আসিফ ও আঁখির  ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’

আসিফ ও আঁখির ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’

http://www.daily-sun.com/assets/news_images/2018/03/11/daily-sun-2018-03-06-3.jpg 


মুষল ধারার বৃষ্টিতে নয়, টিপ টিপ বৃষ্টিতে ভিজেছেন বাংলা গানের যুবরাজ আসিফ আকবর ও সুকন্ঠী গায়িকা আঁখি আলমগীর। না, বাস্তবে নয়। ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ শিরোনামের নতুন একটি গানের সুরে ভিজেছেন তারা। গানটি সুর-সঙ্গীত করার পাশাপাশি লিখেছেন তরুন মুন্সী। গানটি প্রকাশ করছে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন।

এবার প্রকাশিত হতে যাচ্ছেন গানটি। ইতিমধ্যে পুবাইলে শেষ হয়েছে এ গানের শুটিং। এতে অংশগ্রহণ করেছেন আঁখি ও আসিফ। ভিডিও পরিচালনায় ছিলেন ভাস্কর জনি।

গানটির অডিও এবং ভিডিও প্রসঙ্গে কণ্ঠশিল্পী আসিফ বলেন, ‘আঁখির সঙ্গে এর আগেও বহু গানে কণ্ঠ দিয়েছি। এবারও দিলাম। আমাদের গাওয়া প্রায় সবগুলো গানই শ্রোতারা গ্রহণ করেছেন। এ গানটির কথাগুলো চমৎকার। সুরেও দারুণ ভেরিয়েশন রয়েছে। সব মিলিয়ে গানটি দারুণ হয়েছে। ভিডিওতে ভক্তরা আমাকে আর আঁখিকে দেখতে পাবে। আশা করি, আমাদের ভক্ত ও শ্রোতাদের কাছে গানটি উপভোগ্য হবে।’

আঁখি আলমগীর বলেন, ‘আসিফ ভাইয়ের সঙ্গে গান গাওয়া মানেই দারুণ কিছু। তার গায়কীতে আলাদা একটা ব্যাপার রয়েছে। সম্প্রতি যে গানটিতে কণ্ঠ দিলাম এটিও তার ব্যতিক্রম নয়। গানটি গাওয়ার সময়ই মনে হয়েছে ভালো কিছু হবে। শ্রোতাদের জন্য আরও একটি ভালো গান প্রকাশ হতে যাচ্ছে। এখন কিছু বলব না। গানটি প্রকাশ হওয়ার পর শ্রোতারাই গানটির বিচার করবে’।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, সোমবার তাদের ইউটিউব চ্যানেলে মুক্ত করা হবে ‘টিপ টিপ বুষ্টি’। পাশাপাশি গানটি শুনতে পাওয়া যাবে ডিএমএস ওয়েব সাইট, জিপি মিউজিক এবং বাংলালিংক ভাইবে।

হাসান ইমামই চলচ্চিত্র দিবসের অনুষ্ঠানের   সভাপতি

হাসান ইমামই চলচ্চিত্র দিবসের অনুষ্ঠানের সভাপতি



চলচ্চিত্র দিবসের অনুষ্ঠানে হাসান ইমামই সভাপতি : তথ্যমন্ত্রী

 

চলচ্চিত্র দিবসের জাতীয় অনুষ্ঠানে প্রবীণ অভিনেতা হাসান ইমামই সভাপতিত্ব করবেন, এটা নিয়ে বিভ্রান্তি অমূলক বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসের (৩ এপ্রিল) অনুষ্ঠান নিয়ে শনিবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানান মন্ত্রী।

গত বুধবার চলচ্চিত্র স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি সভাপতি ফারুক বলেন, ‘সর্বসম্মতিক্রমে চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি পুরুষ সৈয়দ হাসান ইমাম সাহেবকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। এ নিয়ে বেশ কয়েকটি মিটিং হয়েছে। কিন্তু মঙ্গলবার বিএফডিসির এমডি আমীর হোসেন মোবাইলে কল দিয়ে সৈয়দ হাসান ইমামকে এই পদে না থাকার জন্য ওপর মহলের আদেশ আছে বলে জানান।’

