শোয়েব আহমেদ আকাশের পরিচালনায় "তুমি ছাড়া নিঃস্ব"

 
আসছে তরুণ নির্মাতা শোয়েব আহমেদ আকাশের রচনা ও পরিচালনায় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচিত্র "তুমি ছাড়া নিঃস্ব" এতে অভিনয় করেন সেতু হায়দার ,নীল চৌধুরী,সুজন খান,কাজী উজ্জ্বল,বাপ্পা রাসেল,জাফর খান সহ আরো অনেকে।
শর্টফিল্ম টির চিত্রগ্রহণে ছিলেন ইসমাইল হোসেন লিটন এবং মেকাপ ম্যান ফয়সাল মাহমুদ রিয়েল।



সম্প্রতি  উত্তরার শুটিং হাউজ নীলাঞ্জনা এবং দিয়া বাড়িতে এর শুটিং শেষ হয়। পরিচালক আকাশ জানান,খুব শিগ্রই ইউটিউবে এটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে।  তিনি আরো জানান, সবাই অনেক পরিশ্রম করেছি সুন্দর ভাবে কাজ শেষ করার জন্যে। আশা করি শর্টফিল্মটি সবার ভালো লাগবে।



উল্লেখ্য,  এর আগেও বেশ কিছু শর্টফিল্ম ও মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেন তরুণ নির্মাতা শোয়েব আহমেদ আকাশ,
 যা সবার বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে।


চলে গেলেন বাংলা লোকগানের জনপ্রিয় শিল্পী বারী সিদ্দিকী

https://media.priyo.com/image/upload/q_auto,w_900/img/files/201711/bari-siddiki-priyo-909058498.jpg

প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী ও বংশীবাদক বারী সিদ্দিকী আর নেই। আজ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা নাগাদ রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে তিনি মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে আর অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বারী সিদ্দিকী বাংলাদেশ টেলিভিশনে সংগীত পরিচালক ও মুখ্য বাদ্যযন্ত্রশিল্পী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বড় ছেলে সাব্বির সিদ্দিকী নিউজ বাংলাকে জানান, বারী সিদ্দিকীকে দাফন করানোর জন্য রাতেই মোহাম্মদপুরে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে মরদেহ শুক্রবার সকাল ৭টায় ধানমন্ডি ১৪ /এ সড়কে তাঁর বাসায় নিয়ে যাওয়া হবে। বারী সিদ্দিকীর সকাল সাড়ে ৯টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে প্রথম জানাজা হবে, সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ টেলিভিশন ভবনে দ্বিতীয় জানাজা হবে। বাদ আসর তৃতীয় ও শেষ জানাজা হবে নেত্রকোনা সরকারি কলেজে। এরপর বারী সিদ্দিকীকে নেত্রকোনার কারলি গ্রামে ‘বাউল বাড়ি’তে দাফন করা হবে।


বারী সিদ্দিকী গত দুই বছর ধরে কিডনি সমস্যায় ভুগছিলেন। তাঁর দুটি কিডনি অকার্যকর ছিল। তিনি বহুমূত্র রোগেও ভুগছিলেন। গত ১৭ নভেম্বর রাতে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এরপর তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, তখন তিনি অচেতন ছিলেন। তাঁকে দ্রুত নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়।

সাব্বির সিদ্দিকী নিউজ বাংলাকে বলেন, ‘গত বছর থেকে সপ্তাহে তিন দিন কিডনির ডায়ালাইসিস করছেন বারী সিদ্দিকী। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে যান। সেখান থেকে রাত ১০টা নাগাদ বাসায় ফেরেন। তখনো তিনি স্বাভাবিক ছিলেন। কোনো অসুস্থতার কথা বলেননি। গভীর রাতে হঠাৎ তিনি গুরুতর হৃদরোগে আক্রান্ত হন। মুহূর্তেই অচেতন হয়ে পড়েন।’


Bari Siddique

বারী সিদ্দিকীর অন্যতম শিষ্য জলের গানের শিল্পী রাহুল আনন্দ বলেন, ‘গুরুজির অসম্ভব মনের জোর। অনেক দিন থেকে কিডনির সমস্যায় ভুগছেন। কিন্তু দেখে কিংবা কথা বলে তা বোঝার উপায় ছিল না। তিনি গান গেয়ে গেছেন। এই তো সেদিন হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন উপলক্ষেও টিভি চ্যানেলে তিনি গান গেয়েছেন, কথা বলেছেন।’

১৯৯৯ সালে দীর্ঘদিন সংগীতের সঙ্গে জড়িত থাকলেও সবার কাছে বারী সিদ্দিকী সংগীতশিল্পী হিসেবে পরিচিতি পান। ওই বছর হুমায়ূন আহমেদের ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ ছবিটি মুক্তি পায়। এই ছবিতে তিনি ছয়টি গান গেয়েছেন। তাঁর জনপ্রিয় হওয়া গানগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘শুয়াচান পাখি আমি ডাকিতাছি তুমি ঘুমাইছ নাকি’, ‘পুবালি বাতাসে’, ‘আমার গায়ে যত দুঃখ সয়’, ‘ওলো ভাবিজান নাউ বাওয়া’, ‘মানুষ ধরো মানুষ ভজো’। এরপর তিনি চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করেছেন। তাঁর গাওয়া গান নিয়ে বেরিয়েছে অডিও অ্যালবাম।

