BaniNewsBD.Com

এবার সিনেমায় আসিফ আকবর


বাংলা সংগীতের যুবরাজ আসিফ আকবর তার কণ্ঠের জন্য যেমন প্রশংসা পেয়ে আসছেন, তেমনি প্রশংসা পেয়ে আসছেন তার রূপের। অতিথি শিল্পী হিসেবে নাটকে অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। মিউজিক ভিডিওতেও অভিনয় করে আসছেন তিনি।  

 সবই তো হলো, ছবিতে আসিফ আকবরের বিপরীতে নায়িকা হবেন কে? প্রশ্নের উত্তরে নির্মাতা সৈকত নাসির বললেন, ‘আমাদের পছন্দের তালিকায় আছেন বেশ ক’জন। বিষয়টি চুড়ান্ত হলে জানাতে চাই।’

তবে জানা গেছে, জয়া আহসান ও মাহিয়া মাহি- এই দুজনই রয়েছেন পছন্দের শীর্ষে। তাদের সঙ্গে কথাও চলছে। শিডিউল ও সবকিছু ব্যাটে বলে মিলে গেলে দেখা যেতে পারে জয়া-মাহির যে কোনো একজনকে।

অ্যাকশন থ্রিলারভিত্তিক এ ওয়েব ফিল্মের নাম 'ভি আই পি'। আসাদ জামান এবং সৈকত নাসিরের গল্প ও চিত্রনাট্যে এ ছবিটি পরিচালনা করবেন সৈকত নাসির। বিগ বাজেটের এ ওয়েব ফিল্মটির ব্যাপ্তি হবে ১৪০ মিনিট অর্থাৎ ২ ঘণ্টা ১০ মিনিট।

 

 আসিফ আকবর  বলেন, ‘আসলে সিনেমাতে তো আগে কখনো অভিনয় করিনি। আমাকে কীভাবে উপস্থাপন করা হবে এটা নির্মাতা সৈকত নাসিরই ভালো বলতে পারবে। এবার একটি ওয়েব সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছি। দেখা যাক কি হয়। নিজেকে প্রস্তুত করছি অভিনয়ের জন্য।’

এ বিষয়ে নির্মাতা সৈকত নাসির বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই পরিকল্পনাটা চলছিল। এখন সিদ্ধান্তে উপনীত হলাম। এটাকে আসলে ফিল্মই বলা যায়। ৪ কোটি টাকা বাজেটে নির্মিত হবে এ ছবিটি। অ্যাকশন ও থ্রীলারধর্মী একটি ছবি। গল্পের মোড়ে মোড়ে অনেকগুলো টুইস্ট থাকবে। আসিফ ভাই এই ছবির নায়ক, এটা কনফার্ম। আর নায়িকার বিষয়টি এখনই বলতে চাচ্ছি না। শিগগিরই এ নিয়ে ঘোষণা দিবো। তবে বাংলাদেশ কিংবা কলকাতার প্রথম সারির কোনো নায়িকা থাকবে এটা নিশ্চিত। কথাবার্তা চলছে,ফাইনাল হলেই জানানো হবে।’

 

সৈকত নাসির জানান, এরই মধ্যে সবকিছু গুছিয়ে নিয়েছেন তিনি। নায়িকা কনফার্ম হলে আগামী ঈদের পরপরই ছবির শুটিং শুরু হবে। আর মুক্তির বিষয়টা ছবির কাজ শেষ হলে বলা যাবে, বড় পর্দায় ও রিলিজ হতে পারে ছবিটি।

 

 উল্লেখ্যঃ  এর আগেও গায়ক এস.ডি রুবেল চিত্রনায়িকা শাবনূরের  সাথে "এভাবেই  বুঝি ভালোবাসা হয়ে যায়"  ছবির মাধ্যমে সিনেমা জগতে  পা রাখে ।  

ইমনের বিপরীতে কলকাতার সায়নী


গেলো কিছুদিন আগে কলকাতায় পাড়ি জমান ইমন। সেখানে এই চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নেন। কলকাতার মনোরম লোকেশনে ছবিটির চিত্রায়নে গত ১০ জুলাই ছবিটির শুটিং শেষ হয়। ৬০ মিনিট ব্যাপ্তি এই ফিচার ছবিটির শিরোনাম ‘সিনেমার পর্দার সব চরিত্র কাল্পনিক’। এটি নির্মাণ করেন কলকাতার নির্মাতা কৃষ। এই ফিচারধর্মী চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথমবারের মত জুটি বেঁধেছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় দুই তারকা। এর আগে শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার জন্য কলকাতায় গিয়ে গ্রুমিং করে আসেন ইমন।

চিত্রনায়ক ইমন বলেন, ‘আমার অভিনীত লালটিপ ও গহীন অরণ্যে এই ছবি দুটি দেখে আমাকে পছন্দ করেন ছবিটির নির্মাতা। কলকাতার প্রযোজক তপন দাদার সাথে পরিচয়ের সুবাদে উনার মাধ্যমে কৃষ আমার সাথে যোগাযোগ করে। তারপর সবকিছু জেনে কাজটি করতে রাজি হই। বেশ গোছানো একটি কাজ। গত পরশুদিন ছবিটির শুটিং শেষ করলাম। শিগগিরই দেশে ফিরবো।

ইমন-সায়নী ঘোষ ছাড়াও এতে অভিনয় করেন কলকাতার অভিনেতা বিশ্বজিৎ।

এদিকে, ইমন বর্তমানে ‘সাহসী যোদ্ধা’ ছবির শুটিং করছেন। এছাড়াও নির্মাণাধীন রয়েছে বেশ কয়েকটি ছবি। অপরদিকে সায়নী ঘোষ কলকাতার সিনেমায় বেশ পরিচিত মুখ। শত্রু, কানামাছি, মায়ের বিয়ে ইত্যাদি ছাড়াও বেশকিছু সিনেমার অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি।

পর্দায় ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয়ে আপত্তি নেই মাহির!

