জীবনে ধনী হতে চাইলে একবার হলেও পোস্টটি পড়ুন


আজকে আপনাদের সামনে আমি কয়েকটি দিক নিয়ে আলোচনা করবো যেগুলো মেনে চলতে পারলে আপনি জীবনে সহজেই ধনী হতে পারবেন।

১) আপনি ভাবতে পারেন যে, আপনার লাইফের তো গোল সেট করাই আছে তাহলে আমি আবার নতুন করে কি বলতেছি।এই কোনো দীর্ঘ মেয়াদী গোল না। যেমন ধরুন, আপনি আপনি
লেখা পড়া করতেছেন ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার উদ্দেশ্যে। এটা একটা লং টার্ম গোল। কিন্তু আমি বলতেছি আপনার প্রতিদিন এর কাজে গোল সেট করার কথা। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে
উঠেই একটা লিস্ট করে ফেলুন আজ সারাদিন কি কি করবেন? তাহলে দেখবেন আপনার কাজ করা অনেক সহজ হয়ে গেছে।

২) শোনার অভ্যাস ঘরে তুলুন। এটা আপনাকে সফল করার অনেক গুরুত্বপূর্ন। আপনি যদি কোনো ব্যব্যসা শুরু করেন, তাহলে
নিয়মিত আপনার কর্মচারীদের নিয়ে আলোচনা করুন। অন্যের কথা শুনার মাধ্যামে আপনি অনেক কিছুই শিখতে পারবেন।

৩) অনেকি কাজের চাপে এতো ব্যাস্ত থাকে যে, নিজের স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিতে ভুলে যায়। নিয়মিত ব্যায়াম করুন। এটা শুধু আপনার স্বাস্থ্য না, আপনার মনকেও ফ্রেশ রাখবে।

৪) এটা অনেক গুরুত্বপূর্ন একটা দিক। নিজের একটা নেটওয়ার্ক ঘরে তুলুন। আর চেস্টা করুন অন্যেকে সাহায্য করতে। এটা
আপনার পরিচিতি বাড়িয়ে দিবে।আর এটা আপনাকে অনেক হেল্প করবে।
         
৫) যতটা সম্ভব পারেন কম টিভি দেখুন। কারন এটা শুধু আপনার সময়েরই অপচয় করে।বেশীরভাগ সফল ব্যক্তিগন দিনে এক
ঘন্টার বেশি টিভি দেখে না।আর অনেক তো একেবারেই টিভি দেখে না।তাই আবারো টিভির সামনের বসে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় নস্ট না করে, ওই সময়টা কাযে লাগান।

৬) যত পড়বেন তত শিখবেন। আমি আপনাকে টেক্সট বুক পরতে বলছিনা। আপনি যে কাজ করেন সেই কাজ এর বই গুলা পড়ুন।
আর পারলে একটা নির্দিষ্ট সময় করে নিন পড়ার জন্য। আর চেষ্টা করুন বিভিন্ন নিউজ অথবা ব্লগের সাথে নিজেকে আপডেটা রাখতে যাতে সব কাজের লেটেস্ট আপডেট আপনার কাছে থাকে।

৭) আপনি কতটুকু শিখছেন সেটা যাচাই করুন। এটা আপনের ভুলগুলি খুজে বের করতে সাহায্য করবে।সবসময় চেস্টা করুন নির্ভুলভাবে কাজ করতে। আর এ জন্যই আপনার যোগ্যতা
যাচাই করে খুব জরুরী।

৮) আপনাকে অবশ্যই পজেটিভ মাইন্ডের হতে হবে। সবসমই চেস্টা করবেন কাজের ভালো দিকটা খুজে বের করতে। এর মাধ্যমে
আপনি সবার কাছে আরো বেশী ফ্রেন্ডলি হয়ে উঠবেন।আর এটা আপনাকে একটা নতুন সুযোগ দিবে।

৯) গবেষনায় দেখা গেছে যাদের মধ্যে টাকা সেভ করার গুন রয়েছে। তাদের মধ্যে সফলতার হার বেশি। সবকিছু পরিকল্পনামাফিক করুন। আর চেস্টা টাকাটা হিসেবমতো খরচ
করতে। তবে দেখবেন ভাই, কেও যেনো আপনাকে কিপ্টা না বলে

১০) সফল ব্যক্তিদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন।আর তাদের কাছ থেকে সফল হওয়ার সেই গোপন ফর্মুলাগুলো জেনে নিন।
তাদের কাছ থেকে আপনি অনেক টিপস্ পাবেন।

/তারকানিউজ



EmoticonEmoticon