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে চলচ্চিত্র স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিবৃতি দিলেন তথ্যমন্ত্রী।

ইনু বলেন, ‘এটি সরকারি কর্মসূচি হলেও আমি জাতীয় উদযাপন কমিটিতে হাসান ইমামকে সভাপতি করার কথা বলেছি। আর বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক পালন করবেন কমিটির সদস্য সচিবের দায়িত্ব।’

তিনি আরও বলেন, ‘সরকারি কর্মসূচি বলে কেউ কেউ এফডিসির এমডিকে কমিটি এবং অনুষ্ঠানের সভাপতি হওয়ার কথা বলেছিলেন। আমি তা জানার সঙ্গে সঙ্গে বলেছি, প্রবীণ অভিনেতা হাসান ইমাম একইসঙ্গে কমিটি এবং অনুষ্ঠান দুটিরই সভাপতি হবেন।’

তথ্যমন্ত্রী বিৃবতিতে বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার ঘোষিত জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উদযাপনের সরকারি কর্মসূচিতে চলচ্চিত্রের বিশাল জগতের বিভিন্ন শাখায় অবদান রাখা সবার অংশগ্রহণই আমাদের কাম্য। ১৯৫৭ সালের ৩ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উত্থাপিত দূরদৃষ্টিসম্পন্ন বিলের মাধ্যমে এফডিসি প্রতিষ্ঠার ধারাবাহিকতায় এ দিবসের জাতীয় চেতনা ধারণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।’

হাসান ইমামকে সভাপতি করার যৌক্তিকতা তুলে ধরে ইনু বলেন, ‘তথ্য মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি) বাস্তবায়িত অনুষ্ঠানটি সরকারি খরচে হলেও এখানে শিল্পী-প্রযোজক-পরিচালক-কলাকুশলীদের অংশগ্রহণকে মর্যাদাপূর্ণ করার আন্তরিক চেষ্টা থেকেই প্রবীণ শিল্পী হাসান ইমাম সভাপতি হয়েছেন।’

এ সময় সিনেমা আমদানি-রফতানির বিষয়টিও সবার জানা প্রয়োজন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশে বছরে ৫০-৭০টা চলচ্চিত্র হয়। সাফটা চুক্তির কারণে আমরা একটি সিনেমা রফতানির বিপরীতে একটি সিনেমা আমদানি করতে পারি। সেটিও চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্যদেরই কমিটির মাধ্যমে।’

‘পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত বছরের (২০১৭) জুলাই থেকে এ পর্যন্ত ভারতীয় চলচ্চিত্র এসেছে মাত্র ছয়টি। তাই ভারতীয় বা অন্য বিদেশি সিনেমা দেশের চলচ্চিত্রকে গ্রাস করছে, একথা কল্পনাপ্রসূত’ বলেও দাবি করেন তথ্যমন্ত্রী।

এ প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র মুক্তি দেবার বিষয়টিও তুলে ধরেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মন্ত্রণালয় নয়, দেশের প্রযোজক এবং পরিবেশক সমিতি ঠিক করে, কোন শুক্রবার কোন সিনেমা মুক্তি পাবে।’

ইনু আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার চলচ্চিত্রে অনুদানের পরিমাণ দ্বিগুণ ও সিনেমার সংখ্যা বাড়ছে। এফডিসির ফ্লোরগুলোতে আবার নিয়মিত শুটিং হচ্ছে, এফডিসি ডিজিটাল হচ্ছে এবং বঙ্গবন্ধু ফিল্ম সিটির কাজ এগিয়ে চলেছে। সিনেমা হলগুলো যেহেতু ব্যক্তি মালিকানায়, তাই তাদের উৎসাহিত করতে নেয়া হচ্ছে ডিজিটালাইজেশন প্রকল্প।’