পারিবারিক ব্যস্ততা এবং স্বামীকে নিয়ে আলাদা ফ্ল্যাটে সংসার শুরু করার পর নায়িকা মাহিয়া মাহি আবার চলচ্চিত্রে ব্যস্ত হয়ে উঠতে চাচ্ছেন। এ নিয়ে সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যমে কিছু সহাসী কথাও বলেছেন। তিনি বলেছেন, চরিত্রের সঙ্গে যায় এমন স্বল্প পোশাক পরতে তার কোন আপত্তি নেই। এমনকি ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয়েও আপত্তি নেই। তার মতে, আমি বাসায় যে ধরণের পোশাক পরি, পর্দায়ও তেমন পোষাকই পরি। তাই খুব একটা পার্থক্য দেখি না। আর ঘনিষ্ট দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে লজ্জাবোধ করার তেমন কারণও নেই। অভিনয়ে লজ্জার কিছু নেই। তিনি বলেন, আমার সঙ্গে যেসব হিরো কাজ করেছেন তারা প্রত্যেকেই বেশ প্রফেশনাল। অভিনয়ের সময় আমি চরিত্রেই ডুবে থাকি। চরিত্রের প্রয়োজনে সব করতে পারি আমি। তাই বলে ডিরেক্টরের এমন কোনো অনুরোধ রাখতে পারবো না, যা আমার সঙ্গে বেমানান। উল্লেখ্য, চলচ্চিত্রে আসার আগে মাহি একসময় বিয়ের মঞ্চে নাচতেন। ফলে সিনেমায় তিনি যে কোন পরিস্থিতিতে তিনি স্বাবলীল থাকতে পারবেন, এমনটাই স্বাভাবিক। মাহি মনে করেন, অভিনয় তার পেশা। পেশাগত জায়গা থেকে তিনি অভিনয়ের জন্য সব করতে পারেন। তবে নিজের সঙ্গে বেমানান এমন কিছু নয়।

হাসির মানুষ দিলদারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

 
আজ ১৩ জুলাই দিলদারের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী।  ২০০৩ সালের এই দিনে ৫৮ বছর বয়সে তিনি জীবনের মায়া কাটিয়ে চিরদিনের মতো পৃথিবী ত্যাগ করেন। দেখতে দেখতে কেটে গেল ১৫টি বছর। মুছে গেছেন তিনি সবখান থেকে। নতুন প্রজন্মের দর্শকও তাকে চেনেন না খুব একটা। তবে দিলদার থেকে গেছেন অসংখ চলচ্চিত্রে তার দুর্দান্ত অভিনয়ে; কৌতুক অভিনেতার কিংবিদন্তি হয়ে। মৃত্যুর একই বছরে অভিনয় জীবনে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

 

১৯৪৫ সালের ১৩ জানুয়ারি চাঁদপুরে জন্মগ্রহণ করেন দিলদার। তিনি এসএসসি পাশ করার পর পড়াশোনার ইতি টানেন। ২০০৩ সালের ১৩ জুলাই যদি ৫৮ বছর বয়সে এ পৃথিবী ছেড়ে তিনি চলে না যেতেন, তাহলে হয়তো আজও উপহার দিতেন নতুন কোনো হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র।

 

১৯৭২ সালে ‘কেন এমন হয়’ নামের চলচ্চিত্র দিয়ে অভিনয় জীবন শুরু করেন দিলদার। আর পেছনে ফিরে তাকাননি তিনি। অভিনয় করেছেন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ‘বিক্ষোভ’, ‘অন্তরে অন্তরে’, ‘কন্যাদান’, ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’, ‘সুন্দর আলীর জীবন সংসার’, ‘স্বপ্নের নায়ক’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘শান্ত কেন মাস্তান’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্রে। দিলদারের জনপ্রিয়তা এতটাই তুঙ্গে ছিল যে, তাকে নায়ক করে নির্মাণ করা হয়েছিল ‘আব্দুল্লাহ’ নামে একটি চলচ্চিত্র। নূতনের বিপরীতে এই ছবিতে বাজিমাত করেছিলেন তিনি। দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো ছবিতে ঠাঁই পাওয়া গানগুলো।


বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘ভাইজান এলো রে’

শাকিব খানের ভারতীয় সিনেমা ‘ভাইজান এলো রে’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশে।  তার আগে প্রয়োজন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের অনুমতির। আর সে লক্ষ্যেই গতকাল (বুধবার) ছবিটি সেন্সরে জমা দেয়া হয়েছে।

আমদানি করে বাংলাদেশে ‘ভাইজান এলো রে’ মুক্তি দিচ্ছে এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স। প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে চ্যানেল আই অনলাইনকে ‘ভাইজান’ সেন্সরে জমা পড়ার খবর নিশ্চিত করেছেন।

অন্যদিকে সেন্সর বোর্ডের সদস্য সচিব আলী সরকারও ছবিটি সেন্সরে জমা পড়ার খবর নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল ‘ভাইজান এলো রে’ সেন্সরে জমা দিয়েছে। আজ কাগজপত্র চেক করে দেখেছি সবকিছু ঠিক আছে। আগামী সপ্তাহের যেকোনো ছবিটি সেন্সরে প্রদর্শিত হবে।

‘ভাইজান এলো রে’ কলকাতার ছবি হলেও এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। যেখানে তিনি দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন। গেল ঈদে পশ্চিমবঙ্গে ছবিটি মুক্তি পায়। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গ থেকে ভাইজান এলো রে ছবিটি ভালো ব্যবসা করেছে।

