মালয়েশিয়ায় আটক পরিচালক অনন্য মামুন

মালয়েশিয়ায় আটক পরিচালক অনন্য মামুন

http://samakal.com/uploads/2017/12/online/thumbnails/10480228-4874235991509-8896-5a412739942a7.jpg 

আদম পাচারের অভিযোগে মালয়েশিয়ান পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র পরিচালক অনন্য মামুন। রোববার (২৪ ডিসেম্বর) দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুরের জালান ইপোর পুত্রা কোর্ট কন্ডোমিনিয়ামের একটি এপার্টমেন্ট থেকে ১৫ জন বাংলাদেশিসহ তাকে আটক করা হয় বলে খবর পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি মালয়েশিয়াতে 'বাংলাদেশ নাইটস' শিরোনামে একটি কনসার্টে তারকাবহুল দল ঢাকা ত্যাগ করে। আর সেই দলের আড়ালে মানবপাচারের অভিযোগে দেশটির পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন বাংলাদেশি চিত্র পরিচালক অনন্য মামুন।জানা গেছে এই বিশাল শিল্পী বহরের সাথে অনন্য মামুন ৫৭ জনকে 'শিল্পী' দেখিয়ে মালয়েশিয়া নিয়ে যান।

সেখানে যোগ দিতে চিত্রপরিচালক অনন্য মামুনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে শুক্রবার রাতে মালয়েশিয়া যান বাংলাদেশের একঝাঁক তারকা। অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর, আঁখি আলমগীর, ইউছুফ, ব্যান্ডদল চিরকুট। এছাড়াও তারকাবহুল একটি দল যায়। চিত্রনায়ক নিরব ও ইমন এবং চিত্রনায়িকা শখ, আইরিন, ভাবনা, আমান ও মিষ্টি। 

নিজ উদ্যোগে দেশে ফিরছেন তারকারা

গত ২২ ডিসেম্বর শনিবার কুয়ালালামপুরের পেট্রোনাস টুইন টাওয়ারের নিকটে ওয়াসমা এমসিআই হলে বিনোদনী সংস্থা ‘সিনেমাটিক’র আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘বাংলাদেশি নাইটস’ অনুষ্ঠিত হয়। অনুশঠান শেষে স্বাভাবিকভাবে দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন শিল্পীরা।

তার আগেই দেশের গণমাধ্যম মারফত জানতে পারলেন চিত্রপরিচালক অনন্য মামুনের গ্রেপ্তারের খবর। এই ঘটনায় শিল্পীরা নিরাপদ আছেন বলে জানা গেছে। দলবদ্ধভাবে গেলেও শিল্পীরা এখন নিজ উদ্যোগেই ফিরছেন বলে জানা গেছে। শিল্পীরা শহরের বিভিন্ন হোটেলে নিজেদের মতো করে রয়েছেন। সকলেই সবার খোঁজ রাখছেন বলে জানা গেছে।  আসিফ আকবর বলেন, 'আমি পেনাং আছি নিজের মতো করে। ২৭ ডিসেম্বর দেশে ফিরব। ' মিষ্টি জান্নাত ফিরবেন ভাবির বাড়িতে কয়েকদিন বেড়ানোর পরে।

চিত্রনায়ক নিরব জানালেন, এতোকিছু ঘটে গেছে তারা জানতেনই না। তিনি বলেন, আপাতত আমাদের কোনো সমস্যার মুখে পড়তে হয়নি। আমরা ভাগ ভাগ হয়ে বিভিন্ন রুম ও হোটেলে রয়েছি। তবে সবার সঙ্গে সবার যোগাযোগ আছে। কাল সকাল ৬টায় আমরা বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়া ছাড়বো। অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের আয়োজনে  'বাংলাদেশ নাইটস' অনুষ্ঠানটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন অনন্য মামুন।

 

নতুন বছরে চমক নিয়ে আসছে ইলিয়াস হোসাইন

না বলা কথা গানের খ্যাতনাম  কণ্ঠশিল্পী ইলিয়াস হোসাইন,সম্প্রতি তার না বলা কথা-৪ শ্রোতাদের মনে বেশ সারা ফেলেছে। চলতি বছর শেষ না হতেই নতুন বছরের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছেন সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসাইন। ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই প্রকাশ হবে নতুন গান ‘হয়নি বলা’। এতে ইলিয়াসের সহ-শিল্পী নদী। এ গানের ভিডিওতে থাকছে জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা ও মডেল নিলয়। নিলয়ের সঙ্গে অভিনয় করছেন কারিন নাজ। এ ছাড়া একই গানে দেখা যাবে বাংলা চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ সিরাজ হায়দার এবং টিভি অভিনেতা কাজী উজ্জলকে। ওমর ফারুকের কথায় গানটির সংগীত পরিচালনা করেছেন রেজওয়ান শেখ। 

মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন সৈকত রেজা এবং ভিডিওর গল্প লিখেছেন ইলিয়াস হোসাইন নিজেই। টানা ৩ দিন শুটিং হয়েছে উত্তরা ও ঢাকার অদূরে ৩০০ ফিটের মনোরম পরিবেশে। ইলিয়াস বলেন, ‘অসম্ভব সুন্দর একটি গান। এর ভিডিও পরিকল্পনাও বেশ আলাদা। মডেল হিসেবে পেয়েছি নিলয়ের মতো জনপ্রিয় মুখকে। তাকে নিয়ে এটাই আমার প্রথম কাজ। সব মিলিয়ে নতুন বছরের প্রথম চমক হিসেবে কাজটি করার চেষ্টা করেছি। আমার বিশ্বাস মিউজিক ভিডিওটি শ্রোতা-দর্শকদের জন্য নতুন বছরের অন্যতম উপহার হবে।’ 

নিলয় জানান, মিউজিক ভিডিওর গল্পটি যখন ইলিয়সের মুখে শুনি, এক কথায় ভালো লেগে যায়। গানটিও খুব সুন্দর। এই মিউজিক ভিডিওটি করতে গিয়ে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে পুরো শুটিং ইউনিটকেই। আশা করছি গান ও ভিডিওটি সবার ভালো লাগবে।

আবারো বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী রন্টি


 আবারো বিয়ে করলেন ‘ক্লোজ আপ ওয়ান’খ্যাত সংগীতশিল্পী রন্টি দাশ। বরের নাম সাঈদ রহমান। গত ৭ ডিসেম্বর পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন রন্টি।

সাঈদ রহমান ‘নোঙর’ নামে একটি ব্যান্ড দলের গিটারিস্ট। এ দলের সঙ্গে একাধিক স্টেজ শোতে পারফর্ম করেছেন রন্টি।


বেশ কিছুদিন প্রেম করে ২০১১ সালের আগস্টে ব্যবসায়ী গোলাম মোহাম্মদ আবেদের সঙ্গে প্রথমবার সংসার পেতেছিলেন রন্টি। কিন্তু বিয়ের দুই বছর পর তাদের দাম্পত্যজীবনে টানাপোড়েন শুরু হয়। চলতি বছরের জুনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এ সংসারে রন্টির একটি মেয়ে রয়েছে।

২০০৫ সালে প্রথমবার ক্লোজ আপ ওয়ান প্রতিযোগিতায় অংশ নেন রন্টি। এতে কাঙ্ক্ষিত ফল না পেয়ে ২০০৬ সালে আবারো এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে চতুর্থ স্থান অর্জন করেন তিনি। তারপর থেকে স্টেজ শো, অ্যালবামে নিয়মিত গান করে চলেছেন রন্টি।

হাবিব একজন ধোঁকাবাজ,সে আমার সাথে অভিনয় করেছে: তানজিন তিশা


দীর্ঘদিন সম্পর্কের পর ইতি ঘটলো হাবিব ও তানজিন তিশার সম্পর্ক। সম্প্রতি প্রথম আলোর সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ বিষয়ে মুখ খুলেন। তিশা বলেন,আমি অনেক দিন চুপ ছিলাম,আমাকে নিয়ে অনেকে অনেক ধরণের নিউজ করেছে,বিষয় টা আমি পরিষ্কার করছি,আসলে আমার জন্যে কারো সংসার ভাঙ্গেনি,তার সাবেক স্ত্রী আমাকে নিয়ে ফেইসবুকে আজেবাজে মন্তব্য করছে।

তিশা আরো বলেন, আমি এসবের কিছুই প্রতিবাদ করেনি,চুপ থেকেছি শুধুমাত্র আমাদের সম্পর্কের কারণে। আমি এখনো জানিনা হাবিব কেন আমার সাথে  ব্রেকআপ করেছে,হয়তো সে আমার সাথে অভিনয় করেছে। সে একজন ধোকাবাজ কারণ যে মানুষটা কে আমি আমার পরিবারের ইচ্ছার বাইরে এবং তার অতীত মেনে নিয়ে তার সাথে সম্পর্ক করেছি সে কোন কারণ ছাড়াই আমার সাথে ব্রেকআপ করেছে। তাকে আমি ভালোবেসে ভুল করেনি বরং বিশ্বাস করে ভুল করেছি।