‘ককপিট’ নিয়ে ঢাকা আসছেন দেব

‘ককপিট’ নিয়ে ঢাকা আসছেন দেব

‘ককপিট’ নিয়ে ঢাকা আসছেন দেব
 
ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রের নায়ক জনপ্রিয় নায়ক দেব অভিনীত ‌‘ককপিট’ ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী ৮ ডিসেম্বর (শুক্রবার)। তার তিনদিন আগেই ছবির প্রচারণা ও সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিতে ৫ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) ঢাকা আসছেন তিনি।
 
সাফটা চুক্তির আওয়াত ‘ককপিট’ বাংলাদেশে মুক্তি দিচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। বিনিময়ে কলকাতায় মুক্তি পাবে ‘ধ্যাততেরিকি’ চলচ্চিত্র। প্রতিষ্ঠানটি কর্ণধার আবদুল আজিজ দেবের ঢাকায় আসার খবর নিশ্চিত করেছেন।
 
আবদুল আজিজ তার ফেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেখানে দেবকেও দেখা গেছে। টলিউডের এই খোকাবাবু জানান, ৮ ডিসেম্বর (শুক্রবার) বাংলাদেশে ‘ককপিট’ ছবির মুক্তি উপলক্ষে ৫ তারিখ (মঙ্গলবার) ঢাকা আসছেন তিনি। সবার সঙ্গে কুশল বিনিময় হবে বলেও জানান দেব।
 
দূর্গাপূজা উপলক্ষে গত ২২ সেপ্টেম্বর কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে ‘ককপিট’। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন দেব নিজেই। দেব ছাড়াও ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কোলেল মল্লিক, রুক্সিণী, বাংলাদেশের রোশান, ফারিন প্রমুখ।
 
‘ককপিট’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন ওপারের জনপ্রিয় পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়। দেব ও কমলেশ্বর জুটির এটি তৃতীয় চলচ্চিত্র। এ ছবিটিতে দেব বিমানচালকের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।
বিবাহিত সালমান খান, স্ত্রী-সন্তান বিদেশে!

বিবাহিত সালমান খান, স্ত্রী-সন্তান বিদেশে!

http://ste.india.com/sites/default/files/2016/07/18/510337-salman-khan-wedding.jpg

সালমান খান কবে বিয়ে করবেন? তার বিয়ে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার কোনো শেষ নেই। বলিউডের অন্যতম 'এলিজিবল ব্যাচেলর' বলা হয় তাকে।

কিন্তু, সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সূত্র থেকে একটু অন্যরকম দাবি করা হচ্ছে সালমানের বিয়ে নিয়ে। ইন্ডিয়া ডট কমের তথ্য মতে, সম্প্রতি সালমানের বিয়ে নিয়ে সোশ্যাল সাইটে বেশ কিছু তথ্য ছড়ানো হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কিছু মানুষ নাকি দাবি করেছেন, সালমান বিবাহিত। তার স্ত্রী ভারতীয় নন, তিনি বিদেশে থাকেন। এমনকী, সালমানের নাকি এক সন্তানও রয়েছে।

এমনকি সালমানের স্ত্রী-সন্তানের কথা তার কাছের মানুষরা জানেন বলেও দাবি করা হয়েছে। পাশাপাশি সালমান কেন বিয়ে করতে পারেন না? তিনি তো একজন মানুষ। তাই তারও স্ত্রী-সন্তান থাকতে পারে- এমন মতামতও শোনা যাচ্ছে। তিনি কি আসলেই বিয়ে করেছেন এই ব্যাপারে সালমানের কোনো মতামত পাওয়া যায়নি।

সম্পর্ক নিয়ে বরাবরই বেশ খোলামেলা সালমান খান। সে ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে ব্রেকআপের পর বিবেক ওবেরয়কে হুমকি দেওয়া হোক কিংবা ক্যাটরিনার জন্য রণবীরের সঙ্গে সম্পর্ক তলানিতে পৌঁছে যাওয়া, সব সময়ই জীবনকে প্রায় ‘খোলা খাতা’-র মতো প্রকাশ করা সালমান কি না বিয়েটাই সেরে ফেললেন চুপি চুপি! সূত্র: ইন্টারনেট
আবারো দুই নাটকে একসঙ্গে তারা

আবারো দুই নাটকে একসঙ্গে তারা

আবারো দুই নাটকে একসঙ্গে তারা 

চলচ্চিত্রের পাশাপাশি এখন ছোটপর্দাতেও নিয়মিত ব্যস্ত ইমন। অন্যদিকে অভিনেত্রী বাঁধন মাঝে বিরতি শেষে শুটিং নিয়ে ঠিক আগের মতোই যেন ব্যস্ততায় ফিরেছেন। সম্প্রতি এই দুজন জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পীকে নিয়ে নির্মাতা কাজী সাইফ নির্মাণ করলেন তার দুটি নতুন নাটক।
 
‘নিরুদ্দেশ ভালোবাসা’ ও ‘অদ্ভুত মায়াজাল’ শিরোনামে নাটকগুলো গল্প লিখেছেন সৈয়দ ইকবাল। এর আগে ২০১৫ সালে একসঙ্গে একটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন তারা। এরপর দীর্ঘ বিরতির পর আবারো একসাথে অভিনয় করলেন তারা।
 