শুধু তাই নয়, ছবিটি মুক্তির পর ওপার বাংলার কিংবদন্তি অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে নিজেই টুইট করেছিলেন। সেখানে কলকাতার শক্তিমান এই অভিনেতা শাকিব খানকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশের নায়ক শাকিব খানের অভিনয় দেখে আমি মুগ্ধ। শুধু অভিনয় নয়, নাচ এবং ফাইটিং এও তার জুড়ি নেই। আমি তার ভাইজান এলো রে ছবি এবং আগামীর জন্য সফলতা কামনা করছি।’

শাকিব খান ছাড়াও বাংলাদেশ থেকে ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিতে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের দীপা খন্দকার, মনিরা মিঠু, শাহেদ আলী। এছাড়াও কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী, পায়েল, শান্তিলাল, রজতাভ দত্ত প্রমুখ অভিনয় করেছেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে মুক্তির অনুমতি পেলে আগামী ২০ জুলাই ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি দেশব্যাপী মুক্তি চায় এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স।


অনুষ্ঠানে পুলিশ, বিয়ে ভাঙলো মিঠুনের ছেলের

বিয়ের আগে গ্রেফতার হতে পারেন বলে খবর বেরিয়েছিল ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে। তবে গ্রেফতার না হলেও ভেঙে গেল খ্যাতিমান চলচ্চিত্র অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মিমোর বিয়ে। শনিবার উটিতে একটি হোটেলে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। মিমোর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও জালিয়াতির অভিযোগ থাকায় বিয়ের অনুুষ্ঠানেই চলে আসে পুলিশ।

জিনিউজ২৪-এর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ধর্ষণ ও জালিয়াতির মামলায় মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালি ও ছেলে মিমোর দিল্লির একটি আদালত থেকে আগাম জামিন মঞ্জুর করা ছিল। তবুও উটির হোটেলে বিয়ের অনুষ্ঠানে পুলিশ হানা দেয়। পুলিশ হানা দেওয়ার পরই হোটেল ছেড়ে চলে যায় কনেপক্ষ।

তবে গত বৃহস্পতিবার বম্বে হাইকোর্ট মিমো ও যোগিতা বালিকে আগাম জামিন দিতে অস্বীকার করে। ফলে তারা দু’জন গ্রেফতার হতে পারেন এমনটাই ভাবা হয়েছিল। তবে জামিন অগ্রাহ্য হওয়ার পরই তারা দিল্লি হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন। সেখানে শনিবার তাদের জামিন মঞ্জুর করেন বিচারপতি আশুতোষ কুমার।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি একটি মহিলা থানায় অভিযোগ করেন তার সঙ্গে মিমোর ৪ বছর সম্পর্ক রয়েছে। তাদের শারীরিক সম্পর্কও রয়েছে। শুধু তাই নয়, তিনি একবার গর্ভবতীও হয়েছিলেন। পরে ওই সম্পর্ক ভাঙার জন্য যোগিতা তাকে হুমকি দিতে থাকেন।

একই সিনেমায় প্রসেনজিৎ, জিৎ ও সোহম

কলকাতার জনপ্রিয় তিনি নায়ক প্রসেনজিৎ, জিৎ ও সোহম। ‘বাঘ বন্দি খেলা’ শিরোনামের সিনেমায় অভিনয় করবেন তারা। যার পরিচালকও তিনজন— রাজা চন্দ, সুজিত মণ্ডল ও হরনাথ চক্রবর্তী।আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, ছবিটি দেখার জন্য টিকিট কেটে প্রেক্ষাগৃহে যাওয়ার দরকারও নেই দর্শকের। বাড়িতে বসেই তিন নায়কের কীর্তিকলাপ টিভিতে দেখতে পাবেন।

‘বাঘ’, ‘বন্দি’ ও ‘খেলা’— এই তিনটে নিয়ে গাঁথা হয়েছে একটা ছবি। প্রথম ছবি রাজা চন্দ পরিচালিত ‘বাঘ’। এখানে অভিনয় করছেন জিৎ ও সায়ন্তিকা।ছবি সম্পর্কে রাজা বললেন, ‘‘ছবি পরিচালনা করছি এবং জিতের সঙ্গে কথা হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও চিত্রনাট্য বা অন্যান্য কলাকুশলীর সঙ্গে কোনও কথা হয়নি।’’

শোনা যাচ্ছে, ‘বাঘ’-এর গল্প শেষ হচ্ছে এক অনুষ্ঠানে। সেখান থেকে শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় ছবি ‘বন্দি’র গল্প। পরিচালনা সুজিত মণ্ডলের।

‘‘তিনটে ছবি নিয়ে একটা ছবি হলেও প্রত্যেকটার গল্প ও তারকা আলাদা। এই ধরনের কাজ আমি আগে করিনি। নিঃসন্দেহে নতুন কাজ,’’ বললেন ‘বন্দি’র নায়ক সোহম। তার বিপরীতে আছেন শ্রাবন্তী। সোহম ও শ্রাবন্তী বিয়ে বাড়িতে ছবি তুলতে গিয়ে তুলে ফেলে এমন কিছু ছবি যা তাদের বিপদে ফেলে। পরিস্থিতি থেকে পালাতে তারা কলকাতা থেকে চলে যায় বারাণসীতে।

‘বন্দি’ গল্পটি শেষ হচ্ছে কোর্ট রুমে। হরনাথ চক্রবর্তীর ‘খেলা’র প্রথম দৃশ্য শুরু হচ্ছে সেই কোর্ট রুম থেকে। ‘‘এই ছবিতে একজন আইনজীবীর চরিত্রে দেখা যাবে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে। আছেন অঞ্জনা বসু, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, রাজেশ শর্মা, অয়ন ভট্টাচার্য, ঋত্বিকা সেন, রাজদীপ প্রমুখ,’’ বললেন পরিচালক।

কিন্তু এমন ছবি ছোটপর্দায় কেন? শোনা যাচ্ছে, ওই চ্যানেল নতুন ধরনের ছবি, নতুন শো নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে চায়।