ডিসেম্বরে আসছে ‘পোস্টমাস্টার ৭১’


দীর্ঘদিন পর ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ ছবির মাধ্যমে আবারও রুপালি পর্দায় হাজির হচ্ছেন ফেরদৌস-মৌসুমী জুটি। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর বিজয় দিবস উপলক্ষে আগামী ৩০ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে ছবিটি। এর প্রযোজনার দায়িত্বেও রয়েছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। ছবিটি রাশেদ শামীম ও আবির খান পরিচালনা করছেন যৌথভাবে।
ছবিটির বিষয়ে জানতে চাইলে পরিচালক রাশেদ শামীম বলেন, ‘‘মুক্তিযুদ্ধের অনেক ছবি আমরা দেখেছি। তবে ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ ছবিতে দর্শক ভিন্ন কিছু পাবে। আমরা যেহেতু নতুন পরিচালক, তাই একটু সময় নিয়ে ছবিটি নির্মাণ করেছি। এমনও হয়েছে শুটিং শেষ করে এডিটিংয়ে গিয়ে মনে হলো আরেকটু শুটিং দরকার। আমরা তখন আবারও শুটিং করেছি, যে কারণে ছবি মুক্তির তারিখ দুয়েকবার পিছিয়েছে। তবে আমরা আশাবাদী দর্শক ছবিটি পছন্দ করবেন।’’
ছবিতে দর্শক ব্যতিক্রম কী পাবে, জানতে চাইলে রাশেদ বলেন, ‘‘আমাদের গল্পটা শুধু মুক্তিযুদ্ধের ছবি না বলে, বলা যেতে পারে ওই সময়ের একটি মিষ্টি প্রেমের ছবি। আসলে আমাদের ছবির প্রেক্ষাপট শুরু হয়েছে ১৯৬৫ সাল থেকে, তখনকার সময়ের একজন পোস্টমাস্টারের প্রেমের গল্প নিয়ে ছবিটি, আমাদের গল্পটা শেষ হয় ৭১ সালের স্বাধীনতা দিয়ে। এখানে দর্শক যেমন যুদ্ধ দেখবেন, তেমনি মিষ্টি একটি প্রেমের গল্পও উপভোগ করবেন।’’
উল্লেখ্য, ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ ছবির কাজ শুরু হয় ২০১৫ সালের শেষ দিকে। এরপর ২০১৬ ও ২০১৭ সালে একাধিকবার মুক্তির তারিখ ঘোষণা করেও পিছিয়ে যায় ছবিটির মুক্তি। অবশেষে চলতি বছরের শেষ মাসের ৩০ তারিখকেই বেছে নিয়েছেন নির্মাতাদ্বয়।

অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ঊর্মিলা

রাজধানীর উত্তরায় বৃহস্পতিবার নাটকের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর। শুটিং চলাকালীন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

দ্রুত তাকে উত্তরার একটি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে রাতের মধ্যে তাকে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঊর্মিলার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে সিএমএইচের জিওরোলজি বিভাগের প্রধান শহীদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন আছেন এই লাক্স তারকা।

ডাক্তার জানান, ঊর্মিলা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন। দ্রুত অপারেশন করা উচিত। আগামীকালই অপারেশন করা হতে পারে। তবে আশংকাজনক কিছু নয়।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বেশ কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছিলেন শিল্পী সংঘের নেত্রী ঊর্মিলা।

রবিউল ইসলাম জীবনের কথায় পড়শীর "রাস্তা"