তিনমাস পর ফেরা ও নাটকটি প্রসঙ্গে বাঁধন বলেন, ‘তিনমাস পর ক্যামেরার সামনে দাড়ালাম। এখন  থেকে ফের নিয়মিত কাজ করব। দুটি নাটকের গল্পই দারুন। আমি আর ইমন কাজ করলাম। ব্যক্তি জীবনেও ইমন আমার ভালো বন্ধু। ওর সঙ্গে কাজের বোঝাপড়াটাও ভালো। তাই কাজ করে  ভালো লেগেছে।’
 
ইমন বলেন, ‘অনেকদিন পর  বাঁধনের সঙ্গে দুটি নাটকে কাজ করলাম। গল্পের প্রয়োজনেই আমরা জুটি হয়েছি। দারুন ভালো দুটি কাজ।  আশা করি দর্শকরা নাটক দুটি  দেখে আনন্দ পাবেন।’


এ যেন নতুন সালমান শাহ ( ভিডিও)




দেশীয় চলচ্চিত্রের আকাশে ক্ষণজন্মা নক্ষত্র সালমান শাহ । আজ অবধি সিনেমাপ্রেমীদের অন্তরে দীর্ঘশ্বাসের সঙ্গে উচ্চারিত হয় সালমান শাহের নাম। ইদানিং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেইসবুক এবং ইউটিউবে কিছুটা সালমান শাহ এর মতো দেখতে বেশ কিছু ভিডিও চোখে পরে "তারকানিউজের" সাথে কথা হয়  আলোচিত সেই ব্যক্তির সাথে  যার আসল নাম তাওহীদ খান।

 কেমন আছেন?

:আলহামদুলিল্লাহ বেশ ভাল আছি,আপনি?

জী ,ভালো। আপনার পরিচয় জানতে পারি কি?

:জী  অবশ্যই,আমি তাওহীদ,বর্তমানে নিউইয়র্কের ব্রুকলিনে একা থাকি,আমার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর পাপুয়া গ্রামে।আমরা তিন ভাই ও এক বোন। কয়েক বছর আগে আমার বাবা না ফেরার দেশে চলে যান।  পরিবারের বড় ছেলে হিসেবে হাল ধরতে হয় আমাকেই,তাই পারি জমায় আমেরিকায়। এখানে আমি একটা কোম্পানিতে চাকুরী করছি। 

আচ্ছা এত নায়ক থাকতে আপনি সালমান শাহকে কেন অনুসরন এবং অনুকরণ করেন বা কেন তার মতো  হতে চান?

: আসলে খুব বেলায় যখন সালমান শাহ এর ছবি দেখতাম তখন থেকে উনাকে খুব ভালো লাগতো,আর আমার মা বলতো আমি যখন উনাকে গুন্ডারা মারতো তখন নাকি আমি কান্না করতাম। আর এ প্রজন্মের কাছে এখনো সালমান শাহ  অনেক জনপ্রিয়। 


        

আপনি কি আগে অভিনয় করেছেন?

: না,আমি আগে কখনো অভিনয় বা মডেলিং করেনি। ভাল লাগা থেকেই সালমান শাহ  এর লুকে ভিডিও বানাই।

বাংলা ছবিতে কাজ করার কোন ইচ্ছা আছে কি?

:আসলে পরিবারের বড় ছেলে হিসেবে আমার দায়িত্বটা অনেক বেশি,আমি এসব নিয়ে ভাবি না আমার নির্দির্ষ্ট উদ্দেশ্য আছে। আর যদি কোনদিন  এরকম কোন সুযোগ পায় তাহলে অবশ্যই কাজ করবো।

ফেইসবুকে কেমন সারা পাচ্ছেন?

:ফেইসবুকে অনেকেই ম্যাসেজ দিচ্ছে,আর এত এত ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট যা আমি একসেপ্ট করতে পারছিনা। সালমান শাহ এর লুকে বেশ কিছু ভিডিও ফেইসবুকে আপলোড দিয়েছিলাম অনেকেই  বলছে ভাল হয়েছে।

ধন্যবাদ আপনার সাথে কথা বলে ভাল লাগলো।

:আপনাকেও ধন্যবাদ।


             

উল্লেখ্য : ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর অসংখ্য ভক্তকে কাঁদিয়ে অনন্তলোকে পাড়ি জমান। ভাগ্যের ফেরে একই মাসে তার জন্ম ও মৃত্যু। সালমান শাহ ১৯৭১ সালে সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। নায়ক সালমান শাহ অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় কেয়ামত থেকে কেয়ামত, দেন মোহর, তোমাকে চাই।

১৯৯৪ সালে মুক্তি পায় বিক্ষোভ ও আনন্দ অশ্রু, চাওয়া থেকে পাওয়া, বিচার হবে। ১৯৯৫ সালে মুক্তি পায় জীবন সংসার, মহা মিলন, স্বপ্নের পৃথিবী, স্বপ্নের ঠিকানা, এই ঘর এই সংসার।

১৯৯৬ সালে মুক্তি পায় কন্যাদান, মায়ের অধিকার, প্রেমযুদ্ধ, সত্যের মৃত্যু নাই, সুজন সাথী, স্বপ্নের নায়ক, তুমি আমার প্রভৃতি। ১৯৯৭ সালে মুক্তি পায় বুকের ভেতর আগুন ও প্রেম পিয়াসী চলচ্চিত্র।