সালমান খানের বিরুদ্ধে এবার জমি দখলের অভিযোগ

সালমান খানের বিরুদ্ধে এবার জমি দখলের অভিযোগ

http://images.asianage.com/images/aa-Cover-tmkmflor1ivnldurponfmtv9m6-20171227143359.Medi.jpeg 

হরিণ শিকার, ফুটপাতে চলাচলকারীদের উপর গাড়ি তুলে দেয়াসহ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বিরুদ্ধে। এবার তার বিরুদ্ধে জমি দখল এবং মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

ভারতের সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে, মুম্বাইয়ের এক বয়স্ক দম্পতি কেতন ও অনিতা কক্কড় দীর্ঘদিন আমেরিকায় ছিলেন। গত বুধবার তারা সাংবাদিক সম্মেলন করে অভিযোগ করেন, তাদের কেনা জমি দখল করার জন্য সালমান মানসিক নির্যাতন করছেন। এমনকি রাজ্যের প্রশাসন থেকে মন্ত্রী আমলা, সকলেই সালমানের কথা শুনছেন।

ওই দম্পতির দাবি, ১৯৯৬ সালে ২৭ লাখ টাকা দিয়ে মুাম্বাইয়ের পানভেলে জমি কেনেন তারা। তিন বছর আগে দেশে ফিরে ওই জমিতে বাংলো তৈরির কাজ শুরু করেন। পাশেই সালমান খানের খামারবাড়ি। যতদিন তারা আমেরিকা থেকে মাঝে মাঝে এসে জমির দেখভাল করতেন, ততদিন তাদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতেন সালমান। কিন্তু আমেরিকা থেকে ফিরে এসে জমিতে বাংলো তৈরি শুরু করার পর থেকেই তাদের উত্ত্যক্ত করতে শুরু করেন সালমান খান।

তাদের অভিযোগ, সালমান খান নিজের খামারবাড়ির পাশে এমনভাবে দরজা বসিয়েছেন, যার ফলে নিজেদের জমিতেই যেতে পারছেন না তারা।

দম্পতির আইনজীবী আভা সিংহ অভিযোগ করে বলেছেন, সালমান খানের প্রভাবে কক্কড় পরিবারের অভিযোগ শুনতে চাইছেন না মন্ত্রী মহল। তবে এসব নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি এ বলিউড সুপারস্টার।

কলকাতায় অনুষ্ঠিত হলো নজরুল মেলা-২০১৮


ছায়ানট কলকাতার আয়োজনে, রাজারহাটের নজরুলতীর্থে, ১লা জুন থেকে ৩রা জুন অবধি অনুষ্ঠিত হলো নজরুল মেলা ২০১৮ |অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা ও পরিচালনায় ছিলেন সোমঋতা মল্লিক | দুই বাংলার দুই শতাধিকেরও বেশি শিল্পী অংশগ্রহণ করেছেন এই মেলাতে | প্রথম দিনের বিশেষ আকর্ষণ ছিল দুশো কণ্ঠে 'বিদ্রোহী' কবিতাপাঠের মাধ্যমে মেলার শুভ উদ্বোধন | 

 

এছাড়াও, কোয়েস্ট ওয়ার্ল্ড থেকে প্রকাশিত হলো 'ইতি নজরুল' অডিও-অ্যালবামটি, যেখানে দুই বাংলার ৪১ জন শিল্পী পাঠ করেছেন কাজী নজরুল ইসলামের ৫৭টি পত্র | মোড়ক উন্মোচিত হলো বিনোদ ঘোষালের লেখা নজরুল-জীবনী 'কে বাজায় বাঁশি' | 

 

উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন দেবাশীষ সেন, প্রদীপ ঘোষ, রামানুজ দাসগুপ্ত, দেবাশীষ বসু, অনুপ মতিলাল, মল্লার ঘোষ, সুস্মিতা গোস্বামী, চন্দ্রাবলী রুদ্র দত্ত, মধুমিতা বসু, বিনোদ ঘোষাল ছাড়াও ওপার বাংলা থেকে ফতেমা তুজ-জোহরা, বুলবুল মহলানবীশ, নাশিদ কামাল, কামরুল ইসলাম, একরাম আহমেদ, রেজাউল হোসেন টিটো, প্রমুখ দুই-বাংলার অগণিত বিশিষ্ট মানুষরা |

 প্রথম দিনে শিল্পীরা ছিলেন গীতিকা গোষ্ঠী, সীমা ইসলাম, মুক্তধারা গোষ্ঠী, সুরঙ্গমা গোষ্ঠী, কথাশিল্পী গোষ্ঠী প্রমুখ | মেলাতে সঙ্গীত-কবিতাপাঠ-নৃত্­যানুষ্ঠান ছাড়াও ছিলো চিত্র-প্রদর্শনী, সেমিনার ও সিডি-বইয়ের সম্ভার |

চমক নিয়ে আসছেন কণ্ঠশিল্পী ধ্রুব গুহ


‘শুধু তোমার জন্য’ শিরোনামের গান-ভিডিও দিয়ে সবাইকে চমকে দেন ধ্রুব গুহ। প্রায় বছরখানেক বিরতি দিয়ে এবার প্রকাশ করতে যাচ্ছেন নিজের নতুন গান। নাম ‘তোমার ইচ্ছে হলে’। আহমেদ রিজভীর কথা-সুরে গানটির সংগীতায়োজন করেছেন তরিক আল ইসলাম। কলকাতার ভিডিও নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টিভিওয়ালা মিডিয়ার ব্যানারে গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন অরিত্র কর্মকার। গানটির ভিডিও শুটিং হয়েছে কলকাতাতেই।

