সমাজসেবা আর সাফল্যের পুরস্কার পেলেন সালমান

সমাজসেবা আর সাফল্যের পুরস্কার পেলেন সালমান

ব্রিটেনে সম্মানিত সালমান খান, কি জন্য জানেন?

এবার বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের হাতে গ্লোবাল ডাইভারসিটি অ্যাওয়ার্ড তুলে দিল ব্রিটেন। গতকাল শুক্রবার ব্রিটেনের হাউস অফ কমনসে এমনই সম্মানে ভূষিত করা হয়েছে তাঁকে। সমাজসেবামূলক কাজের জন্যই এই স্বীকৃতি পেয়েছেন তিনি।  
ব্রিটিশ সংসদের এশিয়ান সাংসদ কেথ ভ্যাজের হাত থেকে শুক্রবার পুরস্কার নেন সালমান। তাঁর প্রশংসা করে ভ্যাজ জানান, গোটা বিশ্বে বৈচিত্র্য আনতে যাদের বড় ভূমিকা থাকে, তাদেরকেই গ্লোবাল ডাইভারসিটি পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়। যে তালিকায় রয়েছেন বলিউড অভিনেতাও।  
ভারতীয় এবং বিশ্ব চলচ্চিত্র জগতের কাছে শুধুমাত্র একজন বড়মাপের তারকা হিসেবেই তাঁর পরিচিতি আছে, এমনটা নয়। সাধারণ মানুষের জন্যও নানা সমাজসেবামূলক কাজ করেছেন তিনি। আর তাই এবার এই পুরস্কারের জন্য তাঁর নামই বেছে নেওয়া হয়েছে। 
 
বিশ্ব জুড়ে বিইং হিউম্যান এখন নামকরা ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। যে ব্র্যান্ডের বিভিন্ন পণ্য বিক্রির সব অর্থ সালমান তুলে দেন তাঁর এনজিওকে।
আর এমন কাজের স্বীকৃতি পেয়ে উচ্ছ্বসিত সল্লু মিঞা। বলছেন, এমন সম্মান দেওয়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ। বাবা হয়তো বিশ্বাসই করবেন না আমি এই পুরস্কার পেয়েছি। দারুণ লাগছে।  
প্রায় এক দশক পর ব্রিটেনে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গেছেন তিনি। আজ শনিবার বার্মিংহামে এবং রবিবার লন্ডনে একটি শোয়ে জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ, সোনাক্ষী সিনহাদের সঙ্গে মঞ্চ মাতাবেন বলিউড হার্টথ্রব।

স্ন্যাক আজাদের গানের মডেল হলেন মিলন খান ও ঊম্মে মেলিসা


প্রিয়তমা নামক শিরোনামে মিউজিক ভিডিও টি নির্মান করা হয়েছে জানা গেছে এই ভিডিওটি কলের গান মাল্টিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পাবে এবং কয়েকটি টিভি চ্যানেলে দেখানো হবে।

প্রিয়তমা গানের কথা লিখেছেন শিল্পি স্ন্যাক আজাদ। গানটির সুর ও সংগীত করেছেন রাজেশ ঘোষ।গানটি নিয়ে স্ন্যাক আজাদ অনেক আশাবাদী।গানটি সম্পর্কে মডেল মিলন খান বলেন গানটি অসাধারন হয়েছে ,চিত্রায়নটাও অনেক সুন্দর হয়েছে।গানটির চিত্রায়নে ছিলেন জি স্বাধীন। সব মিলিয়ে অনেক ভাল একটা কাজ হয়েছে।



আশা করি ভিডিও টি সবার ভাল লাগবে
প্রিয়তমা গানটির সম্পর্কে মডেল উম্মে মেলিসার অনুভুতি।প্রথমত গানটি আমার কাছে অনেক শ্রুতিময় ছিলো।গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মান টা অনেক ভালো লেগেছে তাই এ কাজটি করতে পেরে আমি খুব আনন্দিত।আমি আশা রাখি এই ভিডিওটি দর্শক ভালোভাব গ্রহন করবে।এই কাজ দিয়ে মিডিয়াতে আমার প্রথম পদচারণা হলো।আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন যাতে আমি আপনাদের আরো অনেক ভালো কাজ উপহার দিতে পারি।
যৌথ প্রযোজনা ছবির নীতিমালার খসড়া

যৌথ প্রযোজনা ছবির নীতিমালার খসড়া

যৌথ প্রযোজনা ছবির নীতিমালার খসড়া

যৌথ প্রযোজনার নীতিমালা নিয়ে অনেকদিন ধরেই চলছে বিভিন্ন সমালোচনা। আর এই সমালোচনার মূল কারণ সংশ্লিষ্টদের দ্বিমত। তাই সুষ্ঠু একটি নীতিমালা নিয়ে আলোচনা চলছিল অনেকদিন ধরেই। শেষ পর্যন্ত একটি নীতিমালা নির্ধারণ করা হলো। নীতিমালায়  বলা হয়েছে যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্রে শিল্পী-কলাকুশলীর সমানুপাত বাধ্যতামূলক করে নতুন নীতিমালার খসড়া করেছে সরকার। 
 
তথ্য মন্ত্রণালয় এ খসড়াটি করেছে। প্রচার সামগ্রীতে সংশ্লিষ্ট সব দেশের শিল্পী ও কলাকুশলীদের নাম সমানভাবে ও গুরুত্বসহকারে উল্লেখ থাকতে হবে। সংশ্লিষ্ট সব দেশের শিল্পীর ছবি সমানভাবে প্রদর্শন করার কথাও বলা হয়েছে খসড়া নীতিমালায়। শিল্পী ও কলাকুশলীর অনুপাতে বৈষম্য, প্রচারণায় বাংলাদেশের শিল্পী ও কলাকুশলীদের অবজ্ঞাসহ নানা কারণে বিগত সময়ে ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র নিয়ে বিতর্ক ও সমালোচনা সৃষ্টি হয়। 
 
সর্বশেষ গত ৯ জুলাই ‘চলচ্চিত্র পরিবার’ প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে দেশের চলচ্চিত্রের স্বার্থে যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ নীতিমালা দ্রুত যুগোপযোগী ও পূর্ণাঙ্গ করে নতুন নীতিমালা তৈরির সিদ্ধান্ত নেয় তথ্য মন্ত্রণালয়। নতুন নীতিমালা না হওয়া পর্যন্ত যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ কার্যক্রম স্থগিত রাখারও সিদ্ধান্ত হয়। 
 
সেই থেকে যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, ২০১২ সালের নীতিমালাকে ভিত্তি ধরে নতুন নীতিমালাটি করা হয়েছে।
আবারও বিয়ে করেছেন হৃদয় খান

আবারও বিয়ে করেছেন হৃদয় খান


শোবিজে চারপাশে ভাসছে খবর- আবারও বিয়ে করেছেন কণ্ঠশিল্পী হৃদয় খান। গত ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার হয়েছে তার গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান এবং রোববার ১০ সেপ্টেম্বর সেরেছেন বিয়ের পর্ব। বিষয়টি নিজের দিক থেকে এখনও গোপন রেখেছেন এই সংগীত তারকা।
কিন্তু মুখে মুখে রটে গেছে হৃদয় খানের বিয়ের খবর। পাওয়া গেছে নতুন কনের সঙ্গে তার বিয়ের ছবিও। বিয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত হতে জাগো নিউজ থেকে যোগাযোগ করা হলে হৃদয় খান ফোন ধরেননি। এমনকি হৃদয় খানের বাবা সংগীত পরিচালক রিপন খানও বড় ছেলের বিয়ের প্রসঙ্গে মুখ খুলেননি। তিনি মিটিংয়ে আছেন দাবি করে এই প্রতিবেদকের ফোন কেটে দেন। আর হৃদয়ের ছোট ভাই সংগীতশিল্পী প্রত্যয় খান এই ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে মন্তব্য করেছেন।
হৃদয়ের ঘনিষ্ঠজনরাও বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারছেন না। তবে অনেকেই বিয়েটি হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন। এবং হৃদয়ের সঙ্গে লাল শাড়ি পরা মেয়েটিকেই হৃদয়ের বউ বলে দাবি করছেন। তাদের ভাষ্য, হৃদয়ের জন্য গেল কয়েক মাস ধরেই মেয়ে দেখছিলো তার পরিবার।
হৃদয় খানও গণমাধ্যমে বলে আসছিলেন, ‘বিয়ের জন্য পরিবার থেকে মেয়ে দেখা হচ্ছে। পরিবারের সিদ্ধান্তই আমার সিদ্ধান্ত।’ তাই এই ছবিকে কেন্দ্র করে জোরালো হচ্ছে তার বিয়ের খবরের সত্যতা।
এদিকে হৃদয়ের বিয়ের খবর দেয়া সূত্রটি জানিয়েছে, হৃদয়ের নতুন বউয়ের নাম হুমায়রা, যিনি থাকেন মালয়েশিয়া। অনেকদিন ধরেই প্রেম চলছিলো তাদের মধ্যে। অবশেষে ভালোবাসা রূপ নিয়েছে শুভ পরিণয়ে। পারিবারিকভাবে দাম্পত্যে জড়ালেন হৃদয় ও হুমায়রা।
এটি হৃদয় খানের তৃতীয় বিয়ে। ২০১০ সালের শুরুর দিকে পূর্ণিমা আকতার নামের একজনকে বিয়ে করেছিলেন এই সংগীত তারকা। ছয় মাসের মাথায় সেই সংসার ভেঙে যায়। তার আগে সাত বছর প্রেম করেন নওরীন নামের আরেকজন মেয়ের সঙ্গে। অন্যদিকে ২০১৪ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেন মডেল সুজানাকে। তার সেই বিয়ে টিকেছিল মাত্র আট মাস।
কণ্ঠশিল্পী ইমরানের বাবা আর নেই

