফাইটিং এও তার জুড়ি নেই। আমি তার ভাইজান এলো রে ছবি এবং আগামীর জন্য সফলতা কামনা করছি।’

শাকিব খান ছাড়াও বাংলাদেশ থেকে ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিতে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের দীপা খন্দকার, মনিরা মিঠু, শাহেদ আলী। এছাড়াও কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী, পায়েল, শান্তিলাল, রজতাভ দত্ত প্রমুখ অভিনয় করেছেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে মুক্তির অনুমতি পেলে আগামী ২০ জুলাই ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি দেশব্যাপী মুক্তি চায় এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স।