সম্প্রতি বিভিন্ন স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন এ প্রজন্মের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী পড়শী। এর পাশাপাশি পড়াশোনা নিয়েও বেশ ব্যস্ততা যাচ্ছে তার। গেলো বছরে পড়শী ও জুয়েল এর 'মন ভুইলা' গানটি প্রকাশিত হলেও এরপর আর নতুন কোন গানে পাওয়া যায়নি পড়শীকে। এবার ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে নতুন একটি একক গান নিয়ে শিগগিরই হাজির হতে যাচ্ছেন তিনি।

গানের শিরোনাম 'রাস্তা'। রবিউল ইসলাম জীবনের কথায় গানটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন জুয়েল মোর্শেদ। এরইমধ্যে গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে। মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন শাহরিয়ার পলক।

পড়শী বলেন, ‘গানটির কথা, সুর এবং সঙ্গীতায়োজন আমার নিজের কাছে খুব ভালো লেগেছে। তাছাড়া এই গানের মিউজিক ভিডিওতেও আমাকে নতুনভাবে দর্শক দেখতে পাবেন। নতুন এ গানটি নিয়ে খুব আশাবাদি।’

আগামী সপ্তাহেই গানটি ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের নিজস্ব চ্যানেলে প্রকাশ করা হবে বলে ডিএমএস সূত্রে জানা যায়।

উল্লেখ্য, পড়শীর নিজস্ব একটি ব্যান্ডদল রয়েছে যার নাম বর্ণমালা। ২০১০ সালে পড়শীর প্রথম একক অ্যালবাম ‘পড়শী’ লেজার ভিশনের ব্যানারে বাজারে আসে। এরপর আসে ‘পড়শী-২’ ও ‘পড়শী-৩’ অ্যালবাম দুটি। এই দুটি বাজারে আনে গীতাঞ্জলি।

 

প্রকাশ হলো সাকিবকে নিয়ে গান ‘অপরাজেয়’

প্রকাশ হলো সাকিবকে নিয়ে গান ‘অপরাজেয়’


প্রকাশ হলো সাকিবকে নিয়ে গান ‘অপরাজেয়’

 সাকিব আল হাসানের জন্য নিবেদিত থিম সং ‘অপরাজেয়’ প্রকাশ করেছে ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশ। নেমেসিস ব্যান্ড জেফারকে ফিচার করে এই গানটি তৈরি করেছে এবং শুধু মাত্র ইয়োন্ডার মিউজিক অ্যাপ থেকেই শোনা যাচ্ছে গানটি। এই প্রথম জাতীয় দলের কোন ক্রিকেটারের জন্য একটি গান তৈরি করা হয়েছে এবং এর মাধ্যমে ব্যান্ডের ভক্তদের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ তৈরি হয়েছে।

বিশ্বের সেরা অল-রাউন্ডার ক্রিকেটার এবং বাংলাদেশের টি-২০ ও টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের জন্য গানটি লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন। জোহাদ রেজা চৌধুরী এই সুরারোপিত গান সম্পর্কে বলেছেন ‘বাংলাদেশ ক্রিকেটে সাকিবের অবদান অপরিমেয়। সাকিবকে উৎসাহিত করার উদ্দেশ্যে আমাদের এই গান এবং আমরা অত্যন্ত আনন্দিত গানটি করতে পেরে। আমি আশা করি গানটি শ্রোতাদের দারুণ ভালোবাসা পাবে।’

ইয়োন্ডার মিউজিকের কান্ট্রি ম্যানেজার নোভেরা বিনতে নূর বলেছেন, ‘শুরু থেকেই ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশের সংগীত প্রেমীদের জন্য সর্বোচ্চ ফলাফল নিয়ে আসার চেষ্টা করছে। বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটার যিনি আমাদের সকলকে একত্রিত করেন তার জন্য এই গানটি নিয়ে আমরা এসেছি। আমরা ভক্তদের প্রতিক্রিয়া থেকে অত্যন্ত অনুপ্রাণিত এবং তাদের কাছে এই গানটি পৌঁছে দিতে পেরে অত্যন্ত সন্তুষ্ট।’