কণ্ঠশিল্পী ইমরানের বাবা আর নেই



জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ইমরান মাহমুদুলের বাবা মোজাম্মেল হক আজ দুপুর ১টা ২০ মিনিটে ইন্তেকাল করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

জানা গেছে, মোজাম্মেল হক হৃদরোগে আক্রান্ত থাকলেও সম্প্রতি তিনি বেশ সুস্থই ছিলেন। মঙ্গলবার সকালে গাড়ি মেরামত করার জন্য বেরিয়েছিলেন। গাড়ি ঠিক করে আসার পথেই বুক ব্যথা অনুভব করেন। বাসায় ফেরার পর পরিবারের সদস্যরা তাকে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এমন সময়ই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
হুট করেই বাবাকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ হয়ে গেছেন ইমরান। সবার কাছে তার বাবার জন্য দোয়া চেয়েছেন। এছাড়া ইমরানের শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছেন সঙ্গীতাঙ্গনের তারকারা।

আর অভিনয় করবেন না মিশা


তিন দশকের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার ইতি টানছেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা সওদাগর। সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তিনি আর অভিনয় করবেন না।
দেশের শীর্ষস্থানীয় একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার সাক্ষাতকারে মিশা সওদাগর এমন তথ্য জানিয়েছে। তিনি বলেন, আমি অনেক ভেবেচিন্তে কথাগুলো বলছি, অভিনয় ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চলচ্চিত্রে অনেক দিন তো হলো, এবার নিজের জন্য একটু সময় দিতে চাই। মহরত, শুটিং, ডাবিং, প্রিমিয়ার -এসব করেই তো জীবনের অনেকটা সময় পার করে দিয়েছি।
মিশা আরও বলেন, আমি টাকার জন্য বাঁচতে চাই না, নিজের জন্য বাঁচতে চাই। একই ধরনের চরিত্র, প্রায় একই ধরনের সংলাপ। আর কত? কোনো বৈচিত্র্য নেই। বৈচিত্র্যহীন কাজ করতে আর চাই না। চলচ্চিত্রকে আর পেশা হিসেবে দেখব না। যদি আমার বয়স আর সময় বুঝে কেউ তেমন কোনো চরিত্র নিয়ে আসে, আর তা যদি খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়, তাহলে তেমন কাজ হয়তো মাঝে মাঝে করব। কিন্তু পেশা হিসেবে আর নয়।
হাতে থাকা ছবিগুলোর কাজ এই বছরেই শেষ করবেন বলে জানান মিশা। তিনি বলেন, কারও সঙ্গে আমার কোনো বৈরিতা (শত্রুতা) নেই। এ সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত। আমি চলচ্চিত্র ছাড়ার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি সেটি একেবারেই চূড়ান্ত।
অভিনয় ছাড়লেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সঙ্গে থাকবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। বলেছেন, আমি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি। সংগঠনে পর্যাপ্ত সময় দেব। চলচ্চিত্রের গুণগত পরিবর্তনের জন্য কাজ করব।
এ বিষয়ে ঢাকাই ছবির এ খল নায়কের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ‘আমার যা বলার সব ওখানেই (সাক্ষাতকার) বলে দিয়েছি। আমি এ সিদ্ধান্ত ভেবে চিন্তেই নিয়েছি।’
১৯৮৬ সাল থেকে মিশা সওদাগর চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। এফডিসি আয়োজিত নতুন মুখ কার্যক্রমে নির্বাচিত হন তিনি। ছটকু আহমেদ পরিচালিত চেতনা ছবিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন ১৯৯০ সালে। এরপর অমরসঙ্গী ছবিতেও তিনি নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেন, কিন্তু দুটোর একটিতেও সাফল্য পাননি।
পরবর্তীতে বিভিন্ন পরিচালক তাকে খল চরিত্রে অভিনয়ের পরামর্শ দেন এবং তমিজ উদ্দিন রিজভীর ‘আশা ভালোবাসা’ ছবিতে ভিলেন চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। সেখান থেকেই তার সাফল্য শুরু। এরপর প্রায় ৯০০ ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন এ খল নায়ক।
উল্লেখ্য, চলচ্চিত্রের উন্নয়নের দোহাই দিয়ে নামকাওয়াস্তে যৌথ প্রযোজনায় ছবি বানানোর ঘোর বিরোধী ঢাকাই ছবির দাপুটে খল অভিনেতা মিশা সওদাগর।
গত ২৬ জানুয়ারি শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে ‘নীতিগতভাবে আমরা এক, চলচ্চিত্র শিল্পীদের মিলনমেলা ও মতবিনিময়’ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, এখন যৌথ প্রযোজনার নামে যা হচ্ছে তা আমাদের চলচ্চিত্রের জন্য মঙ্গলজনক নয়। এটা চলচ্চিত্রের কফিনে পেরেক ঠুকে দেয়ার মতোই। যৌথ প্রযোজনার যে নিয়ম তা এখন কেউই মানছে না

এবার বাংলা আইটেম গানে সানি লিওন

     


জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘বিগ বস’ দিয়ে বলিউডে আগমন ঘটা সানি লিওন এখন বলিউডের রুপালি পর্দা কাপাচ্ছেন। নীল দুনিয়া ছেড়ে বলিউডে আসা এ তারকা এবার বাংলা ভাষাভাষি ভক্তদের আরও কাছে আসলেন। কলকাতার এক ছবির বাংলা গানে ঠোট মিলিয়ে নাচলেন তিনি।র বাংলা গানে ঠোট মিলিয়ে নাচলেন তিনি।

কলকাতার ‘শ্রেষ্ঠ বাঙালি’ নামে একটি বাংলা ছবির আইটেম গানে দেখা যাবে এ বলিউড তারকাকে। স্বপন সাহা পরিচালিত ছবিটিতে আইটেম গানে নেচেছেন সানি। অঞ্জন ভট্টাচার্য, মমতা শর্মা ও দেব নেগির গাওয়া এই গানটির সংগীতায়োজন করেছেন অঞ্জন ভট্টাচার্য।

বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) ইউটিউবে জি মিউজিক বাংলা চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়েছে কলকাতার ‘শ্রেষ্ঠ বাঙালি’ ছবির এ আইটেম গান। গানটির শিরোনাম ‘চাপ নিস না’। গানের দৃশ্যে সানি লিওনের সঙ্গে পারফর্ম করেছেন রিজু। সঙ্গে একদল নৃত্যশিল্পীও রয়েছেন।

গানটি ইতোমধ্যে প্রায় আড়াই লক্ষাধিকবার দেখা হয়েছে এবং সাড়ে তিনশোরও অধিক মতামত লেখা হয়েছে। ফলে বোঝাই যাচ্ছে গানটি বাংলা ভাষাভাষিদের মাঝে ভালোই আলোড়ন ছড়াবে।
স্বপন সাহার পরিচালনায় ‘শ্রেষ্ঠ বাঙালি’ ছবিটি প্রযোজনা করছেন পার্থ পবি। চলতি বছরের শেষ দিকে এটি মুক্তি পেতে পারে বলে জানা গেছে।
অ্যাম্ফি থিয়েটারে ‘ঢালিউড ব্লাস্ট’:যাচ্ছে একঝাঁক তারকা