  নতুন খবর হলো এই ভিডিওতে ধ্রুব গুহর মডেল হয়েছেন ভারতের ভোজপুরি সিনেমার অন্যতম নায়িকা মোনালিসা। তিনি ভোজপুরি অর্ধশতাধিক সিনেমায় কাজ করার পাশাপাশি ভারতীয় বাংলা, হিন্দি ও তামিল ছবিতেও অভিনয় করেছেন। ভারতের অন্যতম টিভি রিয়েলিটি শো ‘বিগবস’ দিয়ে প্রথম আলোচনায় আসেন মোনালিসা। জানা গেছে বাংলাদেশে মোনালিসার এটাই প্রথম কাজ। গানটির ভিডিওতে ধ্রুব গুহ, মোনালিসাকে ছাড়াও দেখা যাবে কলকাতা টিভি সিরিয়ালের জনপ্রিয় মুখ প্রিয়াঙ্কা ভট্টাচার্য, রেমোকে, শাশ্বতী মজুমদার ও সুজিত বিশ্বাস।  




এই গানেই  মিউজিক ভিডিওটি প্রসঙ্গে ধ্রুব গুহ বললেন, গানটি অসাধারণ মেলোডিয়াস। আর ভিডিওতেও নতুনত্ব আনতে চেষ্টা করেছি। তবে আমার কাছে সবার আগে গান। গানটি সবার হৃদয় ছুঁয়ে যাবে, পাশাপাশি ভিডিওটিও দর্শকদের বিনোদনের মাত্রা বাড়াবে বলে আমার বিশ্বাস।’ 


ডিএমএস সূত্রে জানা যায়, আগামী ১৯ জুলাই প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হবে ‘তোমার ইচ্ছে হলে’ গানটির ভিডিও। পাশাপাশি গানটি শুনতে পাওয়া যাবে ডিএমএস ওয়েবসাইট, জিপি মিউজিক ও বাংলালিংক ভাইবে।

 

উল্লেখ্য, তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান (ধ্রুব মিউজিক স্টেশন)। এই ব্যানার থেকে গেল এক বছরে প্রকাশ করেছেন দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় শিল্পীর বড় বাজেটের গান-ভিডিও।

‘আনন্দসময়’ উপস্থাপনায় ইভান সাইর

‘আনন্দসময়’ উপস্থাপনায় ইভান সাইর

http://sangbadsangjog.com/wp-content/uploads/2018/03/1520832296-450x237.jpg

 

বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান শাখার প্রধান সাদিকুল ইসলাম নিয়োগী পন্নীর প্রযোজনায় আসছে নতুন ম্যাগাজিন ‘আনন্দসময়’। তথ্য ও বিনোদনমূলক ব্যাতিক্রমী এই অনুষ্ঠানের প্রতিপর্বে চট্টগ্রামের বিভিন্ন প্রসিদ্ধ স্থান ও সফল ব্যক্তিদের গল্প তুলে ধরা হবে। এছাড়া নাটিকার মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি দেশ বিদেশী গান, ছবি ও বইয়ের তথ্য থাকছে। ইশতিয়াক আহদের গ্রন্থনায় এই অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেছেন ইভান সাইর।

অনুষ্ঠানের বিষয়ে প্রযোজক সাদিকুল ইসলাম নিয়োগী পন্নী বলেন, এই ম্যাগাজিনটি গতানুতিক ধারার বাইরে করা হয়েছে। স্টুডিও এবং বর্হিঃদৃশ্যে ধারণ করা এই অনুষ্ঠানে প্রতিটি অংশে রয়েছে নতুন নতুন চমক থাকছে। আশা করি এটি দর্শদের তথ্য ও বিনোদন দিতে সক্ষম হবে।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে ৬ জুলাই শুক্রবার রাত ১০টার ইংরেজি পর প্রচারিত হবে।

জায়েদ খানের হাত ধরে ফিরলেন সাহারা

ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের জনপ্রিয় মুখ সাহারা। সাহারার চলচ্চিত্র জগতে পথচলা শুরু হয়েছিল শাহাদাত হোসেন লিটন পরিচালিত 'রুখে দাঁড়াও' ছবির মাধ্যমে। অনেক পরিশ্রম করে ঢাকার চলচ্চিত্রে নিজেকে প্রথম সারির নায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেন এই অভিনেত্রী। শাকিব খান এর সাথে তার জুটি সর্বাধিক জনপ্রিয়তা পায়।

২০০৬ সালে শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের বিপরীতে 'প্রিয়া আমার প্রিয়া' ছবিতে অনবদ্য অভিনয় করে সেরা নায়িকার আসন দখল করে নেন তিনি। এরপর প্রচুর হিট ছবি উপহার দিতে থাকেন। তারপরই হঠাৎ করে কোথায় যেন হারিয়ে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

নেই তারপরে একদমই নেই। জানা যায় সাহারা এখন পুরো সাংসারিক। পাশাপাশি একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে তার। পুলিশ প্লাজায় অবস্থিত এই কাপড়ের এই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নাম 'সাহারা ফ্যাশন হাউজ।' চলচ্চিত্রে ফেরার সম্ভাবনাও নেই বলে জানিয়েছিলেন তাঁর স্বামী স্বামী মাহবুবুর রাহমান মনির।

তবে সম্প্রতি সাহারাকে দেখা গেল বিএফডিসিতে। শুধু দেখাই নয়, রীতিমতো নাচের অনুশীলনে উপস্থিত এই নায়িকা। তার বিপরীতে নাচছেন নায়ক জায়েদ।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে চিত্রনায়ক জায়েদ খান কালের কণ্ঠকে বলেন, সাহারা চলচ্চিত্রে ফিরবে কি না সেটা নিশ্চিত নয়, তবে আমরা দুজন জুটি বেঁধে একটি নাচের রিহার্শেল করছি। আসন্ন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে আমরা দুজন জুটি বেঁধে পারফর্ম করবো।