লাইফ সাপোর্টে সঙ্গীতশিল্পী বারী সিদ্দিকী

‘শুয়াচান পাখি আমি ডাকিতাছি তুমি ঘুমাইছ নাকি’ খ্যাত জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী বারী সিদ্দিকীর শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছে। বারী সিদ্দিকীর ছেলে সাব্বির সিদ্দিকী খবরটি নিশ্চিত করেছেন।
চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার দুটি কিডনি অকার্যকর। তিনি বহুমূত্র রোগেও ভুগছেন। শুক্রবার রাতে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এরপর তাকে যখন হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, তখন তিনি অচেতন ছিলেন। তাকে দ্রুত আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।
বারী সিদ্দিকীর ছেলে সাব্বির সিদ্দিকী বলেন, বছর দুই হলো বাবা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন। গতকাল সন্ধ্যায় শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে যান। সেখান থেকে রাত ১০টার দিকে বাসায় ফেরেন। তখনো স্বাভাবিক ছিলেন তিনি। কোনো অসুস্থতার কথা বলেননি। গভীর রাতে হঠাৎ তিনি গুরুতর হৃদরোগে আক্রান্ত হন। মুহূর্তেই অচেতন হয়ে পড়েন। দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হয় তাকে।
দীর্ঘদিন সঙ্গীতের সঙ্গে থাকলেও শিল্পী হিসেবে বারী সিদ্দিকী পরিচিতি পান ১৯৯৯ সালে। ঐ বছর লেখক-নির্মাতা হ‌ুমায়ূন আহমেদের ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ ছবিটি মুক্তি পায়। এই ছবিতে তিনি ছয়টি গান গেয়ে নতুন করে আলোচনায় আসেন।

শীর্ষে সঙ্গীতশিল্পী ইলিয়াস


ঈদকে সামনে রেখে প্রচুর গান মুক্তি পায়। গত ঈদুল আজহাতেও মুক্তি পেয়েছে প্রচুর গান।
এখন অ্যালবামের পরিবর্তে সিঙ্গেল ট্র্যাক মুক্তির ধারা চালু হয়েছে। অ্যালবামের জায়গাটা দখল করেছে মিউজিক ভিডিও। গান ভালো নাকি মন্দ সে বিষয় পরে, অডিও ইন্ডাস্ট্রি চলে এখন ‘হিট’ এর ওপরে। কত হিট করা যায় সেই বিষয়ে এখন মস্তিষ্ক ব্যস্ত অডিও প্রতিষ্ঠানের।
হিটের এই ধারায় সোশ্যাল মিডিয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা যায় অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কর্ণধারদের। ভালো-মন্দ নীতি নির্ধারক না থাকায় কোন গান কত হিট হচ্ছে- আলোচনায় সেটাই মূখ্য হয়ে উঠছে। এক্ষেত্রে প্রোপার মার্কেটিং পলিসিই মূলত একটি গানের ভবিষ্যত নির্ধারণ করে দিচ্ছে।
ভালো-মন্দ মিশিয়েই গান হচ্ছে। কখনো কখনো গানের মান তেমন ভালো না হলেও ভিডিও মনোহর হলেই গান উৎরে যায়।

আবার গান ভালো হলেও গানের ভিডিও ভালো না হলে সেই গান আর দর্শক-শ্রোতারা নিচ্ছেন না। পূর্বে একটি গানের সাথে শুধু ‘শ্রোতা’ বিষয়টি ছিল। এখন শ্রোতার সাথে দর্শক যুক্ত হয়েছে।
গত ঈদুল আজহায় প্রচুর পরিমাণ গান মুক্তি পায়। মুক্তি পায় মিউজিক ভিডিও। এসব গানের মধ্যে বেশকিছু গান হিট হয়েছে। গান হিট বা হিট না হওয়াটা সোশ্যাল মিডিয়ার ওপর নির্ভর করে। সোশ্যাল মিডিয়ার ভিডিও প্ল্যাটফরম এসব গানের হিট পরিমাপ করে। ইউটিউবকে ধরা হয় মানদণ্ড। এসব অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কথা।
গত ঈদুল আজহায় যেসব তারকা কণ্ঠশিল্পীর গান প্রকাশ পেয়েছে তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন-আসিফ আকবর, ইমরান, তাহসান,মিনার, ইলিয়াস ও বলিউডের আরমান খানের বাংলা গান। সবগুলো গানই জনপ্রিয় হয়েছে হিটের বিবেচনায়। তবে হিটের বিবেচনায় হালের সকল জনপ্রিয় গায়ককে অতিক্রম করেছেন ইলিয়াস।

ইলিয়াসের না বলা কথা-৪ মুক্তি পায় গত ঈদে। মিউজিক ভিডিওটি দেখেছেন ৬৭ লাখ। এই গানে ইলিয়াসের সহকণ্ঠশিল্পী ছিলেন অরিন। আসিফের মিউজিক ভিডিও ‘কি করে তোকে বোঝাই’ দেখেছেন ৫০ লাখ দর্শক-শ্রোতা। আসিফের সাথে সহশিল্পী ছিলেন কর্নিয়া। এরপরে ইমরানের ঠিক বেঠিক গানটি হিট হয় ২৫ লাখ। গানটিতে ইমরানের সহশিল্পী ছিলেন ন্যান্সি। আরমান মালিকের ‘তোর কারণে’ ১৮ লাখ ৮১ হাজার দর্শক শ্রোতা দেখেছেন।
ধীরে ধীরে সে গ্রাফটা নিচের দিকে নেমে এসেছে। বর্তমান সময়ের তরুণ প্রজন্মের নিকট বেশ জনপ্রিয় মিনার। মিনারের ‘কি তোমার নাম’ মুক্তি পায়। খুবই হাই কোয়ালিটির ভিডিও সম্পন্ন গানের দর্শক ১৭ লাখ। গানের ভিডিও করা হয়েছিল নেপালে।