অ্যাম্ফি থিয়েটারে ‘ঢালিউড ব্লাস্ট’:যাচ্ছে একঝাঁক তারকা


আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর ওমানের রাজধানী মাস্কটের কুরুম সিটি অ্যাম্ফি থিয়েটারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ঢালিউড ব্লাস্ট’ নামের সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের জমকালো আসর। সেখানে পারফর্ম করার জন্য ওমান যাচ্ছেন বাংলাদেশের একঝাঁক তারকা।
তারকাদের মধ্যে আছেন শাকিব খান, বিদ্যা সিনহা মিম, নিরব, আসিফ আকবর, কুদ্দুস বয়াতি, পড়শী, প্রীতম হাসান, বিপাশা কবির, সিদ্দিক, ডন ও আইরিন। নাচে গানে ওমানের মঞ্চ মাতাবেন তারা। অনুষ্ঠানের একদিন আগেই (১৩ সেপ্টেম্বর) সেখানে পৌঁছাবেন তারা। অনুষ্ঠান শেষে দেশে ফিরবেন আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর।

অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেছে তৌফিক ইউনাইটেড কোম্পানি এলএলসি ও তৌফিক ইউনাইটেড কোম্পানি এলএলসি এর ব্যবস্থাপক তৌফিক-উদ-জামান পলাশ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা অনন্য মামুন ও লাইভ টেকনোলজিস। উপস্থাপনা করবেন সাংবাদিক তানভীর তারেক ও কলকাতার পায়েল।

মাত্র ২ দিনেই ৩ লাখ ছাড়িয়েছে ইলিয়াস-অরিনের "না বলা কথা-৪"


২০১২ সালে ‘না বলা কথা বলে দিতে চাই’ গানটি গেয়ে ইলিয়াস হোসেন শ্রোতাদের মন জয় করেছিলেন। পেয়েছেন বিপুল জনপ্রিয়তা। তারই ধারাবাহিকতায় না বলা কথা গানের সিক্যুয়াল করেছেন টু এবং থ্রি। এ দুটি অ্যালবামও সাফল্য পেয়েছে। এবার না বলা কথা-৪ দিয়ে ইউটিউব মাতাচ্ছেন জনপ্রিয় এ কণ্ঠশিল্পী।
মাত্র ২ দিনেই ইউটিউব ভিউয়ার ছাড়িয়েছে ৩ লাখেরও বেশী। মাই সাউন্ডের ব্যানারে তৈরি হওয়া অ্যালবামের টাইটেল গানটি ইলিয়াসের সাথে যথারীতি এবারও গেয়েছেন অরিন। কাজী শুভর সুরে রাফির সঙ্গীতায়োজনে লিখেছেন জাহিদ আকবর। এরইমধ্যে টাইটেল গানটির মিউজিক ভিডিওর শুটিং শেষ হয়েছে। গানে মডেল হয়েছেন এ সময়ের জনপ্রিয় মডেল অন্তু করিম ও মৌ । মিউজিক ভিডিও পরিচালনা করেছেন সৌমিত্র ঘোষ ইমন।  ঈদের আগেই ভিডিওটি প্রকাশ পাবে বলে জানা যায়। 
তাছাড়া একই অ্যালবামে ইলিয়াসের সাথে ‘বুঝে নিও’ শিরোনামের আরেকটি দ্বৈত গান গেয়েছেন ন্যান্সি। এবারের অ্যালবাম প্রসঙ্গে ইলিয়াস হোসেন বলেন, ২০১২ সালে আমার না বলা কথা অ্যালবামটি প্রকাশিত হয়েছিল। সেই থেকে অগণিত ভক্তের ভালবাসায় ধন্য আমি। আমার জীবনে ভক্তদের যে ভালবাসা পেয়েছি, তা সীমাহীন। তাই ভক্ত, শ্রোতাদের জন্যই এবারো না বলা কথা-ফোর অ্যালবামটি নিয়ে ফিরছি। বরাবরের চেয়ে এবার আরো চমক থাকছে অ্যালবামে। গানে, গল্পে, ভিডিওতে দারুণ কিছু পাবেন। এবারের অ্যালবামে মোট ১০ টি গান রয়েছে। গানগুলো লিখেছেন কবির বকুল, জাহিদ আকবর, তারেক আনন্দ, খোন্দকার শফিক সহ অনেকে।
ইলিয়াস আরও বলেন আমি খুবই আনন্দিত যে আমার শ্রোতারা আগের গানগুলোর মত এই গানটিকেও খুব সহজে গ্রহণ করেছে।


অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি মোশাররফ করিম


অভিনেতা মোশাররফ করিমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুবাইলের একটি নাটকের শুটিং চলাকালীন সময়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। এখন হাসপাতালের সিসিইউতে (করোনারি কেয়ার ইউনিট) আছেন তিনি।
 
অসুস্থ হবার আগে তিনি ঈদে প্রচারের লক্ষে নির্মিত ‘জমজ ৮’ নাটকের শুটিং করছিলেন। নাটকটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকা অরণ্য পাশা জানান, পুবাইলে নাটকটির শেষ অংশের শুটিং চলছিল। মঙ্গলবার রাতে মোশাররফ করিম ভাই একটু দেরি করেই শুটিং সেটে এসে উপস্থিত হন। এরপর রাত ১ টার দিকে তিনি বুকে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করতে থাকেন।
 
তিনি আরো জানান, মোশাররফ ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা দেখে শুটিং ইউটিনিটের সবাই ঘাবড়ে যায়। দ্রুত তাকে উত্তরার একটি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। রাত ২ টার দিকে তাকে হাসপাতালের সিসিইউতে নেয়া হয়।
 
চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হঠাৎ পেসার হাই হওয়াতেই এমনটা হয়েছে। এখন তিনি আশঙ্কা মুক্ত। তবে বেশ কিছুদিন বিশ্রামে থাকতে হবে।

বিয়ের কাজটা সেরে ফেলেছেন হাবিব-তানজিন তিশা?


গায়ক ও সংগীত পরিচালক হাবিব ওয়াহিদের সঙ্গে প্রেম করছেন অভিনেত্রী তানজিন তিশা— এ গুঞ্জণ দীর্ঘদিনের। মাঝখানে স্ত্রী রেহানের সঙ্গে এই গায়কের ছাড়াছাড়ির পর প্রেমের বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। কয়েকদিন নিরবে কেটে গেলেও ফের সংবাদ শিরোনামে এলেন হাবিব-তিশা।


রেইনকোট পরে বাইকে বসেছেন হাবিব, পেছনে তানজিন তিশা, সেলফি তুলছেন হাবিব— স্থিরচিত্রটি অনেক প্রশ্নের জবাব দিচ্ছে। এটি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন মডেল-অভিনেত্রী তিশা। মন্তব্যের ঘরে নতুন জীবনের জন্য তাদেরকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন সবাই।




অনেকের মতে, এরই মধ্যে বিয়ের কাজটি সেরেছেন হাবিব ও তিশা। তবে এ নিয়ে তারা মুখ খোলেননি, বরাবরই সংবাদ মাধ্যমকে এড়িয়ে চলা হাবিব হয়তো ভবিষ্যতে ফেসবুকে পোস্ট দেবেন, নতুন জীবনের খবর জানিয়ে। যেভাবে তিনি রেহানের সঙ্গে ডিভোর্সের কথা প্রকাশ করেছিলেন।
সালমান শাহ স্মরণে কনকচাঁপা