সাজ্জাদ-তিশার ‘কল্পকথা’

জ‌হির ক‌রিমের রচনা ও চিত্রনাট্যে আগামীকাল শুক্রবার রাত ৯ টায় এন‌টি‌ভি‌তে প্রচারিত হবে নাটক ‘কল্পকথা’। রোমান্টিক প্রেমের নাটকটি নির্মাণ করেছেন ফুয়াদ লিটন। ঘাসফুল প্রোডাকশন হাউজ এর ব্যানারে নির্মিত হওয়া এই নাটকে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ, তান‌জিন তিশা, সাখাওয়াত সাগর, রেশ‌মি, তালহা প্রমুখ।

 নাটকটিতে দেখা যাবে, ছোটবেলায় বাবা মাকে হারিয়ে কল্প কিছুটা ডিপ্রেশনে আক্রান্ত। একা থাকতে পছন্দ করে। কোন বন্ধু-বান্ধব নেই। এমনকি মোবাইল ফোনও ব্যবহার করে না। একদিন কথা নামের একটি মেয়ের সাথ তার দেখা হয়, তারপর পরিচয়, তারপর ভালোবাসাবাসি।

 ওরা সিদ্ধান্ত নেয় বিয়ে করবে। বিয়ের আয়োজন হলো কিন্তু কথা এলো না। অস্থির হয়ে যায় সবাই। কল্প সারা শহর খুঁজতে থাকে কথাকে। যেখানে বসে ওরা কফি খেতো, যেসব জায়গায় ওরা ঘুরে বেড়াতো সব জায়গাতেই কল্প কথাকে খুঁজেছে। কিন্তু কোথাও নেই কথা...।

আবারো শাকিব-মিশা একসাথে

ঢাকাই চিত্রনায়ক শাকিব খান ও খল অভিনেতা মিশা সওদাগর একসঙ্গে ঈদের ছবিতে কাজ করতে যাচ্ছেন। ওয়াজেদ আলী সুমনের পরিচালনায় ‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবিতে এই দুই তারকাকে দেখা যাবে। শিগগির ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে বলে জানা গেছে।

এই ছবিতে কাজ করা প্রসঙ্গে মিশা সওদাগর বলেন, ছবির গল্প এবং আমার চরিত্রটি পছন্দ হওয়ায় কাজটি করতে যাচ্ছি। আশা করছি, দীর্ঘদিন পর দর্শকরা শাকিব-মিশাকে একসঙ্গে পর্দায় দেখতে পাবেন।

গুঞ্জন রয়েছে শাকিবের কোনো ছবিতে মিশা কাজ করবেন না। তবে এমন গুঞ্জনকে উড়িয়ে দিয়েছেন জনপ্রিয় এই খল অভিনেতা। মিশা বলেন, আসলে এ ধরনের কোনো কথাই বলিনি। শাকিবের সঙ্গে আমার সর্ম্পক অন্যরকম। আমরা দুজন জুটি হয়ে ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়ে গেছি। আমাদের মধ্যে সমন্বয়টা বেশ ভালো।

 মিশা বলেন, আমি যৌথ প্রযোজনার ছবি থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি। যদি নিয়মনীতি মেনে যৌথ প্রযোজনার ছবিগুলো হতো তাহলে আমাকে দেখা যেত।

দীর্ঘদিন পর মিশা সওদাগরকে নিয়ে একই ছবিতে কাজ করা প্রসঙ্গে কলকাতা শাকিব খান বলেন, মিশা ভাই একজন ভার্সেটাইল অভিনেতা। আমরা দীর্ঘদিন একসঙ্গে কাজ করেছি। আশা করছি, ঈদে দর্শকরা দারুন বিনোদিত হবে।

নির্মাতা ওয়াজেদ আলী সুমন জানান, আগামী ২৫ মার্চ থেকে ছবির শুটিং হওয়ার কথা রয়েছে। ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করবেন শবনম বুবলী। শাকিব খান ও মিশা সওদাগর জুটি সর্বশেষ সুপারহিট ‘লাভ ম্যারেজ’ ছবিটি দর্শকদের উপহার দিয়েছিলেন।

