শহীদুজ্জামান সেলিমের নির্দেশনায় নওশীন ও অর্ষা


বন্ধুক হাবিবকে দেখে চেনার উপায় নেই যে তিনি অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিম। শুটিং লোকেশনে তাই শুরুতে তাকে দেখে চেনার উপায় ছিলো না যে তিনিই শহীদুজ্জামান সেলিম। কারণ বন্ধুক হাবিব হওয়ার জন্য তিনি একেবারেই ভিন্ন একটি গেটআপ নিয়েছেন। নিজের নির্দেশিত টেলিফিল্ম ‘এরই নাম প্রেম’-এ সেলিম এই গেটআপ নিয়েছেন।

যেহেতু টেলিফিল্মটি রোমান্টিক কমেডি ঘরানার তাই তার এই গেটআপ নেয়া। এতে প্রথম বারের মতো তার নির্দেশনায় অভিনয় করেছেন নওশীন ও অর্ষা। নওশীন অভিনয় করেছেন ফরিদা চরিত্রে এবং অর্ষা অভিনয় করেছেন তাহিয়া চরিত্রে।

আসছে ঈদে বাংলা টিভিতে প্রচারের জন্য শহীদুজ্জামান সেলিম টেলিফিল্মটি নির্মাণ করেছেন। নিজের নির্মিত এই টেলিফিল্মটি প্রসঙ্গে সেলিম বলেন, আমার এই টেলিফিল্মে যারা অভিনয় করেছেন তারা প্রত্যেকেই যার যার চরিত্রে অসাধারণ অভিনয় করেছেন। নওশীন এবং অর্ষা আমার নির্দেশনায় প্রথম অভিনয় করেছে। দু’জনই বেশ ভালো অভিনেত্রী। যে কারণে তাদের অভিনয়ে তৃপ্ত আমি। আমার পূর্ণ বিশ্বাস টেলিফিল্মটি দর্শকের ভালো লাগবে।

এতে অভিনয় প্রসঙ্গে নওশীন বলেন, সহশিল্পী হিসেবে সেলিম ভাইয়ার সঙ্গে এর আগে অভিনয় করেছি। কিন্তু তার নির্দেশনায় এবারই প্রথম অভিনয় করেছি। এককথায় অসাধারণ একজন নির্মাতা। আমি ভীষণ উপভোগ করেছি তার নিদের্শনা। আশাকরি কাজটি দর্শকেরও ভালো লাগবে।

অর্ষা বলেন, অভিনেতা হিসেবে সেলিম ভাই অসাধারণ, এটা সবাই বেশ ভালোভাবেই অবগত। কিন্তু নির্মাতা সেলিম ভাইকে এই প্রথম কাছে থেকে দেখেছি। এতো গুছানো এবং সহযোগিতাপরায়ণ একজন নির্মাতা তিনি, যা ভাবাই যায় না। আমি কাজটি করে ভীষণ তৃপ্ত।

ইরাজ আহমেদ রচিত ‘এরই নাম প্রেম’ টেলিফিল্মটি ছাড়া শহীদুজ্জামান সেলিম এবারের ঈদে আরো একটি নাটক নির্মাণ করেছেন। নাটকের নাম ‘রবিনহুড আসেনাই তাই’। ইরাজ আহমেদ রচিত এই নাটকে অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, হিল্লোল ও নওশীন। আসছে ঈদে এই নাটকটি দেশ টিভিতে প্রচার হবে।


EmoticonEmoticon