সালমান শাহ স্মরণে কনকচাঁপা

সালমান শাহ স্মরণে কনকচাঁপা

প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহ যেমন অনেক জনপ্রিয় ছবি উপহার দিয়েছেন ঠিক তেমনি তার মুখে জনপ্রিয় হয়েছে অনেক গানও। নায়িকাদের সঙ্গে নানা রকম শ্রুতিমধুর গানে ঠোঁট মিলিয়েছেন সালমান। সেই সব অধিকাংশ গানে সালমানের নায়িকাদের ঠোঁটে আসা গানগুলোর কণ্ঠ দিয়েছেন নন্দিত কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা।
সেই কনকচাঁপা এবার গাইলেন সালমান স্মরণে। বাংলাভিশনের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘মিউজিক ক্লাব’র বিশেষ আয়োজনে সালমান শাহ অভিনীত চলচ্চিত্রের গান গাইবেন এই গায়িকা।
সরাসরি সম্প্রচারিত এই অনুষ্ঠানে দর্শকরা ফোন করে অতিথির সাথে কথা বলার পাশাপাশি গানের অনুরোধ করতে পারবেন। গানের পাশাপাশি তিনি কথা বলবেন তার জীবনের নানা গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা, জানা অজানা তথ্যসহ ভবিষ্যতের পরিকল্পনা নিয়ে। করবেন সালমানকে নিয়ে স্মৃতিচারণও।
‘মিউজিক ক্লাব’র এই পর্বটি বাংলাভিশনে সম্প্রচারিত হবে আগামীকাল বুধবার (৩০ আগস্ট) রাত ১১টা ২৫মিনিটে। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন নাহিদ আহমেদ বিপ্লব।
ধ্রুব গুহর একলা পাখির চমক আসিফ আকবর

ধ্রুব গুহর একলা পাখির চমক আসিফ আকবর

ধ্রুব গুহর একলা পাখির চমক আসিফ আকবর

গানকে ভালোবেসেই নিজের জনপ্রিয়তার অনন্য এক জায়গায় পথ হাঁটছেন ধ্রুব গুহ। ‘যে পাখি ঘর বোঝে না’ শিরোনামের গান দিয়ে কণ্ঠশিল্পী ধ্রুব গুহ কোটি দর্শকদের মুগ্ধতা ছুঁয়েছেন। নিজের গানের ক্ষেত্রে কোনো হালকা কথার কাজ করেননি। এমনকি মিউজিক ভিডিওর ক্ষেত্রেও বাজার চলতি অশ্লীলতার মাধ্যমে অন্য পথে নজর কাড়ার চেষ্টা করেননি তিনি। একমাত্র কাজের নিষ্ঠাতেই নিজের গান নিয়ে এগিয়ে গেছেন। তার ফলাফলও পেয়েছেন যথার্থ। 
 
তবে এবারের ঈদ উপলক্ষে বেশ বড় চমক নিয়ে আসছেন তিনি। প্রথমবারের মতো যুগলভাবে কাজ করছেন দেশের আধুনিক গানের যুবরাজ খ্যাত আসিফ আকবরের সাথে। না একসাথে যৌথ কোনো গানে নয়, এবার ধ্রুব গুহর গানে মডেল হয়েছেন আসিফ নিজেই। ‘একলা পাখি’ গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন প্লাবন কোরেশী এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন তরিক। ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন শুভব্রত সরকার।
 
ধ্রুব গুহ বলেন, ‘গানকে ভালোবেসেই এই পথে হাঁটা। সেদিক দিয়ে আমার অনেক বড় অনুপ্রেরণার জায়গা আসিফ আকবর। খুব বেশিদিন আমরা সম্পর্কের ঘনিষ্ঠ না হলেও আমি এই মানুষটাকে দেখেছি রাতদিন শুধু গান নিয়েই ভাবতে। এটা অনেক বড় বিষয়। আমরা অনেকেই অনেককিছু করে গানটা নিয়ে ভাবি। আর এই মানুষটি সারাদিন গানের ভেতরে থেকে অন্য সবকিছু ভাবার বা বোঝার চেষ্টা করেন। তাই আমার একলা পাখি গানটির অন্যতম চমক হিসেবেই আমি আসিফকে উপস্থাপন করছি।’
 
ধ্রুব গুহর ‘একলা পাখি’ গানটি ঈদ উপলক্ষে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের প্লাটফর্মে রিলিজ হবে।

বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন শাকিব খান

উত্তরাঞ্চলের ২০ জেলা যখন বন্যায় আক্রান্ত তখন শাকিব খান চুপচাপ বসে থাকবেন কেন? শাকিবও বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। ঈদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালায় অংশ নিয়ে যা পাচ্ছেন তারত সাথে নিজের আরো কিছুটা যোগ করে বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। তবে শাকিব খানের প্রাপ্ত সম্মানীর সাথে যুক্ত অর্থের পরিমাণ এক লাখ টাকা বলে জানা গেছে। যদিও টাকার অংকের পরিমাণ সম্পর্কে শাকিব খান কিছু বলতে চাননি।  
শাকিব খান কালের কণ্ঠকে বলেন, আসলে এসব পারসোনাল বিষয়, এসব নিয়ে আসলে কথা না বলাই ভালো। দানের টাকা প্রকাশ করার কোনো বিষয় না। এতে কোনো মহত্ব নেই।
বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে শাকিব বলেন, আমাদের প্রত্যকের অবস্থান থেকেই যার যার সামর্থ অনুযায়ী বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানো উচিৎ। হয়তো কন্ট্রিবিউশন ছোট হতে পারে তবে অল্প অল্প করেই তো বিশাল হয়ে যাবে। আমি তাই ঈদ শো করার সময়ও মনে হয়েছে একটি নৈতিক দায়িত্ব পালন করছি।
উল্লেখ্য, এবারের ঈদে শাকিব খান অভিনীত রংবাজ ছবিটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে।
এতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন শবনম ইয়াসমিন বুবলী।  

নিজের নামে ওয়েবসাইট চালু করলেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নিরব


নিজের নামে ওয়েবসাইট চালু করলেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নিরব হোসেন। এখন থেকে এই ওয়েবসাইটে তার কাজের খোঁজ খবরসহ নানা কিছু জানা যাবে।

একইসঙ্গে NirabHossain.Com এই ঠিকানায় লগইন করে পাওয়া যাবে নিরব অভিনীত বিভিন্ন চলচ্চিত্র, গানের ভিডিও এবং কাজের যাবতীয় আপডেট।

সদ্য চালু হওয়া এই সাইটে এখন রয়েছে নিরবের উল্লেখযোগ্য কাজ এবং ক্যারিয়ারের প্রথমদিকের মডেলিংয়ের বিভিন্ন ছবি, বর্তমানে নির্মিতব্য ‘গেম রিটার্নস’ ছবির বিভিন্ন ছবি এবং ফুটেজ। এছাড়া তার সম্পর্কে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত ফিচার, সাক্ষাৎকার ইত্যাদি থাকছেও।

নিজের ওয়েবসাইট চালু প্রসঙ্গে  জনপ্রিয় এই নায়ক বলেন, আমার কাজগুলো এক জায়গায় নিয়ে আসতে চাচ্ছি। তাছাড়া যারা আমার সম্পর্কে জানতে চান, তাদের জন্য এই সাইট। এখন থেকে আমার সকল কাজের আপডেট এখানে পাওয়া যাবে। অনেক ক্ষেত্রে দেখেছি গুগলে সার্চ করলে আমার সম্পর্কে অনেক ভুল তথ্য পাওয়া যায়। এতে অনেকে বিভ্রান্ত হন। তাই আমি চাচ্ছি সঠিক তথ্য উপস্থাপনের জন্য। নিজের বাড়ির মতো করে ওয়েব সাইটটাও গোছাচ্ছি।

নিরব বর্তমানে ব্যস্ত আছেন রয়েল খান পরিচালিত ‘গেম রিটার্নস’ ছবিটি নিয়ে। এছাড়া খুব শিগগির নতুন ছবির কাজ শুরু করবেন বলে জানান তিনি। বললেন, চমক হিসেবে থাক। কিছুদিনের মধ্যেই জাঁকজমকপূর্ণভাবে নতুন ছবির ঘোষণা দেব।

মুক্তি পেল স্বপ্নীল সোহেল ও মোহনার "নতুন পৃথিবী "



সম্প্রতি ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে  জনপ্রিয় সংগীত  শিল্পী  স্বপ্নীল সোহেল ও মোহনার   'নতুন পৃথিবী " গানের মিউজিক ভিডিও 
সিএমভি এর ব্যানারে গতকাল কাল রাতে গানটি ইউটিউবে মুক্তি পায়।  প্রত্যয় খানের  সংগীত পরিচালনায়  গানটির কথা ও সুর করেছেন শিল্পী নিজেই। 

মিউজিক ভিডিওটি মডেল হয়চ্ছেন স্বপ্নীল সোহেল এবং নায়লা তিথী মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেন সৌমিত্র ঘোষ ইমন।  


উল্লেখ্য, এর আগে স্বপ্নীল সোহেলের  'আমার সবকিছুতেই তুমি' , 'মন বলেছে' ,
 এবং 'সপ্নের হাত ধরে' সহ বেশ কিছু মিউজিক ভিডিও রিলিজহয়, শ্রোতাদের কাছে দারুন প্রসংশিত হয়েছে  

n
একা শাকিবের ওপরই ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়িয়ে আছে : তথ্যমন্ত্রী