গান ছেড়ে অন্য জগতে আরফিন রুমী

গান ছেড়ে অন্য জগতে আরফিন রুমী



https://i2.wp.com/www.cnewsbd.com/wp-content/uploads/2018/01/singer_Arfin_Rumey_cnewsbd_24.01.18.jpg?resize=675%2C436&ssl=1 
জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও সংগীত পরিচালক আরেফিন রুমী গান গাওয়া ছেড়ে দিলেন। ৫ মার্চ তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য নিজেই জানিয়েছেন তিনি।
 
রিদওয়ান নামের এক ভক্ত লিখেছেন,  ২০১১-২০১৩ সালের বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির রাজা আরেফিন রুমী আজ নিজ থেকেই তাঁর ভক্তদের কাঁদিয়ে সংগীত থেকে অবসর নিলেন! সত্যিই খুব খারাপ লাগছে ....বস ফিরে আসুন...'
 
আরেফিন রুমী বলেছেন, 'ভাসিয়ে না দিলে তো কবুল করেন না, আশা করছি আমাকে আর কখনো কোথাও গান গাইতে দেখবেন না। ইনশাল্লাহ যে দিন আমার মরণ কালেও ফিরে আসা... '
 
উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরে তিনি গানের জায়গা থেকে দূরে। ভক্ত থেকে শোবিজ পাড়া- সবখানেই এ নিয়ে কথাবার্তা চলছিল। কিন্তু তার স্ট্যাটাসের পর সেটা আরো স্পষ্ট হয়। ধারণা করা হচ্ছে ধর্মীয় বিষয়ে আরেফিন রুমী গভীর মনোযোগী হয়েছেন যার কারণে তাকে আর গানে দেখা যাচ্ছে না। অদৌ গানে ফিরবেন কি-না, এ ঘোষণার পর সেটা আরো অস্পষ্ট হলো।
 
এর আগে ছোটবেলায় তিনি তার মায়ের কাছে গান শিখেছেন। হাবিব ওয়াহিদ ও ফুয়াদ আল মুক্তাদির ছিল প্রেরণার উৎস। গানের ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে অনেক সহযোগিতাও পেয়েছেন। তিনি এ আর রহমান এর কাজগুলো দ্বারা প্রভাবিত। গানের জগতে আসার আগেই (২০০৬ সালে) মডেল এর খাতায় নাম লেখান তিনি।

চার ভাষার ওয়েব সিরিজে অন্তু করিম

চার ভাষার ওয়েব সিরিজে অন্তু করিম

চার ভাষার ওয়েব সিরিজে অন্তু করিম 
দেশে প্রথমবারের মতো নির্মিত হচ্ছে চার ভাষার ওয়েব সিরিজ ‘দ্য প্রটেকটর’। বাংলা, ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ ও আরবি এই চার ভাষায় কনটেক্স জি-ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত অ্যাকশন-থ্রিলারধর্মী এই ওয়েব সিরিজ পরিচালনা করেছেন নির্মাতা অনিক কান্তি সরকার। 
 
গল্প লিখেছেন অনিক কান্তি সরকার ও নোমান হোসেন। কেন্দ্রীয় চরিত্র সাজিদ খানের নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অভিনেতা অন্তু করিম। গত রবিবার অন্তর্জালে পোস্টার উন্মুক্ত হয়। এরপর থেকেই দর্শক মহলে আলোচনায় আসে ওয়েব সিরিজ ‘দ্য প্রটেকটর’। 
 