এটাই ছিল গত ঈদে মুক্তি পাওয়া গানের দর্শক-শ্রোতার হিসেব। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশিবার দেখা হয়েছে ইলিয়াসের না বলা কথা-৪ গানটি। অর্থাৎ গানের প্রোপার মার্কেটিং-এর জন্য প্রয়োজন ভালো ভিডিও নির্মাণের। কেননা ভিডিও ছাড়া সিঙ্গেল ট্র্যাক, বা অ্যালবাম সেই অর্থে হিট হয় না, সেটা ভালো হোক কিংবা মন্দ।

সুস্থ হয়ে দেশে ফিরছেন ডিপজল


চলচ্চিত্রের অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল এখন পুরোপুরি সুস্থ। দীর্ঘ একমাসের বেশি সময় সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে আগামী বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) তিনি দেশে ফিরবেন।
সিঙ্গাপুর থেকে ডিপজলের দেশে ফেরার খবর জাগো নিউজকে জানিয়েছেন তার কন্যা ওলিজা মনোয়ার। মঙ্গলবার রাতে ওলিজা বলেন, বাবা এখন পুরোপুরি সুস্থ। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার ফ্লাইটে তাকে নিয়ে বাংলাদেশে ফিরব।
এর আগে ৩০ অক্টোবর দুপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে তার হার্টের বাইপাস অস্ত্রোপচার করা হয়। তারপর তিনি সেখানে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে ছিলেন।
গত ১৯ সেপ্টেম্বর বিকেলে বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হন ডিপজল। তাকে দ্রুত রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে নেয়া হয়। চিকিৎসকরা তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করেন। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য পরদিন বিকেলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ডিপজলকে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়।

'গেইম রিটার্নস' দেখতে দর্শকের ভীড়


শুক্রবার সারাদেশে ৪৪টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে চিত্রনায়ক নিরব ও চিত্রনায়িকা তমা মির্জা অভিনীত 'গেইম রিটার্নস' ছবিটি। প্রেক্ষাগৃহে ছবির প্রদর্শনীতে দুই দিনের দর্শক সমাগমে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন চলচ্চিত্রের কলাকুশলীরা।
এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী তমা মির্জা বলেন, ঈদের বাইরেও যে এত মানুষ মুভি দেখে এটা বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। বিগত দুই দিনের হলের সেল রিপোর্ট অপ্রত্যাশিত ভালো। বলা যায় বাণিজ্যিক ছবির একটা আলাদা কদর আছে।
এদিকে ছবির প্রচারে হলে হলে দর্শকদের সাথে ছবি উপভোগ করে বেড়াচ্ছেন চিত্রনায়ক নিরব ও তমা মির্জা। শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর অভিসারে হাজির হয়েছিলেন এই জুটি। এ সময় দর্শকরা প্রিয় নায়ক-নায়িকার সাথে ছবি দেখতে  হুমড়ি খেয়ে পড়েন প্রেক্ষাগৃহে। 
চিত্রনায়ক নিরব বলেন, বাণিজ্যিক ধারার ছবি দেখা দর্শকরা ছবিটিকে ইতিবাচক ভাবে নিয়েছে। গত দুই দিনে সারা দেশের প্রেক্ষাগৃহে দর্শকের উপস্থিতি নতুন প্রত্যাশা জাগিয়েছে। দ্বিতীয় সপ্তাহে নতুন করে বেশকিছু প্রেক্ষাগৃহে ছবি মুক্তি দেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।
তিনি আরো জানায়, ছবির প্রচার-প্রচারণা আরো বেশি  হতো,এখনো ঢাকার  অনেক জায়গায়  পোষ্টার লাগানো হয়নি। তাহলে হয়তো  সবাই এই অ্যাকশন এবং রোমান্টিক ছবিটি সম্পর্কে জানতে পারতো।  তবুও এত দর্শকের ভীড় দেখে আমরা সবাই খুব খুশি,আশা করি দর্শকদের আরো ভাল ছবি উপহার দিতে পারবো।
প্রথম সপ্তাহে যেসব প্রেক্ষাগৃহে চলছে গেইম রিটার্নস- ঢাকার মধ্যে অভিসার, পুনম, চিত্রামহল, আনন্দ, পুরবী, গীত, সেনা অডিটোরিয়াম, মুক্তি, জোনাকি হলে।
আর ঢাকার বাইরে মিনি গুলশান (জিঞ্জিরা), চাঁদ মহল (কাঁচপুর), গুলশান (নারায়ণগঞ্জ), চম্পাকলি (টঙ্গি), মোহনা (কোনাবাড়ি), চন্দ্রিমা (শ্রীপুর), চান্দনা (জয়দেবপুর), পুরবী (ময়মনসিংহ), রজনীগন্ধা (চালা), কেয়া (টাঙ্গাইল), মাধবী (মধুপুর), ঝংকার (পাঁচদোনা), মানসী (কিশোরগঞ্জ), পালকী (চান্দিনা), তাজ (নওগাঁ), রুপালী (কুমিল্লা), গ্যারিসন (কুমিল্লা সেনানিবাস), হ্যাপী (লক্ষ্মীপুর), মমতাজ (সিরাজগঞ্জ) সিনেমা প্যালেস (চট্টগ্রাম), বিজিবি (চট্টগ্রাম), ছন্দা (পটিয়া), মনিকা (শায়েস্তাগঞ্জ), ভিক্টোরিয়া (শ্রীমঙ্গল), আলতা (সরিষা বাড়ি), মনোয়ার (জামালপুর), মিলন (মাদারীপুর), সাগর (কালিয়াকৈর), ফাল্গুনী (নাগরপুর), দর্শন (ভৈরব), কাকলী (শেরপুর), শাহীন (বলাবাজার), পিকে (সিরাজদিখান), মুন (মুক্তাগাছা), স্বর্ণালী (শাহদাজপুর) সিনেমা হলে প্রদর্শিত হচ্ছে 'গেইম রিটার্সন' ছবিটি।  

অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদ ইস্যুতে মুখ খুললেন শাকিব খান

অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদ ইস্যুতে মুখ খুললেন শাকিব খান

Image result


‘রাজনীতি’ সিনেমার সংলাপে অনুমতি ছাড়া মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করার অভিযোগে চিত্রনায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে অটোরিকশার চালকের মামলা কয়েকদিন ধরে মিডিয়ায় ভাসছে। তার মধ্যে নতুন সংযোজন হলো শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মধ্যে বিচ্ছেদের খবর। তবে বিচ্ছেদের গুঞ্জন নিয়ে চুপ করে থাকতে পারলেন না ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক। একটি অনলাইন গণমাধ্যমে এই গুজব নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়। বিষয়টি ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছেন শাকিব খান।

শনিবার সন্ধ্যায় সঙ্গে এক আলাপে তিনি বলেন, ‘আমি তো কাউকে কিছু বলিনি। কোনো অনলাইন পোর্টাল কিংবা কোনো প্রিন্ট মিডিয়া, টিভি মিডিয়া কারও সঙ্গে এ ব্যাপারে কোনো কথাই হয়নি। এসব কথা ভিত্তিহীন।’
শাকিব বলেন, ‘যদি এরকম কিছু ঘটে, তাহলে সেটা সবাই জানবে। এখানে লুকোচুরির কিছু নেই। যারা এসব ছড়াচ্ছেন তারা কখনোই ইন্ডাস্ট্রির ভালো চাননি।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমার সঙ্গে কথা না বলে আমার বরাত দিয়ে এসব যারা ছড়াচ্ছেন কিংবা যেসব অনলাইন আমার সঙ্গে কথা না বলেই আমার মন্তব্য দিয়ে খবর প্রকাশ করছেন তাদের বিরুদ্ধে আমি আইনি ব্যবস্থা নেব। এজন্য আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করব।’
তবে কী আপনাদের বিচ্ছেদের বিষয়টি গুজব? এমন প্রশ্নের জবাবে শাকিব খান বলেন, ‘বিচ্ছেদ নিয়ে তো কারও সঙ্গেই কথা হয়নি। তাহলে সেটা গুজব কিংবা সত্যি এ প্রশ্ন আসবে কেন? যারা লিখেছেন তাদের সঙ্গে এটা নিয়ে কথাই হয়নি আমার। আর গুজবের বিষয়টি যারা বলছেন তারাই ভালো জানেন।’
এছাড়াও তিনি বিদেশে শুটিংয়ে থাকাকালীন তার বরাত দিয়ে যারা মিথ্যে খবর প্রকাশ করে তাদের বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন।
এ প্রসঙ্গে শাকিব খান বলেন, ‘আমি যখন বিদেশে থাকি, তখন ঘনিষ্ঠ দু-এক জন ছাড়া কারও সঙ্গেই আমার কথা হয় না। অথচ কিছু কিছু অনলাইন পোর্টাল বিদেশে আমার সঙ্গে কথা হয়েছে বলে আমার মন্তব্য তাদের মনগড়া ভাষায় লিখে দিচ্ছেন।’
তিনি বলেন, ‘গণমাধ্যম কিংবা সাংবাদিকদের মানুষের বিবেক বলা হয়। কিন্তু তারা কীভাবে নিজের বিবেক বিসর্জন দিচ্ছে, এটা আমার বোধগম্য নয়। আমি এসব হলুদ সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা ভাবছি। আমার আইনজীবীর সঙ্গেও এ বিষয়ে কথা বলেছি।’
শাকিব বলেন, ‘আমি স্পষ্ট ভাষায় বলছি, যদি কখনও কিছু ঘটে তাহলে সেটা সবাই জানবেন। আমি নিজেই সবাইকে জানাব।’
‘ডুব’ দেখতে হলে যাবেন শাওন