একা শাকিবের ওপরই ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়িয়ে আছে : তথ্যমন্ত্রী

একা শাকিবের ওপরই ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়িয়ে আছে : তথ্যমন্ত্রী
শাকিব খানের ওপরই বাংলাদেশের ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়িয়ে আছে মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, এই ইন্ডাস্ট্রি শক্তিশালী করতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমণ্ডির কড়াই গোস্ত রেস্তোরাঁয় একটি ছবির মহরতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী ইনু বলেন, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী মাধ্যম হলো চলচ্চিত্র। এ জন্য আমরা বলি, চলচ্চিত্র যা পারে রাজনীতিবিদরা তা পারে না।
তিনি বলেন, এ জন্যই কিন্তু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান, কলকাতা কিংবা মুম্বাইয়ের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে টেক্কা দিতে পারে আমাদের চলচ্চিত্র সে জন্য বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি) করেছিলেন।
চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি রাজ্জাক-কবরীর মতো অভিনেতাদের হাত ধরে শুরু হলেও বর্তমানে একা শাকিবের ওপরই ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়িয়ে আছে।
ওই মহরত অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর গড়ে দিয়ে যাওয়া চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি নির্মাণের পর থেকেই কিন্তু আমরা সাফল্যের সাথে রাজ্জাক, কবরীর মতো অভিনেতাদের হাত ধরে লাহোর, মুম্বাই, কলকাতার সিনেমার থেকেও সমৃদ্ধ সিনেমা করেছি। কবরীর পর ববিতা, তারপর শাবানা চলচ্চিত্রে এসেছেন। তাদের সিনেমা সাধারণ মানুষ দারুণভাবে গ্রহণ করেছে।
এখনতো শাকিব খান একাই মাত করছে। তার ওপরই এখন আমাদের চলচ্চিত্রের সাফল্য-ব্যর্থতা নির্ভর করছে।
বাকিদেরও এগিয়ে আসতে হবে।
এ দিন সন্ধ্যায় রেস্তোরাঁটিতে 'রাজ দ্য নিউ সুলতান' ছবির মহরতে তথ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ। ছবিতে অভিনয় করছেন বাপ্পী ও জলি।
অভিনেত্রী আনোয়ারাকে ৩০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

অভিনেত্রী আনোয়ারাকে ৩০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

অভিনেত্রী আনোয়ারাকে ৩০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রীচলচ্চিত্র অভিনেত্রী আনোয়ারা বেগমকে ৩০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রবিবার বিকেলে গণভবনে আনোয়ারার হাতে টাকার চেক হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় আনোয়ারার সঙ্গে ছিলেন তার মেয়ে রুমানা ইসলাম মুক্তি।
কিছুদিন আগে অভিনেত্রী আনোয়ারাকে নিয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে আসে। সংবাদটিতে বলা হয়, তিনি সাহায্য চান না, মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর চিকিৎসার জন্য পাওনা টাকা ফেরত চান। আর এই পাওনা টাকার জন্যই দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তিনি।
এ সংক্রান্ত সংবাদটি দেখার পর শেখ হাসিনা তার ব্যক্তিগত সহকারীকে নির্দেশ দেন অভিনেত্রী আনোয়ারার সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য।
উল্লেখ্য, গত জুলাই মাসে প্রযোজকদের কাছে পাওয়া টাকা ফেরত চান আনোয়ারা। এ জন্য স্বামী মহিতুল ইসলামের চিকিৎসার খরচ ঠিকভাবে বহন করতে আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী বাধ্য হয়েই প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান

আর এফডিসিতে আসবো না-বাপ্পারাজ




কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাকের স্মরণে বিএফডিসিতে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। শনিবার সকাল ১১ টায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবারের আয়োজনে শোকসভায় উপস্থিত ছিলেন নায়ক আলমগীর, নায়ক ফারুক, সোহেল রানা, নায়করাজের বড় ছেলে বাপ্পারাজ, সম্রাটসহ, শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা।    
এ সময় বাপ্পারাজ বলেন, আর এফডিসিতে আসবো না। যদি আপনারা সকল নিষেধাজ্ঞা, মামলা তুলে না নেন। হয়তো এটাই হবে আপনাদের সঙ্গে শেষ দেখা। আমিও হয় তো ভুল করে অনেক কথা বলেছি। আমাকে ক্ষমা করে দেবেন। আমি ভুল করেছি এজন্য নোটিশ পাঠানোর দরকার নেই, শাকিব ভুল করেছে এজন্য বয়কট করার দরকার কী? শাকিবকে ডাকলে শাকিব আসবে না কেন?
শোকসভা ছাড়াও দিনব্যাপী নায়করাজকে নিয়ে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। গেলো ২১ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টা ১৩ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা যান নায়করাজ রাজ্জাক।
নায়করাজ ১৯৪২ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬৪ সালে ঢাকায় আসেন তিনি। ১৯৬৭ সালে ‘বেহুলা’ ছবির মাধ্যমে নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি।
রাজ্জাক অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে রয়েছে—স্লোগান, আমার জন্মভূমি, অতিথি, কে তুমি, স্বপ্ন দিয়ে ঘেরা, প্রিয়তমা, পলাতক, ঝড়ের পাখি, খেলাঘর, চোখের জলে, আলোর মিছিল, অবাক পৃথিবী, ভাইবোন, বাঁদী থেকে বেগম, সাধু শয়তান, অনেক প্রেম অনেক জ্বালা, মায়ার বাঁধন, গুণ্ডা, আগুন, মতিমহল, অমর প্রেম, যাদুর বাঁশী, অগ্নিশিখা, বন্ধু, কাপুরুষ, অশিক্ষিত, সখি তুমি কার, নাগিন, আনারকলি, লাইলী মজনু, লালু ভুলু, স্বাক্ষর, দেবর ভাবী, রাম রহিম জন, আদরের বোন, দরবার, সতীনের সংসার
হাসপাতালে ভর্তি এ টি এম শামসুজ্জামান

হাসপাতালে ভর্তি এ টি এম শামসুজ্জামান

চোখে অস্ত্রোপচারের জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান। আজ বিকালে একুশে পদকপ্রাপ্ত এই অভিনেতার ডান চোখে অস্ত্রোপচার করানো হবে বলে জানা গেছে। ধানমণ্ডির একটি হাসাপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।
এর আগেও চোখের চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন এ টি এম শামসুজ্জামান। দীর্ঘদিন ধরেই তার ডান চোখে ছোট একটি কালো দাগ দেখা গিয়েছে। এক দশক আগে ভারতের মাদ্রাজের একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেখানে চিকিৎসা না নিয়েই চলে আসেন। গতকাল শুক্রবার তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত সার্জারি করতে বলেন।
মিনারের মিউজিক ভিডিওতে নেপালের নায়িকা

মিনারের মিউজিক ভিডিওতে নেপালের নায়িকা

মিনারের মিউজিক ভিডিওতে নেপালের নায়িকা

গত ২৩ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টায় গানচিল মিউজিকের ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশিত হয় মিনার রহমানের নতুন গান ‘কি তোমার নাম’ এর টিজার। মজার বিষয় হচ্ছে একদিনের মধ্যেই গানটির টিজারের ভিউ ১ লাখ অতিক্রম করে যায়।
 
গানটির কথা লিখেছেন আসিফ ইকবাল, সুর করেছেন মিনার নিজেই এবং সঙ্গীতায়োজন করেছেন সাজিদ সরকার। মিউজিক ভিডিওটি বানিয়েছেন তানিম রাহমান অংশু। মিউজিক ভিডিওটি শুট করা হয়েছে নেপালে। কাঠমুন্ডু, নাগরকোট এবং ভক্তপুরের বিভিন্ন মনোরম এবং ঐতিহাসিক লোকেশনে ভিডিও টি শুট করা হয়।
 
উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে প্রথমবারের মত বাংলাদেশের কোন মিউজিক ভিডিওতে মডেল হলেন নেপালের একজন নায়িকা। নেপালের এই নায়িকার নাম রেবিকা গুরুং।
 
ঈদুল আযহার আগের দিন পুরো মিউজিক ভিডিওটি গানচিলের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হবে। ইতিমধ্যে গানটির টিজার মিনারের ভক্ত শ্রোতাদের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলেছে।

