যতই হামলা আসুক আমি মাঠে আছি, থাকব- হিরো আলম

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া ৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিংহ প্রতীক নিয়ে লড়ছেন আলোচতি মডেল-অভিনেতা হিরো আলম। নির্বাচনের একদিন আগে গণমাধ্যমকর্মীদের নিকট তার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর ও তার সমস্ত পোস্টার ছিঁড়ের ফেলা হয়েছে মর্মে অভিযোগ করেছেন।

শনিবার দুপুরে আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম বলেন, নন্দীগ্রামের ৩ নং ভাদুরিয়া ইউনিয়নে আমার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করেছেন কে কারা। আমি গতকাল রাতেও ওই অফিসে নির্বাচনী সভা করেছি। এরপরেই আজ সকালে জানতে পারি, আমার অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে এবং পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও ৫ টি ইউনিয়নের সমস্ত ভোটকেন্দ্রের সামনের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে।
হিরো আলমের অফিস ভাঙচুর, কর্মীদের হুমকির অভিযোগ
হিরো আলম তার কর্মীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে অভিযোগ করে বলেন, আমার সমস্ত পোলিং এজেন্টদের হুমকি দেওয়া হয়েছে তারা যেন কেন্দ্রে না যায়। আমার কর্মী নজরুল, রাসেল, মোস্তফাসহ আরো অনেককেই ক্রমাগত ফোনে হুমকি দেয়া হচ্ছে। আমাকে নির্বাচন থেকে সরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু কোনো শক্তি আমাকে নির্বাচন থেকে সরাতে পারবে না। যত আঘাত আসুক আমি মাঠে আছি, থাকব।
হিরো আলম বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। গত ২ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাই করে রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিল। ১০ জনের স্বাক্ষরে গড়মিল থাকায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছিল। এরপর মনোনয়ন ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেন হিরো আলম।
মনোনয়ন পত্র বাতিলাদেশের বিরুদ্ধে ইকোর্টে রিট করেন বগুড়া-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম। ওই রিটের আদেশে হাইকোর্ট নির্বাচন কমিশনকে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ দেন।


EmoticonEmoticon