‘ডুব’ দেখতে হলে যাবেন শাওন




দু-একদিনের মধ্যেই মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর আলোচিত সিনেমা ‘ডুব’ দেখবেন বলে জানিয়েছেন জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমদের স্ত্রী ও অভিনেত্রী-নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন।
শাওন বলেন, ‘আমি ছবিটি এখনো দেখিনি। সময় করেই দেখে ফেলব। তবে এখন পর্যন্ত যে সব রিভিউ পাচ্ছি তাতে মনে হচ্ছে গত ফেব্রুয়ারিতে সংবাদ সম্মেলন করে আমি যে আশঙ্কা করেছিলাম তাই সত্যি হয়েছে।’
ফেব্রুয়ারি মাসে শাওন অভিযোগ করেন, ‘ডুব’ হুমায়ুন আহমদের বায়োপিক। তার আপত্তির পরপরই সিনেমাটির অনাপত্তিপত্র বাতিল হয়। পরে সেন্সর বোর্ডের কাটছাটের নির্দেশনা মেনে মুক্তি পায়।
এদিকে, ‘ডুব’ মুক্তির পর হুমায়ুন আহমদ ভক্তরা অভিযোগ করেছেন, ছবিটিতে হুমায়ুন আহমদকে বিকৃত করা হয়েছে। তবে ফারুকীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, তিনি বায়োপিক নির্মাণ করেননি।
‘ডুব’ মুক্তি পায় ২০ অক্টোবর। এতে অভিনয় করেছেন ইরফান খান, নুসরাত ইমরোজ তিশা, রোকেয়া প্রাচী ও পার্নো মিত্র। সিনেমাটি প্রথম সপ্তাহে ৩৯টি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হয়। দ্বিতীয় সপ্তাহে চলছে ২০টি হলে। এছাড়া দেশের দেশের বাইরের দর্শকরাও দেখতে পাচ্ছেন ‘ডুব’।
জানুয়ারিতে বিয়ে করবেন কপিল শর্মা

জানুয়ারিতে বিয়ে করবেন কপিল শর্মা


ভারতের জনপ্রিয় কমেডিয়ান-অভিনেতা কপিল শর্মা বিয়ে করতে যাচ্ছে। আগামী বছরের শুরুতে অর্থাৎ জানুয়ারিয়ে প্রেমিকা গিনি চাতরাথের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছেন তিনি। সম্প্রতি এমনটাই প্রকাশ করেছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো।
এ প্রসঙ্গে কপিলের একটি ঘনিষ্ঠসূত্র সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘দুই পরিবারের পক্ষ থেকে অনেক চাপ দেওয়া হচ্ছে। গিনির পরিবার চাইছেন এ জুটির সম্পর্কটির আনুষ্ঠানিক পরিণতি হোক। কপিলের মা বিয়ে করার জন্য তাকে জোর করছেন, কারণ গিনিকে তিনি অনেক পছন্দ করেন এবং তার সঙ্গে সম্পর্কটাও বেশ ভালো। 

গিনি প্রতিজ্ঞা করেছিলেন, কপিল নিজেকে শুধরে নেওয়ার পরই তাকে বিয়ে করবেন। এখন মদ, নেশা থেকে দূরে রয়েছেন কপিল। তার মনের অবস্থাও ভালো। তাই এখন কপিল বিয়ে করার জন্য মনস্থির করেছেন।২০১৪ সালে ভারতীয় একটি হিন্দি দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কপিলের ভাই অশোক শর্মা জানান, কপিল জলন্ধর-নিবাসী ভবনীত চাতার্থকে বিয়ে করতে চায়। দু’জনে এক সঙ্গে কমেডি শো ‘হাস বলিয়ে’-তে অংশগ্রহণ করেছিল। 
তাদের বলিউড ফিল্ম ‘ব্যাংক চোর’ রিলিজ করার পরে বিয়ে করবে বলে স্থির করেছে। ’কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই বিয়ে আর হল না কেন? ২০১৫ সালে যখন যশরাজ ফিল্মসের ছবি ‘ব্যাংক চোর’-এ কাজ করার সুযোগ কপিলের হাতছাড়া হল, তখনও শোনা যাচ্ছিল কপিল আর ভবনীতের বিয়ের খবর একেবারে পাক্কা। তারপর ‘কিস কিস কো পেয়ার করু’ ছবির কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন কপিল। সেই সময় থেকেই আস্তে আস্তে কপিল-ভবনীতের প্রেম নিয়ে চর্চা কমে আসতে শুরু করে। একটা সময়ে ভবনীত কপিলের জীবন থেকে একেবারেই উধাও হয়ে যান।‘ফিরাঙ্গি’ ছবির প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত কপিল শর্মা। এটি তার অভিনীত দ্বিতীয় ছবি। আগামী ২৪ নভেম্বর মুক্তি পাবে ছবিটি।

ফেইসবুকে ভেরিফাইড চিত্রনায়ক নিরব


আজ শুক্রবার সারা দেশ ব্যাপি মুক্তি পায় নিরব, তমা মির্জা-লাবণ্য লি অভিনীত ত্রিভুজ প্রেমের সিনেমা ‘গেম রিটার্নস’। অ্যাকশন থ্রিলারধর্মী ছবিটি পরিচলনা করেছেন রয়েল খান ও প্রযোজনা করেছে রোনিও মাল্টিমিডিয়া। রোনিও মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এ ছবি এর আগে আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পায়। গত ৫ ফেব্রুয়ারি ছবিটি সেন্সরবোর্ডে জমা দেয়া হয়