এবারের ঈদের ইলিয়াসের চমক না বলা কথা- ফোর

এবারের ঈদের ইলিয়াসের চমক না বলা কথা- ফোর

২০১২ সালে ‘না বলা কথা বলে দিতে চাই’গানটি গেয়ে ইলিয়াস হোসেন আলোচনায় আসেন। ইলিয়াসের প্ল্যাটফরম তৈরি হয় এই গান দিয়ে। এরই ধারাবাহিকতায় না বলা কথা গানের সিক্যুয়াল করেছেন টু এবং থ্রি। এ দুটি অ্যালবামও সাফল্য পেয়েছে।
এবার না বলা কথা-ফোর নিয়ে ঈদে আসছেন ইলিয়াস হোসেন। মাই সাউন্ডের ব্যানারে তৈরি হওয়া অ্যালবামের টাইটেল গানটি ইলিয়াসের সাথে যথারীতি এবারও গেয়েছেন অরিন। কাজী শুভর সুরে রাফির সঙ্গীতায়োজনে লিখেছেন জাহিদ আকবর। এরইমধ্যে টাইটেল গানটির মিউজিক ভিডিওর শুটিং শেষ হয়েছে। ঈদের আগেই ভিডিওটি প্রকাশ পাবে বলে জানা গেছে। এছাড়া একই অ্যালবামে ইলিয়াসের সাথে ‘বুঝে নিও’ শিরোনামের আরেকটি দ্বৈত গান গেয়েছেন ন্যান্সি।
এবার ইলিয়াসের হয়ে না বলা কথা বলবেন অন্তু
এবারের অ্যালবাম প্রসঙ্গে ইলিয়াস হোসেন বলেন, ২০১২ সালে আমার না বলা কথা অ্যালবামটি প্রকাশিত হয়েছিল,সেই থেকে অগণিত ভক্তের ভালোবাসায় ধন্য আমি। আমার জীবনে ভক্তদের যে ভালোবাসা পেয়েছি, তা সীমাহীন।  
তিনি বলেন, এবার আরো চমক থাকছে অ্যালবামে। গানে, গল্পে, ভিডিওতে দারুণ কিছু পাবেন। এবারের অ্যালবামে মোট ১০ টি গান রয়েছে। গানগুলো লিখেছেন কবির বকুল, জাহিদ আকবর, তারেক আনন্দ, খোন্দকার শফিক সহ অনেকে।
কুমার শানু আসছেন ‘মন কাঁচের আয়না’ নিয়ে

কুমার শানু আসছেন ‘মন কাঁচের আয়না’ নিয়ে

কুমার শানু আসছেন ‘মন কাঁচের আয়না’ নিয়ে
 
জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কুমার শানু। গেল কয়েক বছর ধরেই মোটামুটি নতুন গান নিয়ে দেখা যায় নি এই সঙ্গীত তারকাকে। এবার ‘মন কাঁচের আয়না’ শিরোনামে নতুন একটি গান নিয়ে আসছেন এই সংগীতশিল্পী।
 
গানটি লিখেছেন বাংলাদেশর ওমর ফারুক বিশাল। সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন রবিন ইসলাম। গত শুক্রবার কলকাতার একটি স্টুডিওতে গানটির রেকর্ডিং হয়েছে। ঈদুল আজহায় গানটি মুক্তি পাবে।
 
নতুন কাজ এবং নিজের ফেরার বিষয়ে কুমার শানু বলেন, গত কয়েক বছর ধরে মনের মতো না হলে কোনো গান করছি না। বিশেষ করে অডিও গানের ক্ষেত্রে আমার পছন্দকে বেশি গুরুত্ব দিই। এই গানের কথা ভীষণ ভালো লেগেছে। গানের কথা দেখা মাত্রই চোখের সামনে একটা গল্প ভেসে উঠে।
চিত্রনায়ক সালমান শাহকে হত্যা করা হয়েছে!

চিত্রনায়ক সালমান শাহকে হত্যা করা হয়েছে!

চিত্রনায়ক সালমান শাহকে হত্যা করা হয়েছে!
 
চিত্র নায়ক সালমান শাহের বিউটিশিয়ান রাবেয়া সুলতানা রুবির ফেসবুকে এক ভিডিও ফুটেজ নিয়ে সারাদেশে তোলপাড় চলছে।
 
যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত রুবি তার ভিডিও ফুটেজে বলেন, ‘আত্মহত্যা নয়, হত্যাকাণ্ডের স্বীকার হয়েছিলেন সালমান শাহ এবং তা করিয়েছিলেন তারই স্ত্রী সামিরা হকের পরিবার।'
 
বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে হার্টথ্রব নায়ক সালমান শাহ ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ইস্কাটন রোডে নিজের ফ্ল্যাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। বাইশ বছর পর এই চিত্রনায়কের ‘বিউটিশিয়ান’ রুবির এই দাবিকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন রহস্যঘেরা এই মৃত্যুর তদন্তের দায়িত্বে থাকা পিবিআই’র (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) বিশেষ পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ। সোমবার ফেসবুকে এই ভিডিওফুটেজ আপলোড হওয়ার পর তিনি বলেন, ভিডিও ফুটেজে যে মেয়েটি সালমান শাহকে হত্যা করার কথা বলেছেন, তিনি তার বিউটিশিয়ান ছিলেন। তিনি এই মামলার একজন গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী। ২২ বছর পর হঠাৎ কেনইবা এ ধরণের স্বীকারোক্তি দেয়া হলো-তা আমরা তদন্ত করছি। তিনি জেনেশুনে এই স্বীকারোক্তি দিয়েছেন-নাকি কেউ তাকে বলাতে বাধ্য করছে-সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই মামলায় মাত্র ৪ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে। সালমান শাহের ফ্ল্যাটের গৃহকর্মীদের কোন বক্তব্য নেয়া হয়নি। আমরা জানতে পেরেছি যে গৃহকর্মীরা বর্তমানে দেশের বাইরে চলে গেছেন। এ ছাড়া এই মামলায় সালমান শাহের স্ত্রী ও স্ত্রীর বাবাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। বর্তমানে সালশাহের স্ত্রী সামিরা থাইল্যান্ডে বসবাস করেন। সালমান শাহ যদি আত্মহত্যা করে থাকেন-সে ক্ষেত্রে কেনইবা তিনি এ কাজ করলেন এবং কারা থাকে বাধ্য করেছে-সেটিও মামলায় আগের তদন্তে স্পস্ট হয়ে ওঠেনি। তবে রুবির এই ভিডিও ফুটেজ আমরা আশা করছি যে এই মামলাটি তদন্তে নতুন করে গতি পাবে।’
 
যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়ায় থাকা রুবি সোমবার ফেসবুকে এক ভিডিওবার্তায় সালমান শাহর মৃত্যু নিয়ে বলেন, ‘সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই। সালমান শাহকে খুন করা হইছে, আমার হাজব্যান্ড এটা করাইছে আমার ভাইরে দিয়ে। সামিরার ফ্যামিলি করাইছে আমার হাজব্যান্ডকে দিয়ে। আর সব ছিল চাইনিজ মানুষ।’
 
রুবি বলেন, ‘স্বামীর নাম চ্যাংলিং চ্যাং, যিনি বাংলাদেশে জন চ্যাং নামে পরিচিত ছিলেন। ধানমণ্ডি ২৭ নম্বর সড়কে সাংহাই রেস্টুরেন্ট নামে তার একটি চাইনিজ রেস্তোরাঁ ছিল।’
 
চিত্রনায়ক সালমান শাহ স্ত্রী সামিরাকে নিয়ে যে এপার্টমেন্টে থাকতেন, সেখানেই একটি ফ্ল্যাটে রুবি থাকতেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। লাশ উদ্ধারের সময় তার উপস্থিত থাকার তথ্যও রয়েছে।
 
রুবি দাবি করেন, ‘হত্যাকাণ্ড ঘটানোর পর তার ভাই রুমিকেও খুন করা হয়েছে। ইমনরে (সালমান শাহর প্রকৃত নাম) সামিরা, আমার হাজব্যান্ড ও সামিরার সমস্ত ফ্যামিলি সবাই মিলে খুন করছে। ইমনরে আমার ভাই রুমিরে দিয়ে খুন করানো হইছে। রুমিরেও খুন করানো হইছে। আমি জানি না, আমার ভাইয়ের কবর কোথায় আছে। রুমির লাশ যদি কবর থেকে তুলে পোস্টমর্টেম করে, তাহলে দেখা যাবে রুমিরে গলা টিপে মেরে ফেলা হইছে।’
 