আমি চাই হাবিব ওয়াহিদ নামটি আমার জীবন থেকে মুছে যাক,আমি আমার লাইফকে সুন্দর ভাবে সাজাতে চাই।  

সানি লিওনের নিরাপত্তা দিতে পারবে না পুলিশ

ভারতের বেঙ্গালুরুতে একটি বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে সানি লিওন গেলে গণ-আত্মহত্যার ঘটনা ঘটবে- এমন হুমকির পর সাবেক এই পর্নস্টারের নিরাপত্তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে পুলিশ। এ বিষয়ে বেঙ্গালুরুর পুলিশ জানায়, তারা সানি লিওন ও তার টিমের কোনো নিরাপত্তা দিতে পারবে না। 

 বাধ্য হয়ে বেঙ্গালুরুর পূর্বঘোষিত বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে যেতে পারছেন না সানি। চলতি বছরের শেষ রাত থেকে শুরু হওয়া নববর্ষের ওই অনুষ্ঠানে পারফর্ম করার কথা ছিল আবেদনময়ী এই অভিনেত্রীর। অনুষ্ঠানে বেঙ্গালুরুর জনপ্রিয় ডিস্কো জকিদেরও পারফর্ম করার কথা। কিন্তু সানির শো বাতিল হওয়ার কারণে ঝামেলায় পড়েছেন আয়োজকরা। আদৌ অনুষ্ঠান হবে কি-না সেটা নিয়েও তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।

 ওই অনুষ্ঠান বাতিল করা নিয়ে টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এই অভিনেত্রী। টুইটে তিনি লিখেছেন, নববর্ষের অনুষ্ঠানে আমাকে ও আমার টিমকে কোনো নিরাপত্তা দিতে পারবে না বলে জানিয়েছে পুলিশ। আমার কাছে যেহেতু মানুষের নিরাপত্তা সবার আগে, ফলে আমি ওই অনুষ্ঠানে যাচ্ছি না। টুইটে ফ্যানদের নববর্ষের আগাম শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন সানি।

মেহজাবিনের নাটকে সালমান শাহের গান


লাক্সতারকা মেহজাবিন অভিনীত নাটকে অমর নায়ক সালমান শাহের ছবির একটি গান ব্যবহার করা হয়েছে। গানের নাম ‘ও আমার বন্ধু গো’; এই গানটি তৈরি হয়েছিল সালমান শাহ অভিনীত ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির জন্য। নতুন আয়োজনে গানে কণ্ঠ দিয়েছেন জিয়া রাজ, সংগীত পরিচালনা করেছেন আহমেদ হুমায়ূন।

মেহজাবিন অভিনীত এই নাটকটির নাম ‘তোমার জন্য মন’, রচনা ও পরিচালনা করেছেন জাকারিয়া সৌখিন। গেল সপ্তাহে নাটকটির শুটিং শেষ হয়েছে। নির্মাতা সৌখিন জানান, সালমান শাহের ওই গানটি নব্বই দশকের, কিন্তু আজও তুমুল জনপ্রিয়। এই গানটি নাটকের থিম সং হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। নির্মাতা এও বললেন যে, গানটি নতুন করে সংগীতায়োজন করা হয়েছে।

মূলত ‘তোমার জন্য মন’ নাটকটি নির্মিত হয়েছে বড় উপলক্ষে। মেহজাবিন বলেন, নাটকে আমার নাম জেরি। ক্যাম্পাসের স্যার আমাকে অক্সিজেন উপাধি দেয়। তিনি বলেন, ব্যতিক্রম গল্প আর চরিত্র না পেলে আমি কাজ করি না। আমার কাছে মনে হয়েছে দর্শক আমাকে নতুনভাবে পাবেন।

‘তোমার জন্য মন’ নাটকে মেহজাবিন ছাড়াও অভিনয় করেছেন জোভান, আনন্দ খালেদ, সানজিদা লতা প্রমুখ। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, ২৫ ডিসেম্বর রাত ৮ টায় আরটিভিতে নাটকটি প্রচারিত হবে।