ওয়েব সিরিজটির গল্পে দেখা যাবে, ২০২০ সালের এক উন্নয়নশীল বাংলাদেশ, সে সময় বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে চক্রান্ত করছে বহির্বিশ্বের কিছু কুচক্রী মহল। ওদের চক্রান্তের সঙ্গে ঘটনাক্রমে জড়িয়ে পরে সাজিদের পুরো পরিবার। ধুন্ধুমার অ্যাকশন আর রহস্যে ভরপুর গল্পটির জট খুলবে খুব শিগগিরই। এ ছাড়া খুব তাড়াতাড়ি অন্তর্জালে মুক্তি পাচ্ছে ‘দ্য প্রটেকটর’ এর ফার্স্ট লুক। 
 
অভিনেতা অন্তু করিম বলেন, ‘নিজের মনের মতো একটি গল্প পেয়েছি, এমন সুন্দর একটি গল্পের অপেক্ষায় ছিলাম। কারণ সাজিদ চরিত্রটি অন্যরকম, বেশ চ্যালেঞ্জিং। অনেক ঝুঁকিপূর্ণ স্টান্ট করতে হচ্ছে। তবে কাজটাকে বেশ উপভোগ করছি। আমার সব পরিশ্রম সার্থক হবে, যদি দর্শকদের ভালো কাজ উপহার দিতে পারি। আশা করি ‘দ্য প্রটেকটর’ এর মাধ্যমে অন্য রকম অন্তু করিমকে সবাই পর্দায় খুঁজে পাবে।’ 
 
পরিচালক অনিক কান্তি সরকার জানান, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি। গল্পটাও চমৎকার। তাই চাপটাও খুব বেশি। সবাই অনেক পরিশ্রম করছে, আধুনিক প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করছি, তাই নির্মাণে কোন খুঁত রাখতে চাই না। আশা করি, বাংলাদেশসহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে গ্রহণযোগ্যতা পাবে ওয়েব সিরিজ ‘দ্য প্রটেকটর’।

আর কখনো পর্ণ ভিডিওতে কাজ করবেন না মিয়া খলিফা

নীল ছবির তারকা হিসেবেই তাকে চেনেন তামাম দুনিয়া। তবে তাকে আর নতুন কোন নীল ছবিতে দেখা যাবে না। আর এ কথাটি নিজেই জানিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় পর্ন অভিনেত্রী মিয়া খলিফা। সাবেক সাইক্লিস্ট ল্যান্স আর্মস্ট্রংয়ের সঙ্গে কথা বলার সময় এসব কথা জানান তিনি।
মিয়া বলেন, যখন আইএসের পক্ষ থেকে মৃত্যুর হুমকি আসতে থাকে, তখন সব কিছুই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। তাই আমাকে সরে আসতে হয়। 
তিনি বলেন, এ পেশায় খুব দ্রুতই আমি জনপ্রিয়তা পেয়ে যাই। বিষয়টি আমি বেশ উপভোগও করতাম। শেষমেশ যেটা করতে হয়েছে, তা করতে চাইনি আমি। এর প্রতিবাদ করতে চেয়েছিলাম কিন্তু পারিনি। আমাকে পরাজয় মেনে নিতে হয়েছে।


জেদ করে নীল ছবিতে অভিনয়ের সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল বলে মনে করেন ২৫ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী। এর ফলে তার ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে বলে এখন অনুতপ্ত তিনি। এখন তিনি স্পোর্টস শো ‘আউট অব বাউন্ডস’এর উপস্থাপিকা হিসেবে কাজ করছেন।

উল্লেখ্য, লেবাননের এক খ্রিস্টান পরিবারে জন্মান খলিফা। ১০ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান তিনি। ধীরে ধীরে নীল ছবির জগতে পা রাখেন তিনি। একপর্যায়ে হয়ে ওঠেন বিশ্বের প্রথম সারির পর্ন অভিনেত্রীদের একজন। ২০১৫ সালে একটি পর্নে হিজাব পরা খলিফাকে দেখা যায়। এজন্যই তাকে হুমকি দেয় আইএস। 
সূত্রঃ মিরর