এই দিকে আজ দুপুরে ফেইসবুকে কর্তৃপক্ষ নিরব হোসেন নামে  খোলা তার ফ্যান ফেইজটি ভেরিফাইড করে দেয়।  এতে করে নিরবের সকল  ভক্ত সঠিক তথ্য পাবেন। 

নিরবের ফেইসবুক ফ্যান পেইজের ঠিকানা www.facebook.com/NirabHossainOfficial


যেসব হলে মুক্তি পাচ্ছে "গেইম রিটার্নস"


আগামীকাল শুক্রবার সারাদেশে মুক্তি পাচ্ছে নিরব, তমা মির্জা-লাবণ্য লি অভিনীত ত্রিভুজ প্রেমের সিনেমা ‘গেম রিটার্নস’। অ্যাকশন থ্রিলারধর্মী ছবিটি পরিচলনা করেছেন রয়েল খান ও প্রযোজনা করেছে রোনিও মাল্টিমিডিয়া।
 
ঢাকার যে সব হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে আলোচিত এই মুভিটি নিম্মে হল লিস্ট দেওয়া হলো:-
অভিসার, পুনম, চিত্রমহল, আনন্দ, পুরবী, গীত, সেনা অডিটরিয়াম, মুক্তি এবং জোনাকি সিনেমা হল। 

ঢাকার বাইরে যেসব সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে "গেইম রিটার্নস" তা হলো:- মিনি গুলশান-জিনজিরা , চাঁদ মহল-কাঁচপুর, গুলশান-নারায়ণগঞ্জ, চম্পাকলি-টঙ্গী , মোহনা-কোনাবাড়ি, চন্দ্রিমা-শ্রীপুর , চান্দনা-জয়দেবপুর ,
পুরবী-ময়মনসিংহ, রজনীগন্ধা-চালা, কেয়া-টাঙ্গাইল , মাধবী-মধুপুর, ঝংকার-পাঁচদোনা, মানষি-কিশোরগঞ্জ,
পালকি-চান্দিনা,  তাজ-নওগাঁ,  রুপালি-কুমিল্লা,  গ্যারিসন-কুমিল্লা সেনানিবাস, হ্যাপী-লক্ষীপুর,

মমতাজ-সিরাজগঞ্জ, সিনেমা প্যালেস-চট্টগ্রাম, বিজিবি-চট্টগ্রাম, ছন্দা-পটিয়া, মনিকা-শায়েস্তাগঞ্জ ,
ভিক্টরিয়া-শ্রীমঙ্গল , আলতা-সরিষা বাড়ী, মনোয়ার-জামালপুর, মিলন-মাদারীপুর, সাগর-কালিয়াকৈর ,
ফালগুনী-নাগরপুর, দর্শন-ভৈরব, কাকলি-শেরপুর, শাহিন-বলাবাজার, পাইক-সিরাজদী খাঁন ,
মুন-মুক্তাগাছা, বর্ণালী-শাহজাদপুর।

 
ছবিটিতে আরো অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, ডনসহ অনেকে। ত্রিভুজ প্রেম ও আন্ডার ওয়াল্ডের নানা ঘটনা নিয়ে নির্মিত ‘গেম রিটার্নস’ ছবির সংলাপ ও কাহিনী লিখেছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু। সংগীত পরিচালনা করেছেন আরফিন রুমী, বেলাল খান ও ধ্রুব গুহ।
প্রকাশ হলো বেলাল-ঐশীর নতুন গান

প্রকাশ হলো বেলাল-ঐশীর নতুন গান

রোমান্টিক দৃশ্যপট আর ভিন্নধর্মী আয়োজন নিয়ে নিয়ে হাজির হলেন দুই কণ্ঠশিল্পী বেলাল খান ও ঐশী। তাদের গাওয়া ‘তোর ভালোবাসা’ শিরোনামের নতুন একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। ইশতিয়াক আহমেদের কথায় গানটির সুর বেলাল খান নিজেই করেছেন।
ম্যাক্স ব্যাগ নিবেদিত এই গানটিতে মডেল হিসেবে দেখা গেছে অভি ও তাহিরাকে। কক্সবাজারের মনোরম লোকেশনে এই মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন সৈকত নাসির। ম্যাক্স ব্যাগ নিবেদিত এস এ প্রডাকশনের ব্যানারে নির্মিত গানটি একই নামে প্রতিষ্ঠানের ইউটিউব চ্যানেলে সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়।

গানের গল্পে দেখা গেছে, কক্সবাজারে পালিয়ে এসেছে একজোড়া কাপল। কিন্তু কোনো পরিকল্পনা নেই তাদের! কি করবে ভেবে পাচ্ছে না প্রেমিকা। এজন্য তার মন খারাপ। কিন্তু প্রেমিক জানে কিভাবে মন ভালো করতে হয়। গানে ও নাচে শুরু করে দেয় প্রেমিকার জন্যে মন ভালো করে দেওয়ার যত আয়োজন।
দুই কিশোর-কিশোরী কক্সবাজারের দৃশৃপটে ভাসায় তাদের নব প্রেমের ভেলা। মনের আনন্দে দুইজনে চষে বেড়ায় সৈকত সংলগ্ন আশ-পাশ। কারণ নেই তাদের বাড়ী ফেরার তাড়া, শুধু ভাসবে তারা প্রেমে আর গানে গানে।