বাবার নামে গানের স্কুল করলেন সামিনা চৌধুরী

বাবার নামে গানের স্কুল করলেন সামিনা চৌধুরী

https://scontent.fdac17-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/12717823_10154017166344073_3614167238743776691_n.jpg?_nc_cat=0&oh=afc50559a5ef1b528fc887c59d2723f8&oe=5BE17DE8
  
বাবার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানিয়ে ‘মাহমুদুন্নবী সংগীত নিকেতন’ নামে গানের স্কুল করার ঘোষণা দিয়েছেন সামিনা চৌধুরী। চলতি মাস থেকেই শুরু হবে স্কুলের কার্যক্রম। আপাতত নিজের বাসায় শুরু করলেও ভবিষ্যতে এটিকে আরো বড় আকারে করার পরিকল্পনা আছে।
 সামিনা চৌধুরী বলেন, ‘আধুনিক সঙ্গীত নিকেতন নামে বাবার একটা গানের স্কুল ছিল। আমি নিজেও বাসায় গান শেখাই। তবে কোনো নাম নেই। বাবার সেই স্কুলের নামের সঙ্গে মিল রেখেই নামটি দিয়েছি। বাবার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতেই এ উদ্যোগ। অনেক বছর ধরে বিষয়টি ভাবলেও বাস্তবায়ন শুরু করেছি এবার। আমার কাছে আপাতত চারজন শিক্ষার্থী গান শিখছে। তাদের এই নামের আওতায় নিয়ে আসব। সঙ্গে নতুনদেরও ভর্তি করাব।’
তিনি আরো বলেন, ‘ফলে বাবার নামটিও নতুন প্রজন্মের শিল্পীরা জানতে পারবে। তাঁর সংগীতকর্ম সম্পর্কে ধারণা পাবে। আপাতত নিজেই শেখাব। পরিসর বেড়ে গেলে ভবিষ্যতে হয়তো অন্য পরিকল্পনা করব।’
 

ব্রাজিলই পাবে এবাররের বিশ্বকাপ - রবি চৌধুরী


দেশের স্বনামধন্য সঙ্গীত শিল্পী রবি চৌধুরী বিশ্ব কাপ ফুটবলে ব্রাজিল সমর্থক। তার প্রিয় দল ব্রাজিল নিয়ে তিনি জানান, আমি বরাবরই ব্রাজিল সমর্থক। এ দলটির খেলা আমাকে যেমন আবেগে ভাসায় তেমনি ভাসায় উচ্ছ্বাসে। সর্বশেষ নকআউট ম্যাচে ব্রাজিল মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। ম্যাচটি দেখে মনে হয়েছে, ব্রাজিল তাদের ছন্দে ফিরেছে। এর অপেক্ষাতেই ছিলাম। পুরো ম্যাচেই কিন্তু ব্রাজিল ছিল আক্রমণাত্মক। 

 মেক্সিকোর গোলরক্ষক খুব ভালো হওয়ায় ব্যবধানটা আর বাড়েনি। শুধু নেইমার নয়, ব্রাাজিলের পুরো টিম এ ম্যাচে পারফর্ম করেছে। অনেক প্রত্যাশা নিয়ে ম্যাচটি দেখতে বসেছিলাম। সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে। আমার বিশ্বাস সামনেও ব্রাজিল নিজেদের গতি ও ছন্দেই খেলবে। এরকম শৈল্পিক ফুটবল খেললে ব্রাজিল এবার বিশ্বকাপ নেবে। সামনে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। বেলজিয়াম অনেক শক্তিশালী দল। বিশেষ করে এবারের বিশ্বকাপে এ দলটি অনবদ্য পারফর্ম করেছে। আমি মনে করি কোয়ার্টার ফাইনালে ব্‌্রাজিল-বেলজিয়ামের খেলাটি আরো উত্তেজনাপূর্ণ হবে। একটা ভালো লড়াই হবে। তবে আমি সেই ম্যাচেও ব্রাজিলকেই এগিয়ে রাখবো। কারণ ব্রাজিলের প্রতিটি খেলোয়াড়ই ভালো খেলছে। এই ধারাবাহিকতাটা সামনের ম্যাচেও থাকবে বলে বিশ্বাস করি। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে এবার বিশ্বকাপ পাবে ব্রাজিলই। 

‘ঝুম’ চলচ্চিত্রের মূল গল্প আমাকে কেন্দ্র করেই

https://2.bp.blogspot.com/--v7RA_STcgY/WOIp0H53kiI/AAAAAAAAAKQ/z9ERVCohhF06mbnsYsFbVCv9tuf6Kz2oACLcB/s1600/16105878_385300055158527_3869590095415959874_n.jpg 

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা তমা মির্জা একের পর এক নতুন নতুন চলচ্চিত্রে কাজ করলেও এতদিন পর নিজের মনের মতো একটি গল্পের নায়িকা হতে পেরেছেন।

প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে জুটি হচ্ছেন চলচ্চিত্র ও নাটকের জনপ্রিয় মুখ আনিসুর রহমান মিলন ও তমা মির্জা। ছবিটি নির্মাণ করবেন নাট্য নির্মাতা সুমন রেজা। ছবিটির নাম 'ঝুম'। চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন জামশেদ শামীম। ছবিটি প্রযোজনা করবেন ক্যাপ্টেন শাহ আলম।

এতে অভিনয় এ প্রসঙ্গে আনিসুর রহমান মিলন বলেন,‘ সুমনা রেজা একজন ভালো নির্মাতা। অনেক দিন ধরেই ছবি নির্মাণের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। গল্পটি আমি পড়েছি। ভালো লেগেছে। আশা করি নির্মাণও ভালো হবে।’