কলকাতার অভিনেত্রীদের পেছনে ফেলে শীর্ষে জয়া

 কলকাতার অভিনেত্রীদের পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠে এসেছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান। ভারতীয় একটি প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যমের জরিপে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নায়িকা হিসেবে টলিউডে বছরের সেরা দুটি নাম জয়া আহসান ও সোহিনী সরকার। কলকাতায় এ বছর জয়া আহসানের গুরুত্বপূর্ণ সিনেমা ‘বিসর্জন’। এতে জয়া তার দাপট দেখিয়েছেন। যা এ বছর কলকাতার অন্য কোনো নায়িকা দেখাতে পারেননি বলে মনে করছেন টলিউডের চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। এই সিনেমাটি ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার থেকে ইফিতি স্কিনিং, পাশাপাশি শহুরে দর্শকরাও সিনেমাটি দেখতে উপচে পড়েছিলেন প্রেক্ষাগৃহে। 

 অন্য নায়িকারা যখন সিনেমার ভালো-মন্দের ফারাক বোঝেননি তখন জয়া আহসান সিনেমা নির্বাচনের ব্যাপারে চূড়ান্ত সতর্কতা অবলম্বন করছেন। ঠিক এই কারণেই কলকাতার সিনেমার অধিকাংশ নামী পরিচালকদের পরবর্তী চলচ্চিত্রে থাকছেন জয়া।জয়ার পরের অবস্থানে রয়েছেন সোহিনী সরকার। ‘বিবাহ ডায়েরিজ’ সিনেমার মাধ্যমে চলতি বছর শুরু করেছিলেন তিনি। 

 এরপর ‘দুর্গা সহায়’ ও ‘সব ভূতুরে’ সিনেমায় সমালোচকদের ঢের প্রশংসা কুড়িয়েছেন সোহিনী। এছাড়াও এ তালিকায় রয়েছেন স্বস্তিকা মুখার্জি, অর্পিতা, কোয়েল, শ্রাবন্তী, পাওলি দাম, নুসরাত প্রমুখ।

কলকাতার সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে শক্ত অবস্থান গড়ছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। গত বছর সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসেবে কলকাতার টেলিসিনে পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। কলকাতার সৃজিত মুখার্জি পরিচালিত আলোচিত সিনেমা ‘রাজকাহিনী’। সিনেমাটিতে রুবিনা চরিত্রে অভিনয় করে এ পুরস্কার পেয়েছিলেন জয়া। 

 এ বছর তার ‘বিসর্জন’ সিনেমাটি ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতেছে। এছাড়া এই সিনেমার জন্য ইন্টারন্যাশনাল বাংলা ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড (আইবিএফএ) ২০১৭-এর সমালোচক বিভাগে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেন জয়া আহসান। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে জয়া অভিনীত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার শহর’।

সেলিব্রিটি শো ‘লাভ অ্যান্ড সরো’ অতিথি নীরব

 

ভিন্ন আয়োজনের নির্মাণ করা  তারকাবহুল সেলেব্রেটি শো ‘লাভ অ্যান্ড সরো’ অনুষ্ঠানের একটি পর্বের অতিথি হিসেবে আসেন সোহেল রানা ।  তিনি বলেন, ‘আমি জীবনে বহু অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকেছি। প্রথমে ভেবেছিলাম গতানুগতিক হবে এটাও। কিন্তু শুটিং শেষ হওয়ার পর অন্যরকম লেগেছে |


চিত্রনায়ক নিরব বলেন, ‘একটা এনজয়েবল প্রোগ্রাম লাভ অ্যান্ড সরো। বেশ উপভোগ করেছি অনুষ্ঠানটি।’ এই নায়কের সঙ্গে ছিলেন চিত্রনায়িকা তানহা তাসনিয়া। তিনি বলেন, ‘ভোলা তো যায় না’ ছবির পর নিরবের সঙ্গে প্রথমবার কোনো সেলেব্রেটি শোতে অতিথি হয়ে এসেছি। খুব মজা লেগেছে অনুষ্ঠানটি।’
এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানে এসে এত ভালো লেগেছে যে মনে খুশীতে অনুষ্ঠানের মধ্যেই ব্যান্ডের সঙ্গে রক গান গেয়েছি।’

বিভিন্ন পর্বে অতিথি হিসেবে এসেছিলেন এটিএম শামসুজ্জামান, সোহেল রানা, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, দিঠি আনোয়ার, সুবর্ণা মুস্তাফা, সৌদ, তিশা, রিয়াজ, পূর্ণিমা, মিম, ফেরদৌস, জায়েদ খান, পপি, ইমন, তানহা তাসনিয়া, অভি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করছেন আফতাব বিন তমিজ এবং  টাইটেল স্পন্সর লাভেলো এবং নিবেদনে থাকছে মিনিস্টার ও লিজান। এ তিন প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার যথাক্রমে লাভেলোর এমডি একরামুজ্জামান, লিজানের নাজমুল হক এবং মিনিস্টারের আবদুর রাজ্জাক; তারা একটি পর্বের অতিথি হিসেবে থাকছেন বলে জানা গেছে। শিগগির এই অনুষ্ঠানটি একটি বেসরকারি চ্যানেলে প্রচারিত হবে বলে জানা গেছে।