ভিডিও ফুটেজে আরো বলা হয়, ‘আমি এখানে (যুক্তরাষ্ট্র) ভেগে আসছি। আমাকে খুন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আপনারা আমার জন্য দোয়া করেন। আমি কী করব জানি না, এতটুকু জানি, সালমান শাহ (ইমন) আত্মহত্যা করে নাই।’
 
১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সকালে রাজধানীর নিউ ইস্কাটন গার্ডেন এলাকায় ভাড়া বাসায় পাওয়া যায় অভিনেতা সালমান শাহর লাশ। ওই ঘটনায় সালমানের বাবা কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী রমনা থানায় অপমৃত্যুর মামলা করেন। ২০০২ সালে মারা যান সালমান শাহর বাবা। লাশ উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থলে থাকা রুবির বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ করে আসছিলেন সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী। পুত্রবধূ সামিরা হক, সামিরার মা লতিফা হক লুসি, চলচ্চিত্রের খল চরিত্রের অভিনেতা ও সালমানের বন্ধু আশরাফুল হক ওরফে ডন, চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মাদ ভাই, রুবি, রিজভী আহমেদ ওরফে ফরহাদ, সহকারী নৃত্যপরিচালক নজরুল শেখ, ডেভিড, মোস্তাক ওয়াহিদ, আবুল হোসেন খান ও গৃহকর্মী মনোয়ারাকে ছেলের মৃত্যুর জন্য দায়ী করে আদালতে আবেদন করেন নীলা চৌধুরী।
 
ঘটনাস্থলের সঙ্গে নিবিড়ভাবে যুক্ত এমন কয়েকজন যেমন, সালমানের বাসার গৃহকর্মী মনোয়ারা ও ডলি, সালমানের সহকারী আবুল হোসেন খান, সালমানের ফ্ল্যাটের নিরাপত্তারক্ষী আবদুল খালেক, ফ্ল্যাটের ব্যবস্থাপক নূরউদ্দিন জাহাঙ্গীর, লিফটম্যান আবদুস সালাম এবং সালমানের ফ্ল্যাটের আশপাশের বাসিন্দাদের কারও জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়নি।
 
সালমানের মা নীলা চৌধুরীর অভিযোগ, সেলিম নামে যে ব্যক্তি সালমানের মৃত্যুর খবর পরিবারকে জানাল, তারই জবানবন্দি নেয়া হয়নি কোনো তদন্তে। মরদেহ সিলিং ফ্যান থেকে নামানোর প্রত্যক্ষদর্শী কারও জবানবন্দি নেয়া হয়নি। আর ১৫ বছর ধরে চলা বিচার বিভাগীয় তদন্তে কেবল সালমান পরিবারের চার সদস্যের জবানবন্দি নেয়া হয়েছে। ভালো করে তদন্ত না করেই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘সালমানের মৃত্যু আত্মহত্যাজনিত’। কিন্তু কী কারণে সালমান আত্মহত্যা করেন তার ব্যাখ্যা নেই কোনো তদন্ত প্রতিবেদনে।
 
সালমানের বাসা থেকে পুলিশ একটি সুইসাইড নোট বা আত্মহত্যার চিঠি উদ্ধার করে। চিঠিতে লেখা আছে, ‘আমি চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার, পিতা-কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, ১৪৬/৫, গ্রিনরোড, ঢাকা-১২১৫ ওরফে সালমান শাহ এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে আজ অথবা আজকের পরে যেকোনো দিন মৃত্যু হলে তার জন্য কেউ দায়ী থাকবে না। স্বেচ্ছায়, সজ্ঞানে, সুস্থ মস্তিষ্কে আমি আত্মহত্যা করছি।’ এই চিঠিতে কারও স্বাক্ষর ছিল না। তবে সিআইডির হস্তবিশারদেরা পরীক্ষা করে বলেছেন, এটা সালমান শাহের হাতের লেখা।
 
সালমানের মা নীলা চৌধুরী এই চিঠি নিয়ে গুরুতর সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা ওকে ইমন নামেই ডাকতাম। অথচ চিঠিতে ইমন নামের কোনো অস্তিত্ব নেই। ও থাকে ইস্কাটনের বাসায়। কিন্তু ঠিকানা লেখা আছে আমাদের বাসার। সালমান শাহ নামটিও ঠিকানার পরে লেখা।’ চিঠির ভাষার আনুষ্ঠানিক ভঙ্গি নিয়ে প্রশ্ন তুলে নীলা চৌধুরী আরও বলেন, ‘কোনো ব্যক্তি আত্মহত্যা করার আগে এ রকম মামলা লেখার স্টাইলে এত গুছিয়ে বাবার নাম, ঠিকানা উল্লেখ করে চিঠি লেখে বলে আমার জানা নেই। এখানেই আমার ঘোরতর সন্দেহ।’
 
লাশ উদ্ধারের পর পরবর্তী সময়ে তদন্তকারী সংস্থা সালমানের ফ্ল্যাট থেকে দুটি ছোট বোতলে (ভায়েল) ভরা তরল পাওয়া যায়। সিআইডির রাসায়নিক পরীক্ষক মুহাম্মদ আবদুল বাকী মিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই বর্ণহীন তরলে ‘লিগনোকেইন হাইড্রোক্লোরাইড’ পাওয়া গেছে, চিকিৎসকেরা যেটি লোকাল অ্যানেসথেসিয়ার (স্থানীয় চেতনানাশক) কাজে ব্যবহার করেন।
 
পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের বিশেষ পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন, একটি অপমৃত্যুর মামলা এতদিন ধরে তদন্ত করার নজির নেই। অনেক আলামত নষ্ট হয়ে গেছে।’
বন্ধু দিবস নিয়ে অয়ন চাকলাদারের গান

বন্ধু দিবস নিয়ে অয়ন চাকলাদারের গান

বন্ধু দিবস নিয়ে অয়ন চাকলাদারের গান
 
‘বন্ধু তুমি বন্দি দিবসে’ শিরোনামে গানে সুর ও কণ্ঠ দিয়েছেন অয়ন চাকলাদার।
 
এস এম মফিউর রহমানের কথায় গানটিতে সুর ও কণ্ঠ দিয়েছেন অয়ন চাকলাদার। গানটি গ্রামীণ ফোনের জিপি মিউজিক  এবং বাংলালিংকের ভাইবতে প্রকাশিত হয়েছে।
 
অয়ন বলেন, 'বন্ধুত্ব কোনো দিবসের মাঝে বন্দি রাখার বিষয় নয়। আমরা আমাদের গানে সে বিষয়টিই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। আশা করছি সবার ভাল লাগবে।
মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি দিলীপ কুমার

মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি দিলীপ কুমার

দিলীপ কুমারের শারীরিক অবস্থা ভালো নয়
 
কিডনির সংক্রমণ ও ডিহাইড্রেশনের(পানি শূন্যতা) সমস্যা নিয়ে ২ আগস্ট থেকে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমার (৯৪)। অভিনেতার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে।দিলীপ কুমারের জন্য চিকিৎসকদের একটি দল গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
 
সেই টিমের সদস্য চিকিৎসক জালাল ডি পার্কার সাংবাদিকদের বলেন, ‘দিলীপ কুমার ভাল নেই। তার ডায়ালাইসিস চলছে। কিন্তু ভেন্টিলেটর(কৃত্রিম উপায়ে শ্বাস-প্রশ্বাস চালু রাখার যন্ত্র) দেওয়া হয়নি।’
 
বেশ কয়েক বছর ধরেই বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছেন অভিনেতা। গত বছরের ডিসেম্বরে জ্বর ও পা ফোলার সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।
 
ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, দিলীপ কুমারের বেশ কয়েকটি মেডিকেল টেস্ট করানো হয়েছে। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতেই তার চিকিৎসা চলছে। হাসপাতালে সব সময় অভিনেতার পাশে রয়েছেন তার স্ত্রী অভিনেত্রী সায়রা বানু।

এবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন আরফিন রুমি

এবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন আরফিন রুমি

 