 ‘ঝুম’ চলচ্চিত্রের মূল গল্প আমাকে কেন্দ্র করেই এগিয়ে যাবে। যে কারণে এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য আমাকে একটু বাড়তি প্রস্তুতিই নিতে হচ্ছে। আমি খুব আশাবাদী চলচ্চিত্রটি নিয়ে। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কী হয়।  

নতুন চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রসঙ্গে সুমন  রেজা বলেন ‘ চলচ্চিত্র নির্মাণ একটি স্বপ্নের জায়গা আমার। দীর্ঘদিন ধরেই তাই নাটক নির্মাণের পাশাপাশি চলচ্চিত্র নির্মাণের প্রস্তুতি নিয়ে আসছিলাম। মিলন ও তমা মির্জা ছাড়াও শিল্পী নির্বাচনে থাকবে বেশকিছু চমক। সম্পূর্ণ মৌলিক গল্পের এই চলচ্চিত্র দিয়ে আশা করি আমরা দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারব।’ গল্পের প্রয়োজনে ছবিটিতে দেশের ও দেশের বাইরে বড় কোন তারকাকে হাজির করা হবে বলেও জানান পরিচালক। ইতোমধ্যেই ছবিটির শুটিং শুরুর প্রস্তুতি শেষ। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই শুটিং শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিচালক সুমন রেজা।

পূজার অভিনয়ে বিস্মিত শাবনূর

'পূজার অভিনয় আমাকে মুগ্ধ করেছে। এতো অল্প বয়সে ও এতো ভালো অভিনয় করেছে যা সত্যিই বিস্ময়কর, ওর আমি রীতিমতো ভক্ত হয়ে গেছি।' কথাগুলো বলছিলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়য়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবনূর। 

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার সিনেমাস-এ ঈদে মুক্তি পাওয়া পোড়ামন-২ চলচ্চিত্রের গেট টুগেদার অনুষ্ঠানে কালের কণ্ঠের সাথে আলাপকালে শাবনূর এ কথা বলেন। 

শাবনূর নির্মাতার প্রশংসা করে বলেন, 'নতুন নির্মাতা হিসেবে রায়হান রাফি খুবই চমৎকার একটি ছবি উপহার দিয়েছে। দর্শকেরাও ছবিটি উপভোগ করছেন বলেই শুনেছি। সিয়ামের অভিষেক সিনেমা হিসেবে বলবো সে অনেক ভালো করেছে।'

জাজ মাল্টিমিডিয়া আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে চিত্রনায়ক ওমর সানী, চিত্রনায়িকা মৌসুমী, মৌসুমী হামিদ, মুমতাহীনা চৌধুরী টয়া, নির্মাতা দীপংকর দীপন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ, কুশীলব সিয়াম, পূজা, বাপ্পারাজ ও শিশু শিল্পী নমনী এবং সামির খান।

লোপা হোসেইনের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘শেকল’

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী লোপা হোসেইনের  আগে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র এবং একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছেন। আবারো তিনি নতুন একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন। সমাজের ভিন্নক্ষেত্রে অবস্থানকারী দু’জন নারীর গল্প নিয়ে নির্মাণাধীন এ চলচ্চিত্রের নাম ‘শেকল’। গল্পের সেই দু’জন নারী সামাজিকভাবে আলাদা অবস্থানে থাকলেও মূলত একই জায়গায় দাঁড়িয়ে। কারণ, তারা নারী। তবে এটাও সত্য যে নারীরা যদি একে অপরের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে অবশ্যই বহুদিনের বৈষম্যের শেকল ভাঙতে পারবে। 

 এমনটা বিশ্বাস করেন নির্মাতা লোপা হোসেইন। তাই তিনি ছোট্ট একটি ঘটনা অবলম্বনে নিজের সংলাপ, চিত্রনাট্য ও নির্দেশনায় নির্মাণ করেছেন ‘শেকল’। সুস্মিতা সিনহা ও ফারিহা হোসেন নীলিমাকে নিয়ে  সোমবার রাজধানীর উত্তরার বিভিন্ন লোকেশনে লোপা এই চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের কাজ শেষ করেছেন। এতে দু’জনের মধ্যে একজন গায়িকা এবং অন্যজন পতিতা চরিত্রে অভিনয় করেছেন। 

চলে গেলেন মাইকেল জ্যাকসনের বাবা

চলে গেলেন মাইকেল জ্যাকসনের বাবা

http://www.mzamin.com/news_image/123281_jacson.jpg 

চলে গেলেন পপ গানের সম্রাাট মাইকেল জ্যাকসনের বাবা জো জ্যাকসন। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৮৯ বছর।  জানা যায়, লাস ভেগাসে জো জ্যাকসনের শেষ দিনগুলো কেটেছে অসুস্থতায়। বুধবার ভোরে হঠাতই সেরিব্রাল অ্যাটাক হলে হাসপাতালে ভর্তির কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। এক টুইটে জো’র মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন তার নাতি। ‘পাপা জো’ নামে খ্যাত জো জ্যাকসন মাইকেল জ্যাকসনসহ মোট চার ছেলে-মেয়ে স্টেজে গান গাইতেন। 

 

‘জ্যাকসন-ফাইভ’ নামে সেই দল ছিল বিশ্ববিখ্যাত। ১৯৬৯ সালে বিশ্বের সবচেয়ে চাহিদাসম্পন্ন ব্যান্ড ‘জ্যাকসন-ফাইভ’ যার পরবর্তী নাম হয় জ্যাকসনস। জ্যাকসনসের সবচেয়ে ভালো পারফর্মার ছিলেন মাইকেল জ্যাকসন। আর তাই তাকে প্রচারের শীর্ষে আনতে কোনো বাধা মানেননি জো জ্যাকসন। তবে, বাবা জো জ্যাকসন কঠোর শাসনে রাখতেন মাইকেল জ্যাকসনকে। জীবদ্দশায় নিজের সাফল্যের পেছনে বাবার বিরাট ভূমিকার কথা স্বীকার করে গিয়েছিলেন মাইকেল। 