পরমব্রত-প্রিয়াঙ্কার ভারতীয় ছবিতে গাইছেন অণিমা

পরমব্রত-প্রিয়াঙ্কার ভারতীয় ছবিতে গাইছেন অণিমা

পরমব্রত-প্রিয়াঙ্কার ভারতীয় ছবিতে গাইছেন অণিমা  
নপ্রিয় রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী অণিমা রায়। রবীন্দ্রসংগীতপ্রেমী শ্রোতাদের কাছে একটি জনপ্রিয় নাম। অণিমা রায় এবার ভারতের বাংলা ছবিতে গান করছেন। সিনেমাটির নাম ‘রিইউনিয়ন’।গত সোমবার কলকাতার এক হোটেলে ছবির মহরতের আয়োজন করা হয়।
 
অণিমা রায় বলেন, দিনটি সত্যি বিশেষ ছিল। ভারতীয় বাংলা সিনেমায় প্রথমবারের মত প্লেব্যাক করছি বন্ধুরা এবং সেটা অবশ্যই রবীন্দ্রসংগীত। প্রাথর্ণা করবেন বন্ধুরা সিনেমাটি যেন সকলের ভালবাসা পায় ও আমার গানটি যেন একে অন্য মাত্রা যোগ করে আমার দেশের সন্মান রাখতে পারে। 
 
ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও প্রিয়াঙ্কা সরকার। আরও আছেন রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়, সমদর্শী দত্ত, সায়নী ঘোষ, সৌরভ দাস, অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়। যৌথভাবে পরিচালনা করছেন নবারুণ সেন ও মুরারি রক্ষিত।
 
এর আগেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে খবরটি প্রথম প্রকাশ করেন কণ্ঠশিল্পী-সংগীত পরিচালক, সাংবাদিক তানভীর তারেক। তিনি বলেন,  ছবির মহরত অনুষ্ঠানের দাওয়াত ছিল হোটেল ম্যারিয়টে। মুরারি দাদার গল্প ও পরিচালনায় ছবির নাম “রিইউনিয়ন“ গিন্নি অনিমা একটা রবীন্দ্র নাথের গান গাইবে এ ছবিতে। ছবির পরিচালক- প্রয়োজক সিংগাপুরের ব্যবসায়ী, স্বপ্নবাজ মানুষ।

বিজয় দিবসে সজল-তিশার ‘যেদিন সিঁথির গল্পে সিঁদুর ছিলো না’

বিজয় দিবসে সজল-তিশার ‘যেদিন সিঁথির গল্পে সিঁদুর ছিলো না’






বিজয় দিবসে সজল-তিশার ‘যেদিন সিঁথির গল্পে সিঁদুর ছিলো না’ 
সজল ও তিশা সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রী, দুজনেই কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। নানা চরিত্রে কাজ করে দর্শক মনে আসন গড়েছেন অনেক আগেই।
 
এবার কাজ করলেন মুক্তিযুদ্ধের বিশেষ নাটকে। নাটকের গল্পে দেখা যায়, ৭১ সালে যুদ্ধ শুরু হলে এক হিন্দু স্কুল শিক্ষক মেয়ে তিশাকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েন। নানা টানাপোড়েনে স্কুল শিক্ষক মেয়ের সম্ভ্রম বাঁচাতে মুসলমান ছেলে সজলের সাথে বিয়ে দেন, দেশের টানে সজল যুদ্ধে যোগ দেয়। 
 
গর্ভবতী তিশার ওপর পাক হানাদার বাহিনী নির্যাতন চালায়, সম্ভ্রম বাঁচেনা তিশার। এরকম এক গল্প নিয়ে নাটক ‘যেদিন সিঁথির গল্পে সিঁদুর ছিলো না’। নাটকটি রচনা করছেন ইউসুফ আলী খোকন ও পরিচালনা করেছেন আশিকুর রহমান। 
 
সজল তিশা ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন কে এস ফিরোজ, মাহমুদুল ইসলাম মিঠু, জাহানারা, নমিতা, শিমেলসহ আরো অনেকে। নাটকটি প্রচারিত হবে শুক্রবার রাত ৮টা ৩০ মিনিটে শুধুমাত্র বৈশাখী টেলিভিশনে।