এবার চলচ্চিত্রে দেখা যাবে কণ্ঠশিল্পী আরফিন রুমিকে। সাইমন-মাহি অভিনীত 'জান্নাত' ছবির একটি বিশেষ দৃশ্যে দেখা যাবে তাঁকে। আর বিশেষ দৃশ্যটি হচ্ছে তারই গাওয়া গানেই পারফর্ম করবেন তিনি।
মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘জান্নাত’ ছবির একটি গানে পারফর্ম করার জন্য এরই মধ্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন আরফিন রুমি। ‘পাপী তাপী মন/কান্দে সারাক্ষণ’ শিরোনামের এ গানটিতে কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি এর সংগীতায়োজনও তিনিই করেছেন। গানটি লিখেছেন সুদীপ কুমার দীপ।

জানা গেছে, ছবির একটি দৃশ্যে নতুন বছরকে স্বাগত জানানোর একটি কনসার্ট রয়েছে। সেই কনসার্টেই গাইবেন আরফিন রুমি। আর এটির চিত্রায়ণ যুক্ত হবে 'জান্নাত' ছবিতে।
মাহিয়া মাহি ও সাইমন সাদিক ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন, আলীরাজ, মিশা সওদাগর, শিমুল খান।

ছবির কাহিনি লিখেছেন সুদীপ্ত সাইদ খান ও চিত্রনাট্য করেছেন আসাদ জামান।
ছবিটি প্রযোজনা করছে এসএস মাল্টিমিডিয়া। খুব শিগগিরই দৃশ্যটি ধারণ করা হবে বলে পরিচালক সূত্রে জানা গেছে।
মি: নুডলস এর ফেসবুক পেজ এ আসিফ মেহ্দীর সায়েন্স ফিকশন

মি: নুডলস এর ফেসবুক পেজ এ আসিফ মেহ্দীর সায়েন্স ফিকশন

মি: নুডলস এর ফেসবুক পেজ এ আসিফ মেহ্দীর সায়েন্স ফিকশন

মি: নুডলস তার ভক্তদের জন্য নিয়ে এলো বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় লেখক আসিফ মেহ্দীর লেখা বিভিন্ন ফ্লেভারের সায়েন্স ফিকশন! ভিন্ন ধাঁচের বিজ্ঞান কল্পগল্পগুলো নোট আকারে প্রতি সপ্তাহে প্রকাশিত হচ্ছে মি: নুডলস-এর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ-এ। আসিফ মেহ্দীর সায়েন্স ফিকশন মানেই ভিন্নতার ছোঁয়া। তাঁর লেখা সায়েন্স ফিকশন গল্পগুলোতে রোবট, এলিয়েন, স্পেসশিপ নেই বললেই চলে; বরং সেসব গল্পে আমাদের আশপাশের জীবন ও প্রকৃতির হাসি-কান্না, আনন্দ-বেদনা ভিন্ন মাত্রায় উঠে আসে। এছাড়াও সাই-ফাই গল্পগুলোতে একদিকে যেমন বিজ্ঞানের জটিল বিষয়গুলো সরলভাবে উঠে আসে; তেমনি ফুটে ওঠে দেশভাবনা, মানুষের জন্য ভালোবাসা, প্রকৃতির জন্য সহমর্মিতা। গল্পের জীবনঘনিষ্ঠতা এবং লেখকের রম্য ধাঁচের গল্প বলার ভঙ্গির কারণে তাঁর লেখা সায়েন্স ফিকশন বইগুলো সারাবছরই থাকে বেস্ট সেলার বইয়ের তালিকায়। তো, আজই হয়ে যাক অল্পস্বল্প কল্পগল্প! নিচের লিঙ্ক এ ক্লিক করে পড়ুন জনপ্রিয় সব গ্লপ https://goo.gl/wEiGby

ইউটিউবে প্রীতমের ‘কপি পেস্ট’


ইউটিউবে প্রীতমের ‘কপি পেস্ট’‘বালিকা’-খ্যাত প্রীতম আহমেদ। মাঝে অনেকদিন অন্য শিল্পীর জন্য গান তৈরি করা থেকে কিছুটা বিরত ছিলেন। তবে এবার ইমরান খানের জন্য ‘কপি পেস্ট’ শিরোনামের নতুন একটি গান করলেন এ গায়ক। প্রীতমের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে গানটি আপলোড করেছেন। গানটির কথা-সুর ও সঙ্গীত জনপ্রিয় এই শিল্পীর।
গানটি প্রসঙ্গে প্রীতম বললেন, এমন নয় যে আজ যত বাংলা গান হচ্ছে তার সবটাই খারাপ বা মানহীন। পাশাপাশি এটাও সত্যি একই দেশ একই মাটিতে যেমন গান আমাদের পূর্ববর্তী প্রজন্ম তৈরি করে গেছেন তাদের মত সেই সুমধুর কথা বা সুরের গান এখন আর শুনতে পাইনা। সময় পাল্টায়, প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে খাবার, পোশাকের ধরন পাল্টায় গানের ধরনই বা পালটাবে না কেন। তাই বলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম, পল্লীকবি জসিম উদ্দিনের গানের কথা ও সুর পরিবর্তন করে গাইবো? নিজের ভালোলাগা ভালোবাসার মূল্যায়ন করতে গিয়ে অন্যের সৃষ্টির অসম্মান করবো? নিজে জনপ্রিয় হবার লোভে অন্যের জনপ্রিয়তাকে পদদলিত করে পথ চলবো? এসব কি আসলেই কেউ ইচ্ছে করে করেন নাকি প্রয়োজনীয় শিক্ষা গ্রহণের আগেই পেশা হিসেবে সঙ্গীতকে বেছে নেবার কারণে করে আমার জানা নেই।
প্রীতম আরো অভিযোগ করে বলেন, ‘শিল্প যদি শিল্পীর হয় আর শিল্পী যদি জনমানুষের হয় তবে শিল্পীদের কি সমাজের প্রতি দায় থাকবে না? গতবছর যখন কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্টে তনু হত্যা হল ঠিক তখন কালা চশমা নামের একটি গান বেজে উঠলো বাংলার পাড়া মহল্লায়। প্রজন্মের বেশিরভাগ মানুষ ধর্ষিত তনুর আর্তনাদ শুনতেই পাইনি কালা চশমা গানের সাথে নাচতে গিয়ে। আমাদের সমাজের বেশিরভাগ অনাচার অন্যায় নিয়েই শিল্পী সমাজে নাটক, সিনেমা গান নির্মাণে অনাগ্রহ। আমার এই গানটিও তেমন হারিয়ে যাবে হয়তো। কিন্তু ভালোবাসার মমতা মাখা কোন সুর বা কথার গানের অপেক্ষায় থাকবে প্রাণ।’
‘কপি পেস্ট’ গানটি গর ২৪ জুলাই ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে। ইতোমধ্যে বেশ সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছে বালিকা গানের এই গায়ক।



বিবাহ বিচ্ছেদের পোস্ট সরিয়ে নিয়েছেন তাহসান-মিথিলা

বিবাহ বিচ্ছেদের পোস্ট সরিয়ে নিয়েছেন তাহসান-মিথিলা

বিবাহ বিচ্ছেদের পোস্ট সরিয়ে নিয়েছেন তাহসান-মিথিলা তাহসান-মিথিলার বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে গত বৃহস্পতিবারে দেয়া পোস্ট ফেসবুক থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। শুক্রবার থেকে তাহসান ও মিথিলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে দেয়া পোস্ট উধাও হয়ে গেছে।
 
বৃহস্পতিবার যৌথভাবে ফেসবুকে দেয়া পোস্টে এই সেলিব্রেটি দম্পতি জানান, ‘কয়েক মাস ধরে নিজেদের মধ্যকার দ্বন্দ্ব বা মতবিরোধ নিরসনের চেষ্টার পর আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সামাজিক চাপে একটা সম্পর্ক ধরে রাখার চেয়ে আমাদের আলাদা হয়ে যাওয়াই মঙ্গলজনক।’
 
ফেসবুকে এই পোস্টের পরে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। তাহসানের ফেসবুক পেজের পোস্টটিতে কিছুক্ষণের মধ্যেই ২০ হাজারের মতো মন্তব্য আসে, ১০ হাজারের বেশি মানুষ পোস্টটি শেয়ার দেন। ধারণা করা হচ্ছে, বিব্রতকর এই পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়ে তাহসান-মিথিলা ফেসবুক পোস্টটি সরিয়ে নেয়। এই বিষয়ে তাহসান ও মিথিলার মন্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি।
 
২০০৬ সালে ৩ আগস্ট বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তাহসান ও মিথিলা। ২০১৩ সালে তাদের ঘরে আসে একমাত্র সন্তান আইরা তেহরীম খান।