আসছে ‘থ্রি ইডিয়টস’ এর সিকুয়েল

আসছে ‘থ্রি ইডিয়টস’ এর সিকুয়েল

http://images.assettype.com/swarajya/2017-01/eebb9650-d032-4432-80ef-b16f940f9bbe/3-idiots-sequel-1.jpg?w=1280&q=100&fmt=pjpeg&auto=format 

‘থ্রি ইডিয়টস’ এর সিকুয়েল আসছে খুব শিগগিরই। এমনটাই জানিয়েছেন ছবিটির পরিচালক রাজকুমার হিরানী। বর্তমানে তার নতুন ছবি ‘সঞ্জু’ মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এর আগে অনেক ছবি তৈরি করলেও রাজকুমার হিরানী আগে কখনো বায়োপিক পরিচালনা করেননি। ‘সঞ্জু’ তার পরিচালিত প্রথম বায়োপিক। এটি অভিনেতা ও তার বন্ধু সঞ্জয় দত্তের জীবন নিয়ে তৈরি। 

 ‘মুন্না ভাই এমবিবিএস’ রাজকুমার হিরানী পরিচালিত প্রথম ছবি। এই ছবিতে ‘মুন্না ভাই’ চরিত্রে হাজির হন সঞ্জয় দত্ত। অনেক বছর পর এই ছবি সঞ্জয়কে দর্শকদের কাছে নতুন করে নিয়ে আসে। এই ছবির সিকুয়েল ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’ও অনেক জনপ্রিয় হয়েছে। দর্শক এই ফ্র্যাঞ্চাইজির আরও সিকুয়েল দেখতে চান। একই পরিচালকের ব্লকবাস্টার ছবি ‘থ্রি ইডিয়টস’ ও ‘পিকে’র সিকুয়েলের জন্যও উন্মুখ হয়ে আছেন দর্শক। 
 
গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, রাজু এই দুটি ছবির সিকুয়েল তৈরির কথা ভাবছেন। সম্প্রতি এ সম্পর্কে কথা বলেছেন তিনি। এই পরিচালক বলেন, আমার মাথায় কিছু আইডিয়া আছে। কিন্তু সেগুলো খুব  বেশি দূর এগোয়নি। আমি অবশ্যই ‘থ্রি ইডিয়টস’ ছবির সিকুয়েল তৈরি করতে চাই। কারণ, এই ছবি নিয়ে আমার অনেক ভালো অভিজ্ঞতা আছে। আমি আর ছবির সহলেখক অভিজাত যোশী এই সিনেমার সিকুয়েল লিখতে বসেছিলাম একবার। আমরা গল্পের আইডিয়া পেয়েছি। কিন্তু তা নিয়ে আরও অনেক কাজ করা বাকি। আমি হুটহাট কিছু লিখে না ফেলে অনেক সময় ধরে চিত্রনাট্য তৈরি করায় বিশ্বাসী। ছবির গল্পের ব্যাপারে কোনো ছাড় দিতে চাই না। তবে খুব শিগগিরই আসবে ‘থ্রি ইডিয়টস’ এর সিকুয়েল।

ইরানের ফারাবি সিনেমা ফাউন্ডেশনের পরিচালকের সাথে অনন্ত জলিল

সিনেমা অভিনেতা, নির্মাতা এবং প্রযোজক অনন্ত জলিল ইরানের ফারাবি সিনেমা ফাউন্ডেশনের পরিচালক আলিরেজা তাবেশের সঙ্গে সোমবার একটি বৈঠক করেছেন। তার সঙ্গে জলিল ইসলামের শান্তির বিষয়টি নিয়ে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের বিষয়ে কথা বলেছেন। চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে ফারাবি ফাউন্ডেশন এর সহযোগিতা চেয়েছেন জলিল। এক বিবৃতিতে এমনটাই জানিয়েছে ফারাবি ফাউন্ডেশন।

বিবৃতিতে আলিরেজা তাবেশ বলেন, ‘এটা খুবই আনন্দের বিষয় যে আপনি বর্তমান বিশ্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু নিয়ে কাজ করতে চান। বিশ্ব চলচ্চিত্র এবং আমাদের আঞ্চলিক চলচ্চিত্র শিল্পেরও উচিত এই বিষয়ে কাজ করা।’

‘আমরাও বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথ সিনেমা প্রকল্পে কাজ করতে আগ্রহী। তবে প্রথমেই এমন একটি চিত্রনাট্য লিখতে হবে যেটা দুপক্ষকেই সন্তুষ্ট করবে।’

তাবেশ আরো বলেন, দুটো দেশেই চলচ্চিত্রের ভক্ত আছে প্রচুর। আর দুটি দেশের চলচ্চিত্রই বিশ্ব বাজার ও আঞ্চলিক বাজারের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম।

অনন্ত জলিল বলেন, তিনি বিশ্বের কাছে ইসলামের সত্যিকার চিত্র এবং শান্তির ইসলামের চেহারাটি তুলে ধরতেই একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে চান।

‘আমি আমার ধারণা এবং চিন্তাগুলো ইরানের কাছে নিয়ে এসেছি, সেগুলোকে একটি চলচ্চিত্রে রুপদানের জন্য। ইয়েমেন ও সিরিয়ায় অসংখ্য মুসলিম যন্ত্রণায় ভুগছে। অথচ ইসলাম হলো একটি শান্তি ও বন্ধুত্বের ধর্ম।’

জলিল আরো বলেন, ‘পুরো চলচ্চিত্রটি তিনি ইরানেই নির্মাণ করতে চান। এবং ইরানের সৌন্দর্য্য পুরো বিশ্ব এবং নিজ দেশের মানুষের সামনে তুলে ধরতে চান।’

সূত্র: তেহরান টাইমস